Home ধর্ম বিশ্বব্রহ্মান্ডে সত্যিই কি ৩৩কোটি দেবদেবী রয়েছেন ?

বিশ্বব্রহ্মান্ডে সত্যিই কি ৩৩কোটি দেবদেবী রয়েছেন ?

735
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(২৪ আগস্ট) :: ৩৩কোটি দেবদেবী রয়েছেন এই বিশ্বজুড়ে৷ হিন্দুধর্মে এই কথাটি প্রবলভাবে প্রচলিত৷ কিন্তু এই কথাটি আদৌ কতটা সত্যি৷ সেটি নিয়ে কিন্তু দ্বন্দ্ব রয়েছে৷

৩৩কোটি দেবতা আদতে ব্যবহৃত হয় ৩৩ধরণের দেবতার কথা বোঝাতে৷ কিন্তু যারা ধম্ম-কম্ম নিয়ে আলোচনা করেন তারাও অনেকেই এই কোটি কথাটির অর্থ জানেন না৷

আমাদের হিন্দু ধমের্র দেব – দেবীর সংখ্যা নিয়ে যখন আলোচনা হয় তখনই বিষয়টি একটি হাসি তামাশার বিষয়ে পরিণত হয়। অধিকাংশ হিন্দুরা অসংখ্য দেব – দেবীর আরাধনা করেন৷

অনেক হিন্দু ধমার্বলম্বী যারা ৩৩ কোটি লিখতে পর্যন্ত পারেন না তারাও প্রায়শই ৩৩কোটি দেবতা নিয়ে আলোচনা করেন। শুধুমাত্র কয়েক মানুষ জানেন এই ৩৩ সংখ্যাটির সঙ্গে যুক্ত কোটি শব্দটির প্রকৃত অর্থ কি? এই নিয়ে অনেক গবেষণার পরই আসল বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে৷

রনে-বনে-জঙ্গলে যখনই কেউ বিপদে পরেন তখনই তারা স্মরণ করেন ভগবানকে৷ ভারতীয়রা যা চিন্তা করে তা হল আমরা যা বলি, করি, পড়ি তা সবই ঈশ্বরের প্রকাশ। তারা বিশ্বাস করেন ঈশ্বর এক ও অদ্বিতীয়। পৃথিবীতে রয়েছে ৩৩ধরণের দেব-দেবী৷ এই দেবদেবীর মধ্যে রয়েছেন-

১) আদিত্য- অংশুমান, আর্যমান, ইন্দ্র, ত্বস্থ, ধাতু, পারজন্য, পুশ, ভোগ, মিত্র, বরুণ, বিবশ্বণা এবং বিষ্ণু৷

২) বাসু- অপ, ধ্রুব, সোম, ধর, অনিল, অনল, প্রত্যুষা এবং প্রভাস৷

৩) রুদ্র- শম্ভু, পিনাকি, গিরিশ, স্থানু, ভার্গ, ভব, সদাশিব, শিব, হর, শর্ব, কাপালি৷

কিন্তু এদের মধ্যে প্রধান দেবতা ব্রহ্মা৷ প্রজাপতি হিসেবেও পরিচিত ব্রহ্মা৷ দেবতা৷ তবে, এর পাশাপাশি বলা যায় হিন্দু ধর্মানুযায়ী, সতীই হল পার্বতী এবং এর আরও একটি রূপ দূর্গাও৷ বিষ্ণু ঠাকুরেরও রয়েছে ২৪টি অবতার৷

SHARE