Home ধর্ম সমুদ্রের তলায় ৫ হাজার বছর ধরে শায়িত রয়েছেন বিষ্ণুদেবতা

সমুদ্রের তলায় ৫ হাজার বছর ধরে শায়িত রয়েছেন বিষ্ণুদেবতা

500
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(২৭ আগস্ট) :: বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে অত্যাশ্চর্য বিষয়৷ এমনই অনেক বিষয় রয়েছে৷ যা আজও অনেকেরই অজানা৷ লোকচক্ষুর আড়ালে৷ কথিত আছে, হিন্দুধর্ম বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন সভ্যতা৷ এগুলির মধ্যে বেশ কিছু রয়েছে একেবারেই অবিশ্বাস্য৷ সমুদ্রের তলায় বিষ্ণু ঠাকুরের মন্দিরের কথা হয়তো অনেকেরই অজানা৷

ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী বালিতে অবস্থিত এই বিষ্ণু মন্দির৷ প্রায় ৫হাজার বছরের পুরোনো এই মন্দিরটি৷ স্কুবা ডাইভিংয়ের জন্য অন্যতম হল বালির সমুদ্র৷ পেমুটেরান সমুদ্রতীরের নীচে অবস্থিত আন্ডার ওয়াটার টেম্পল-বালি৷ স্কুবা ডাইভারদের জন্য এই মন্দিরটি একটি অন্যতম দর্শনীয় স্থান৷

স্কুবা ডাইভাররা যারা সমুদ্রের তলায় যান, তারা কেউই এই মন্দিরে পুজো না দিয়ে ফেরেন না৷ এই মন্দিরে সবসময়ই বিষ্ণু ঠাকুরের মূর্তি দেখতে পাওয়া যায়৷ একেবারেই নিশ্চিন্তে শায়িত অবস্থায় রয়েছে মূর্তিটি৷ লোকমুখে প্রচলিত রয়েছে, এই দেবতার কাছে যা প্রার্থনা করা হয়৷ তা সহজেই মেলে৷

কথিত আছে, পূর্ব এশিয়াতে এই ধরণের অত্যাশ্চর্য হিন্দু এবং বুদ্ধ মন্দির আরও বহু রয়েছে৷ তার মধ্যে এটি একটি অন্যতম৷ এছাড়াও কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড, মায়ানমার, কোরিয়া, জাপান এবং চিনেও এই ধরণের মূর্তি আরও দেখতে পাওয়া যায়৷

SHARE