Home জীবনযাত্রা শীতের পুরনো কাপড় দেখাবে নতুন

শীতের পুরনো কাপড় দেখাবে নতুন

106
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(৭ ফেব্রুয়ারি) :: শীতের বিদায় ঘণ্টা যেন বেজেই চলছে। সন্ধ্যা মেলাতেই হালকা হিম ভাব থাকলেও শহরবাসীর কাছে তা আরামদায়কই বটে। অন্যদিকে ঋতুরাজ বসন্ত আসতে বেশিদিন বাকি নেই। এ সময়টায় শীতের জামাকাপড়গুলো তুলে রাখার তোড়জোড় শুরু হয়ে যায়। প্রতি বছর কেনা এসব কাপড় অল্প ক’দিনের শীতে খুব একটা ব্যবহার করা হয় না। তাই বলে তো ফেলেও দেয়া যায় না। পরের বছরের জন্য ঠিকই উঠিয়ে রাখা হয়।

অন্যদিকে সবুজবান্ধব জীবনযাপন কিন্তু তাই বলে। কেননা একটা জামা প্রস্তুত হতে অর্থ, সময় এবং উপাদানের যতটা ব্যবহার হয়, ঠিক ততটা ব্যবহার না হলে সেটা তো অপচয় নিঃসন্দেহে। আর এজন্য পরিবেশকেও যে ঝক্কি পোহাতে হয় না, তাও কিন্তু না। তাই শীত শেষে গরম কাপড়গুলো যথাযথ উপায়ে বাক্সবন্দি করে ফেলাই ভালো।

যদি ভেবে থাকেন পুরো একটা বছর বাক্সবন্দি থাকার পর উষ্ণতা বিলিয়ে দেয়া কাপড়গুলো যদি মলিন হয়ে যায়, তাহলে সেটা আর ব্যবহারের দরকারইবা কী? তাহলে আপনাকেই বলছি, ভাবুন তো একটা শীতবস্ত্র তৈরি করতে পরিবেশকে ঠিক কতটা ক্ষতিপূরণ দিতে হয়েছে।

পরিবেশ নিয়ে ভাবেন যারা, তাদের কাছে তো বটেই, যারা এ বিষয়ে খানিকটা উদাসীন, তাদের কাছেও বেশ গুরুত্ব বহন করবে আগের বছর উষ্ণতা বিলিয়ে দেয়া গরম কাপড়গুলো। কেননা অর্থের অপচয় যে হচ্ছে সেসঙ্গে সেটা কে না বোঝে। সে যা-ই হোক না কেন উষ্ণ কাপড়গুলোকে বছরের পর বছর ভালো রাখতে চাইলে কিছু কৌশল তো আপনাকে অবলম্বন করতেই হবে।

একেবারেই নতুন দেখাবে পুরনো সোয়েটার— সেটা কার না চাওয়া। চাওয়া পূরণ করতে ছুটতে হবে না লন্ড্রিতে বরং ঘরে বসেই নতুন ভাব নিয়ে আসতে পারেন সেসবে। অনেক সময়ই দেখা যায়, একটু পুরনো হয়ে যাওয়া সোয়েটারের ওপর ববলিন উঠে যায়। এমন অবস্থায় সোয়েটারটিকে আরো বেশি মলিন লাগে। সেক্ষেত্রে ঘরে কিনে রাখতে পারেন সোয়েটার কম্ব বা শীতের কাপড় আঁচড়ে রাখার জন্য বিশেষ চিরুনি।

তবে কেউ চাইলে ঘরে থাকা সাধারণ মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়েও সোয়েটারের ওপর আঁচড়ে নিতে পারেন। এতে সোয়েটারের ওপর উঠে থাকা ছোট ববলিন উঠে আসবে চিরুনির সঙ্গে। আর সোয়েটারটি ফিরে আসবে ঠিক আগের রূপেই।

উলে বোনা সোয়েটারের কোথাও একটু ফাঁকা হয়ে গিয়ে কিংবা ফুঁটো তৈরি হয়েছে, তাই বলে কি সেটা ব্যবহারের উপযোগিতা হারিয়েছে? বিষয়টি এমন নয়। বরং ঘরে বসেই সারিয়ে ফেলুন প্রিয় সোয়েটারটি। বাজারে সোয়েটার সেলাই করার সুই-সুতা পাওয়া যায়। নিত্য প্রয়োজনীয় টুকটাক উপকরণের তালিকায় রাখুন সোয়েটার সেলাই করার জন্য মোটা সুই-সুতা।

এবার ছিঁড়ে গেলে কিংবা ফাঁকা হয়ে গেলে শীত কাপড়ের সে স্থানটি বাড়িতে বসেই সেলাই করে নিন। দেখবেন সেটি পুনরায় ব্যবহারযোগ্য হয়ে উঠবে। আর যদি এমন হয় ছেঁড়া অংশটি তুলনামূলক বড়, তাহলে সেখানে সুই-সুতায় তুলে নিতে পারেন নতুন নকশা।

আর সব শেষে আগামী বছর পরিধানের জন্য তুলে রাখার আগে যথাযথ উপায়ে ধুয়ে রোদে শুকিয়ে রাখার কথা না বললেই না। মনে রাখবেন, যেহেতু দীর্ঘদিন এ কাপড়গুলোয় স্পর্শও লাগে না, তাই ধোয়ার পর ভালোভাবে রোদে শুকিয়ে নেয়া উচিত। অন্যথায় লেগে থাকা দাগ ভালোভাবেই বসে যেতে পারে।

আলমারিতে তুলে রাখার আগে পুনরায় পরখ করে নিন কাপড়ে কোনো অযাচিত দাগ লেগে আছে কিনা। শীতের কাপড়গুলো ধোয়ার ক্ষেত্রে বেছে নিতে পারেন প্রাকৃতিক উপায়। রাসায়নিক মিশ্রিত ডিটারজেন্ট ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন।

SHARE