Home অর্থনীতি ভারতের প্রস্তাব ফিরিয়ে চিনকেই ডিএসই’র ২৫ শতাংশ শেয়ার বিক্রি

ভারতের প্রস্তাব ফিরিয়ে চিনকেই ডিএসই’র ২৫ শতাংশ শেয়ার বিক্রি

125
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(২১ ফেব্রুয়ারী) :: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ২৫ শতাংশ শেয়ারের মালিকানা দেওয়া হচ্ছে চিনা কনসর্টিয়ামকে। ভারত ও চিনের সঙ্গে দরাদরির পর, অবশেষে চিনকেই দেওয়া হচ্ছে ওই শেয়ার। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের কর্মকর্তারা।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি চিনা কনসর্টিয়ামের প্রস্তাবেই সাড়া দিয়েছেন বাংলাদেশ। ফলে শেয়ারবাজারের এক বিশাল অংশের শেয়ার চিনের কাছে বিক্রি হতে চলেছে। পাকিস্তানের শীর্ষ দৈনিক ডন নিউজের অনলাইনে এ ব্যাপারে একটি প্রতিবেদনও প্রকাশ হয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চিনের পরেই শেয়ার কেনার ব্যাপারে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে ভারত। তবে ভারতের কাছে শেয়ার বিক্রি না করে চিনের কাছে বিক্রি করছে বাংলাদেশ।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ এক-চতুর্থাংশ শেয়ার চিনের কাছে বিক্রির প্রস্তাব গ্রহণ করে। তবে বাংলাদেশের কর্মকর্তারা এ ব্যাপারে বিচার-বিবেচনার জন্য কয়েকদিন সময় নেন। বাংলাদেশের শেয়ারবাজারের মুখপাত্র শফিকুর রহমান বলেন, চিনের প্রস্তাব মেনে নেওয়ার ব্যাপারে সমর্থন দিয়েছেন বোর্ডের সদস্যরা। কারণ চিনের প্রস্তাব অন্যদের থেকে অনেকটাই বেশি।

চলতি মাসেই শেয়ার বিক্রির টেন্ডারে প্রতি শেয়ারের দাম ১৫ টাকা বলেছে মুম্বইয়ের স্টক এক্সচেঞ্জ। অন্যদিকে প্রতি শেয়ারের দাম ২২ টাকা দিতে চায় চিন। এছাড়া আরও ৩৭ মিলিয়ন ডলার সহায়তার প্রস্তাবও দেয় চিন।

তবে শুরুর দিকে অভিযোগ ওঠে, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন অনৈতিকভাবে ভারতের কাছে শেয়ার বিক্রি নিয়ে দরাদরি করছে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশি কিছু অ্যাক্টিভিস্টরা প্রতিবাদও করেন। স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরেও বিষয়টি উঠে আসে। বার্লিনভিত্তিক দুর্নীতি দমন বিষয়ক সংস্থার বাংলাদেশ অফিস থেকে এ ব্যাপারে নিন্দাও করা হয়। এরকম একটি পরিস্থিতিতে চিনের কাছে শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত নিল বাংলাদেশ।

প্রসঙ্গত, চিনা প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ভারতের যে কনসোর্টিয়াম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিল তাতে যুক্ত ছিল আমেরিকার নাসদাক ও ফ্রন্টিয়ার বাংলাদেশ। ডিএসই কর্তৃপক্ষকে দেওয়া প্রস্তাবে তারা জানিয়েছিল, স্টক এক্সচেঞ্জের আধুনিকীকরণে তারা বিনিয়োগ করবে। একই সঙ্গে পাঁচ বছরের জন্য পর্ষদে দুজন প্রতিনিধি রাখার দাবিও ছিল তাদের।

SHARE