Home খেলা বিশ্ব ফুটবলের বড় মঞ্চে দুর্ভাগা নেইমার !

বিশ্ব ফুটবলের বড় মঞ্চে দুর্ভাগা নেইমার !

204
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(২৭ ফেব্রুয়ারী) :: ব্রাজিল বনাম কলম্বিয়ার ২০১৪ বিশ্বকাপ কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ। ৮৮ মিনিটের খেলা চলছিল তখন। ২-১ গোলে এগিয়ে ব্রাজিল অপেক্ষায় ছিল শেষ বাঁশি শোনার। একটু পরই সেমিফাইনালে যাওয়ার আনন্দে মেতে উঠবে স্বাগতিক দল। তখনই ঘটল সেই দুঃখজনক ঘটনা। কলম্বিয়ান ডিফেন্ডার হুয়ান কামিলো জুনিগারের ট্যাকলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন নেইমার। স্তাদিও ক্যাস্তেলোয় তখন পিনপতন নীরবতা।

জয় ছাপিয়ে পেয়ে বসে দলের সেরা তারকাকে হারানোর শঙ্কা। কশেরুকার সেই আঘাত এতটাই গুরুতর ছিল যে, জার্মানির বিপক্ষে সেমিফাইনালে দর্শকের ভূমিকায় থাকতে হয় নেইমারকে। পরের ঘটনা তো ইতিহাস। নেইমারবিহীন ব্রাজিলের জালে জার্মানি বল জড়ালো গুনে গুনে সাতবার। ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দলটির সবচেয়ে লজ্জাজনক বিদায়।

পরের ঘটনাটি ঘটেছে ২০১৫ সালের কোপা আমেরিকায়। বিশ্বকাপের তিক্ত অভিজ্ঞতা ভুলতে সেটিই ছিল ব্রাজিলের প্রথম সুযোগ। কিন্তু সেখানেও দেখা গেল নেইমার কাণ্ড। তবে এবার চোটে পড়ে নয়, গ্রুপ পর্বে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে মাথা গরম করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন তিনি। তাত্ক্ষণিক লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেয়া হয়। পরে সেই নিষেধাজ্ঞা বেড়ে দাঁড়ায় চার ম্যাচে। আর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ওঠার আগেই প্যারাগুয়ের কাছে হেরে ছিটকে যায় ‘সেলেসাও’রা।

বড় টুর্নামেন্টে নেইমারের এমন দুর্ভাগ্য এই দুই ঘটনাতেই শেষ হয়ে যায়নি। এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নকআউট পর্ব উতরাতে দল যখন তার দিকে তাকিয়ে আছে, তখন আরেকবার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ মিস করার শঙ্কায় পড়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়। তার আঘাত বলছে, এই ম্যাচটিতে তার নামতে না পারার সম্ভাবনাই বেশি।

মার্শেইয়ের বিপক্ষে লিগ ওয়ানের সে ম্যাচে ৭৭ মিনিটে প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে নেমে পায়ে আঘাত পান নেইমার। সে সময় তার অভিব্যক্তিই বলে দিচ্ছিল এটা নিতান্তই সাধারণ কোনো আঘাত নয়। এবার জানা গেছে আঘাতের বাস্তব অবস্থা। ক্লাব বলেছে, ‘নেইমারের গোড়ালির গাঁট মটকে গেছে। পাশাপাশি ভেঙেছে পঞ্চম মেটাটারসালও।’

সব মিলিয়ে ফিরতি লেগে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচে তার খেলার সম্ভাবনা এখন সুতোয় ঝুলছে। তবে অনেকেই এখন নেইমারের ফেরার সম্ভাবনায় ইতি টেনে দিয়েছেন। আর এই আশঙ্কা যদি সত্য হয়, তবে শিরোপা প্রত্যাশী পিএসজির জন্য এটি বড় আঘাতই বলতে হবে।

বার্নাব্যুতে ইতোমধ্যে ৩-১ গোলে হেরে পিছিয়ে আছে ফরাসি জায়ান্টরা। প্যারিসে তাই নেইমারকে ঘিরেই স্বপ্ন দেখছিল দলের কোচ উনাই এমেরে। দলের অন্যতম সেরা তারকাকে হারিয়ে রিয়ালের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোটা তার দলের জন্য কঠিনই হবে।

অবশ্য চোটের পর নেইমারকে পাওয়ার আশা ব্যক্ত করেছিলেন এমেরে। কিন্তু রিপোর্ট দেখে হয়তো তাকে নতুন করেই পরিকল্পনা সাজাতে হবে। এমনকি প্রতিপক্ষ দলের কোচ জিনেদিন জিদানও নেইমারের ফিরে আসার অপেক্ষায় আছেন। জিদান বলেন, ‘নেইমারের চোট মোটেই আনন্দের সংবাদ নয়। আশা করি, সে দ্রুত মাঠে ফিরে রিয়ালের বিপক্ষে ম্যাচটি খেলবে।’

অবশ্য জিদানের এই আশা সফল হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। এ ধরনের চোটে সাধারণত সেরে উঠতে এক মাসের বেশি সময় লেগে যেতে পারে। সব মিলিয়ে আরো একটি বড় মঞ্চে নেইমারকে হারানো বলা যায় কেবল সময়ের অপেক্ষা। সেই সঙ্গে নেইমারের বড় মঞ্চের দুর্ভাগ্যও আরেকটু দীর্ঘায়িত হলো।

বিবিসি, মার্কা

SHARE