Home আন্তর্জাতিক ভারতে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের সবথেকে বড় নিউক্লিয়ার প্লান্ট : আরও ৩৬টি রাফায়েল...

ভারতে তৈরি হচ্ছে বিশ্বের সবথেকে বড় নিউক্লিয়ার প্লান্ট : আরও ৩৬টি রাফায়েল দিতে চাইছে ফ্রান্স

115
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(১২ মার্চ) :: ফরাসি প্রেসিডেন্টের ভারত সফরে নতুন করে শুরু হয়েছে আলোচনা। বছরের শেষেই হয়ত শুরু হয়ে যাবে কাজ। পৃথিবীর সবথেকে বড় নিউক্লিয়ার প্লান্ট তৈরি হবে ভারতের মাটিতে। গত প্রায় এক দশক ধরে এই নিয়ে আলোচনা চলছে দুই দেশের।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাকরঁ ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই প্রজেক্টের জন্য ফরাসি সংস্থা Electricite de France SA ও ভারতের Nuclear Power Corp.-কে প্রস্তাব দিয়েছেন। চলতি বছরের ডিসেম্বরেই মহারাষ্ট্রের জয়িতাপুরে এই প্রজেক্টের কাজ শুরু হবে।

ভারত ও ফ্রান্সের এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘এটাই হবে বিশ্বের সবথেকে বড় নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্লান্ট। এর ক্ষমতা হবে ৯.৬ গিগাওয়াট।’ এই প্রজেক্টের মাধ্যমে ভারতের পরমাণু ক্ষমতা ২০৩২-এর মধ্যে ন’গুণ বাড়াতে চায় ভারত।জয়িতাপুরের এই প্রজেক্টের জন্য ২০০৯ সালে প্রাথমিকভাবে একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করে ফরাসি ওই সংস্থা।

এদিকে ভারত সফরে কৌশলগত সম্পর্কের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। তিনি বলেছেন, ‘ফ্রান্স হচ্ছে ইউরোপের প্রবেশ দ্বার। আমরা ইউরোপে ভারতের সবচেয়ে ভালো অংশীদার হতে চাই।’ শনিবার দিল্লির প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে সংবর্ধনা গ্রহণের পর তিনি এ মন্তব্য করেন। এ বিষয়টি নিয়ে রবিবার শিরোনাম করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Rafale Solo Display.

কিন্তু বিরোধী দল কংগ্রেসের দাবি, তাদের আমলে এ ব্যাপারে স্বাক্ষরিত চুক্তিতে নির্ধারিত দামের চেয়ে অনেক বেশি দাম ধরা হয়েছে মোদির স্বাক্ষরিত চুক্তিতে। এদিকে ভারতকে আরও ৩৬টি রাফায়েল দিতে চাইছে ফ্রান্স। ফরাসি প্রেসিডেন্টের বক্তব্যেও দেশটির এই ইচ্ছার প্রতিফলন দেখা গেছে।

এর আগে চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে শুক্রবার রাতে ভারতে পৌঁছান ফরাসি প্রেসিডেন্ট। প্রটোকল ভেঙে বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

শুক্রবার রাতে দিল্লিতে পৌঁছালেও শনিবার ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে বৈঠকের মধ্য দিয়ে সফরের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। এদিন নরেন্দ্র মোদি’র সঙ্গেও দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের কথা রয়েছে তার। এ বৈঠকে দুই নেতা দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নানা বিষয়ে মতবিনিময় করবেন বলে মনে করা হচ্ছে। বিশেষ করে সন্ত্রাসবাদ, অবকাঠামো, নগরায়ন, প্রতিরক্ষা, মহাকাশ ও পারমাণবিক শক্তির মতো বিষয়গুলো তাদের আলোচনায় প্রাধান্য পাবে। শীর্ষ বৈঠকের পর দুই দেশের মধ্যে কয়েকটি চুক্তি স্বাক্ষরের কথা রয়েছে।

১১ মার্চ ভারতে ইন্টারন্যাশনাল সোলার অ্যালায়েন্স সামিটে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে ফরাসি প্রেসিডেন্টের। ১২ মার্চ উত্তরপ্রদেশের মির্জাপুরে যৌথভাবে সোলার প্ল্যান্টের উদ্বোধন করবেন ম্যাক্রোঁ এবং মোদি। ভালোবাসার অনবদ্য নিদর্শন আগ্রা’র তাজমহলও পরিদর্শন করবেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট।

ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দ্বিপাক্ষিক অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক এবং কৌশলগত বিভিন্ন ক্ষেত্রে কার্যক্রম জোরদার করাই প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ’র এ সফরের লক্ষ্য।

ভারতের নবম বৃহত্তম বিদেশি বিনিয়োগকারী দেশ ফ্রান্স। দেশটির প্রেসিডেন্টের সফরসঙ্গীদের মধ্যে তার স্ত্রী ব্রিজিত মারি-ক্লদ ম্যাক্রোঁসহ দেশটির শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী এবং উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা রয়েছেন।

যৌথ সাংবাদিক সম্মেলনে ভারত-প্রশান্তমহাসাগরীয় অঞ্চলে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা আরও বাড়াতেও সম্মত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও ইমানিয়েল ম্যাকরঁ৷ মোদী বলেন, ‘আমাদের প্রতিরক্ষা সহযোগিতা এমনিতেই দৃঢ়। ফ্রান্সকে সবচেয়ে বিশ্বস্ত প্রতিরক্ষা শরিকদের মধ্যে ফেলছি আমরা।’ দু’দেশের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে সরঞ্জাম দেওয়া নেওয়ার বোঝাপড়াকে তিনি প্রতিরক্ষা সম্পর্কে সোনালি সময় বলেও মন্তব্য করেন।

SHARE