কুতুবদিয়ায় মুক্তিযোদ্ধাদের ঘর নিমার্ণ প্রকল্পে হরিলুট : নির্মাণ শেষ না হতেই ধ্বসে পড়েছে পিলার ও দেয়াল

13-03-18.jpg

এম.নজরুল ইসলাম,কুতুবদিয়া(১২ মার্চ) :: কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় ভূমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য ঘর নির্মাণ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। কাজ নি¤œমানের হওয়ায় নির্মাণ কাজ শেষ না হতেই ধ্বসে পড়েছে ঘরের দেয়াল পিলার।বিষয়টি এলাকায় টক অব দ্যা নিউজে পরিণত হয়েছে।

উপজেলার প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা বড়ঘোপ ইউনিয়নের মন মোহন দাশের স্ত্রী সাধনা বালা দাশের নামে বরাদ্দকৃত একতলা বিশিষ্ট ঘরটি নিমার্ণরতবস্থায় ভেঙ্গে পড়লে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

একতলা বিশিষ্ট ঘরটি নির্মানের জন্য সাড়ে নয় লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে বলা জানান সাধনা বালা। গত ১৫ ফেব্রুয়ারী থেকে নির্মাণ কাজ শুরু করে গত ১২ মার্চ নির্মাণ শ্রমিকরা ঘরের লিন্টারের কাজ করতে গিয়ে পিলার ভেঙ্গে পড়ে যায়। এতে আহত হয় দুই নির্মাণ শ্রমিক।

এ ব্যাপারে কুতুবদিয়া উপজেলা প্রকৌশলী মুহাম্মদ মহসীনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ভুমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার জন্য ঘর নির্মাণ প্রকল্পে কুতুবদিয়ায় ওই একটি ঘরের বরাদ্দ পাওয়া যায়। চলতি ২০১৭-১৮ অর্থ বছর স্থানীয় সরকার মন্ত্রাণালয় ঘরটি নির্মাণের জন্য সাড়ে নয় লাখ টাকা বরাদ্দ প্রদান করে ঠিকাদার নিয়োগ করলে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান গত মাসে কাজ শুরু করে।

প্রাক্কলনে সমস্যা থাকায় এ ধরনের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে বলে জানান তিনি । প্রাক্কলনে দরজা জানালায় কাটা লিন্টার ধরা থাকলেও তা বাদ দিয়ে বর্তমানে সর্ম্পূণ লিন্টার করার জন্য ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান কাজ পাওয়া ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সাব-ঠিকাদার নিয়োগ করে স্থানীয় রফিক ও আলহাজ আমির হামজা ঠিকাদারের মাধ্যমে নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করায় ঘর তৈরির কাজ নি¤œমানের হচ্ছে।

মুক্তিযোদ্ধা ভোলা নাথ দাশ জানান, যে সব মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ভুমিহীন ও অসচ্ছল তাদের গৃহ নির্মাণের জন্য মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয় থেকে অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এটি বাস্তবায়ন করছে এলজিইডি কর্তৃপক্ষ। এ এ ধরনের নি¤œমানের কাজের কারনে প্রাকৃতিক দুর্যোগ (ভূমিকম্প ও ঘূর্ণিঝড়) সময়ে মারাতœক প্রাণহানিসহ দুর্ঘটনার আশংকা করেছেন তিনি।

প্রকৌশলী অফিস সূত্রে আরও জানা যায়, এ বরাদ্দে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য আবাসন হিসেবে একটি একতলা ভবন নির্মাণ, বাইরে আলাদাভাবে থাকবে একটি টয়লেট, ওয়াশ রুম, টিউবওয়েল, গোয়াল ঘর, হাসমুরগির ঘর নির্মাণ করা হবে।

Share this post

PinIt
scroll to top