Home কক্সবাজার কুতুবদিয়া মিথ্যা মামলায় স্বাক্ষী দিতে গিয়ে বাদী-স্বাক্ষী হাতাহাতি

কুতুবদিয়া মিথ্যা মামলায় স্বাক্ষী দিতে গিয়ে বাদী-স্বাক্ষী হাতাহাতি

206
SHARE

বিশেষ প্রতিবেদক,কুতুবদিয়া(১৪ মার্চ) :: কুতুবদিয়ায় মিথ্যা মামলায় স্বাক্ষী দিতে গিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। ১২ মার্চ (সোমবার) কুতুবদিয়া উপজেলা চত্বরে ঘটনাটি উপভোগ করেছে প্রত্যক্ষদর্শীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, উপজেলার মুরালিয়া গ্রামের আবদুল মোনাফ নামে এক ব্যক্তি ও তার স্ত্রী জাহানারা বেগম আদালতে স্বাক্ষী দিতে গিয়ে সামঞ্জস্যহীন বক্তব্য প্রদানের একটি বিষয় নিয়ে তর্ক করছিল স্বামী-স্ত্রী দুই জন।

এ সময় মামলায় স্বাক্ষী দিতে আসা একই গ্রামের মৃত আবুল কলামের পুত্র নাছির উদ্দিন কিছু একটা বলার চেষ্টা করলে আবদুল মোনফের স্ত্রী জাহানারা বেগম মিথ্যা স্বাক্ষীর জন্য নাছিরকে দেয়া ৫০০টাকা ফেরত চায়। নাছির টাকা ফেরত না দিতে চাইলে জাহানারা বেগম তার সাথে হাতাহাতিতে লিপ্ত হয়।

এবিষয়ে নাছির বলেন, ওইদিন জাহানারা বেগম ও আবদুল মোনাফ আদালাতে স্বাক্ষী দেওয়ার সময় ভিন্ন ভিন্ন কথা বলেন। কেউই একই ধরনে কথা বলতে পারেননি।

অর্থাৎ বিজ্ঞ আদালতে বিবাদী পক্ষের আইনজীবী কর্তৃক হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে জাহানারা বলেন, আমার স্বামীকে কুতুবদিয়া হাসপাতালে ১ দিন এবং সেখান থেকে রেফার করে চট্টগ্রাম সদর হাসপাতালে ৫ দিন চিকিৎসা দেয়া হয়।

একই বিষয় আবদুল মোনাফকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি জানান, কুতুবদিয়া হাসপাতালে ২দিন এবং সেখান থেকে রেফার হয়ে চট্টগ্রাম আন্দর কিল্লাহ জেনারেল হাসপাতালে ৫দিন চিকিৎসা নেন তিনি। তাদের সামঞ্জস্যহী স্বাক্ষীতে ঘটনা মিথ্যা প্রতিয়মান হওয়ায় আদালত আর আমার স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেননি।

প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান , বিষয়টি নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বলাবলির ফাঁকে উভয়ে মধ্যে ঝগড়া হলে উপজেলা চত্বরে নাছিরের সাথে হাতাহাতি হয় এবং ৫০০ টাকা ফেরত চায় জাহানারা। পরে আবার নাছিরকে নিয়ে একসাথে ভাত খেয়ে এলাকায় চলে যায় তারা। বিষয়টি এলাকায় হাস্য-রসে পরিণত হয়েছে।

SHARE