Home কক্সবাজার গর্জনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুল ইসলাম চলে গেলেন না ফেরার দেশে

গর্জনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুল ইসলাম চলে গেলেন না ফেরার দেশে

120
SHARE

মো: জয়নাল আবেদীন টুক্কু, নাইক্ষ্যংছড়ি(১৩ মার্চ) :: ঐতিহ্যবাহি রামুর গর্জনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ এইচ এম মনিরুল ইসলাম আর নেই। তিনি ১৩ মার্চ দুপুরে ককসবাজার ডিজিটাল হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর। তিনি ২ সন্তান ও এক স্ত্রী রেখে গেছেন।

তার স্ত্রী নাসরিন আক্তার নাইক্ষ্যংছড়ি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা। মরহুম মুনির দীর্ঘ ২২ বছর ধরে গর্জনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে চাকুরী করে আসছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি চকরিয়া হারবাং বড়ইতলী।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ২ টি নামাজে জানাজা অনুষ্টিত হয়। এর একটি নাইক্ষ্যংছড়ি বালিকা বিদ্যালয় মাঠে। অপরটি গর্জনিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে। নাইক্ষ্যংছড়ির নামাজে জানাজায়

অংশ নেন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বার্হী অফিসার এসএমসরওয়ার কামাল, স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক শফিউল্লাহ, সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী সহ শতশত শোকার্ত মানুষ। এদিকে গজর্নিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নামাজে জানাযায় অংশ নেন, ককসবাজার জেলা শিক্ষা অফিসার ছালেহ উদ্দিন চৌধুরী,রামু উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল সরওয়ার কাজল,ককসবাজার জেলা পরিষদ সদস্য শামশুল আলম, গর্জনিয়া উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান তৈয়ব উল্লাহ চৗধুরী, গর্জনিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম,কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মো: ইসমাঈল নোমান, ককবাজার জেলা শিক্ষক নেতা হোসাইন আহমদ,নাইক্ষ্যংছড়ি প্রেস ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা,কচ্ছপিয়া কে.জি স্কুল এবং কচ্ছপিয়া আদর্শ হেফজখানার প্রতিষ্টাতা সাংবাদিক মাঈনুদ্দিন খালেদ,কচ্ছপিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবছার উদ্দিন সহ শিক্ষক,রাজনৈতিক ও সামাজিক নের্তৃবৃন্দ, মরহুম শিক্ষকের শোকাহত শতশত ছাত্র-ছাত্রি,অভিভাবক ও শূভানূধ্যায়ী এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এ সময় সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তারা মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শোকাহত  পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তারা।

এদিকে মরহুমের তৃতীয় নামাজে জানাজা বুধবার অনুষ্টিত হবে চকরিয়ার হারবাং বড়ইতলী গ্রামে।

জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে। অপর দিকে সৎ ও আদর্শবান এ শিক্ষকের মৃত্যুতে রামু,নাইক্ষ্যংছড়ি ও চকরিয়ার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক,রাজনৈতিক নেতা ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা

মরহহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন, ককসবাজার-রামু আসনের এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল, সাবেক এমপি লুৎফর রহমান কাজল ও রামু উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজুল আলম প্রমূখ।

উল্লেখ্য যে তিনি দীর্ঘদিন ধরে প্রেসার ও ডায়বেটিস রোগে আক্রান্ত ছিলেন। গতকাল শনিবার রাত ২ টায় হঠাৎ আক্রান্ত হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল।

SHARE