Home কক্সবাজার টেকনাফে বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের যুবতী অপহরণ

টেকনাফে বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের যুবতী অপহরণ

91
SHARE

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(১৫ মে) :: উখিয়া উপজেলার বালুখালী শরণার্থী ক্যাম্পে বিয়ে পাকাপোক্ত হওয়া এক যুবতীকে নাইয়ুর নিয়ে অপহরণ করা হয়েছে। ভূক্তভোগী পরিবার প্রতিকার চেয়ে ক্যাম্প কর্তৃপক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়েরের পরও মেয়েকে ফিরে না পেয়ে চরম উদ্বেগের মধ্যে রয়েছে।

জানা যায়, বালুখালী শরণার্থী ক্যাম্প-১ এর এ-ব্লকের ৪৬নং রোমের বাসিন্দা ছিদ্দিক আহমদের মেয়ে উম্মে হাইরের সাথে হ্নীলা নয়াপাড়াস্থ শালবাগানে অবস্থানকারী আব্দুল হামিদের পুত্র মোঃ শাকেরের সাথে ইসলামী শরীয়াহ মতে ৫ ভরী স্বর্ণালংকার দেন-মোহর ধার্য্য করে পারিবারিকভাবে বিয়ের কথা পাকাপোক্ত হয়।

৪/৫ দিনের মধ্যে উম্মে হাইরকে শাকেরের বাড়িতে বউ করে আনার সিদ্বান্ত গৃহীত হয়। এই খবর প্রকাশ হওয়ার পর টেকনাফের দমদমিয়ায় নেচার পার্কে অবস্থানকারী মরহুম মোহাম্মদ আমিনের স্ত্রী জামালিদা ও মালয়েশিয়া প্রবাসী মোহাম্মদ জোহারের স্ত্রী রাশেদা বেগম দূর সম্পর্কের আতœীয় পরিচয়ে বেড়াতে (নাইয়ুর) আনে।

বেড়াতে আসা মেয়ের স্বর্ণালংকার ও সুশ্রী দেখে জামালিদার লোভ পড়ে। তাই তার বেকার ছেলেকে ফুঁসলিয়ে গত ১২ মে নাইয়ুর আসা উম্মে হাইরকে স্বর্ণালংকারসহ অপহরণ করে নিয়ে যায়। এই ঘটনা জানাজানির পর উম্মের হাইরের পরিবার বিভিন্ন স্থানে সন্ধান করে না পেয়ে অপহৃত মেয়েকে উদ্ধারের জন্য মেয়ের বড় ভাই মোঃ সোহেল বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১ কর্তৃপক্ষ বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন।

এদিকে বিয়ের পাকাপোক্ত আয়োজন সম্পন্ন হওয়ার পর নাইয়ুর এনে সম্ভাব্য নববধু অপহরণের ঘটনা রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয় জনসাধারণের মনে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। অপহৃতের শিকার উম্মে হাইরকে উদ্ধারে পিতা ছিদ্দিক আহমদ ক্যাম্পে নিয়োজিত আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

SHARE