Home কক্সবাজার টেকনাফের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে স্বশস্ত্র হামলায় রক্তাক্ত স্থানীয় দুই যুবক

টেকনাফের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে স্বশস্ত্র হামলায় রক্তাক্ত স্থানীয় দুই যুবক

143
SHARE

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(২১ মে) :: টেকনাফের হ্নীলা রোহিঙ্গা যুবকের চুরি করা মোবাইল উদ্ধার করতে গিয়েই নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে স্বশস্ত্র ডাকাত দলের হামলায় স্থানীয় দুই যুবক গুরুতর আহত ও রক্তাক্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

জানা যায়,টেকনাফের হ্নীলা পুরান বাজারস্থ সুলিশ পাড়ায় অবস্থানকারী বার্মাইয়া হাশেমের পুত্র শাকের হ্নীলা বাসষ্টেশনের দোকানদার রাসেলের দোকানসহ ৩টি দোকান হতে মূল্যবান ৩টি মোবাইল চুরি করে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের সমন্ধি ডাকাত সাদেকের নিকট জমা দেয়।

২১মে বিকালে মোবাইল মালিকেরা মোবাইল চোর শাকেরকে পাওয়া মাত্র আটকে রাখলে মোবাইল চুরির কথা স্বীকার করে।

চুরি করা মোবাইল নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে জমা রয়েছে এবং সেখান হতে ফিরিয়ে দেওয়ার কথা বললে ইফতারের পর স্থানীয় হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ার মাহমুদুর রহমানের পুত্র মোহাম্মদ নুর বাপ্পী, আবুল মঞ্জুরের পুত্র ছৈয়দ আহমদ, মৃত মুফিজুর রহমান মংকুর পুত্র নুর হাশেম, মৃত অছিউর রহমান মিস্ত্রীর পুত্র পুতিক্কাসহ ৫/৬জন মিলে একটি সিএনজিযোগে হারানো মোবাইল উদ্ধারে যায়। দক্ষিণ শিয়াইল্যাঘোনায় গিয়ে চোরাই মোবাইল দাবী করলে চোর শাকের তর্কে জড়িয়ে পড়ে।

এই খবর পেয়ে চিহ্নিত স্বশস্ত্র ডাকাত সাদেকের নেতৃত্বে একদল রোহিঙ্গা এসে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মোবাইল উদ্ধার করতে যাওয়া স্থানীয় লোকজনের উপর হামলা চালালে হ্নীলা পশ্চিম সিকদার পাড়ার মাহমুদুর রহমানের পুত্র মোহাম্মদ নুর বাপ্পী, আবুল মঞ্জুরের পুত্র ছৈয়দ আহমদ তাদের হামলায় গুরুতর আহত ও রক্তাক্ত হয়।

খবর পেয়ে আতœীয়-স্বজন রাত ৮টারদিকে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হ্নীলা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে।

SHARE