Home কক্সবাজার রামুতে ৮ মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা

রামুতে ৮ মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা

171
SHARE

সোয়েব সাঈদ,রামু(৪ জুন) :: কক্সবাজারের রামুতে ৮ মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রামু উপজেলার জোয়ারিয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের রাবার বাগান নুরপাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহত রোজিনা আকতার (২৪) ওই এলাকার জাহাঙ্গীর আলম মিটুর স্ত্রী। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক রয়েছে। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত রোজিনার বড় ভাই মো. শাহজাহান জানিয়েছেন, আগেরদিন (রবিবার) অসুস্থ বাবাকে হাসপাতালে দেখতে যান রোজিনা আকতার।

এনিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে সোমবার (৪ জুন) সকাল ১১ টার দিকে স্বামী জাহাঙ্গীর আলম মিটুসহ পরিবারের সদস্যরা তার বোনকে ব্যাপক মারধর করে।

এসময় রোজিনা আকতার নিজেই ফোন করে তাকে বিষয়টি জানায়। কিন্তু অসুস্থ বাবার চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় তাৎক্ষণিক তিনি রোজিনার শ্বাশুড় বাড়িতে যেতে পারেননি। বিকাল তিনটার দিকে স্থানীয় এক মহিলা শ্বাশুড় বাড়ির পাশে পাহাড়ি ঢালুতে রোজিনা আকতারের মৃতদেহ দেখতে পান। এসময় তিনি সহ পরিবারের সদস্যরা সেখানে গেলে দেখতে বাড়ি ছেড়ে রোজিনার স্বামীসহ পরিবারের সবাই পালিয়ে গেছে।

পরে খবর সন্ধ্যা ৬টায় রামু থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ছানা উল্লাহ ঘটনাস্থলে গিয়ে রোজিনা আকতারের মৃতদেহ উদ্ধার করেন।

রোজিনার ভাই মো. শাহজাহান আরো জানান, মৃত্যুর সময় রোজিনা আকতার ৮ মাসের বেশী অন্তঃস্বত্ত্বা ছিলেন। এক বছর পূর্বে একই এলাকার মৃত ওয়াহিদুর রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম মিটুর সাথে রোজিনা বিয়ে হয়।

বিয়ের পর থেকে মেয়েকে নানাভাবে নির্যাতন করতো স্বামী জাহাঙ্গীর। জাহাঙ্গীর আলম মিটু ইয়াবা-মদ ব্যবসায় জড়িত। সে নিয়মিত ইয়াবা সেবনও করতো। তার বিরুদ্ধে মাদকসহ একাধিক মামলাও রয়েছে।

রামু থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ছানা উল্লাহ জানিয়েছেন, মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

SHARE