কক্সবাজার সদর পোকখালী মুসলিম বাজারে বর্ষার আগেই ভোগান্তির সংকেত

e9.jpg

মোঃ রেজাউল করিম,ঈদগাঁও(৯ জুলাই) :: কক্সবাজার সদর উপজেলার জালালবাদ, পোকখালী ইউনিয়নের বৃহত্তম বাণিজ্যিক উপশহরখ্যাত পোকখালী মুসলিম বাজারের প্রধান সড়কসহ আভ্যন্তরিন সড়ক -গুলি কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি হলে জলকাদায় একাকার হয়ে জনদূর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। ভারি বৃষ্টিতে বাজারের প্রতিটি সড়ক যেন কাদাজলের ভাগাড়।

ফড়াজি পাড়ায় ও পোকখালীর জনগুরুত্বপূর্ণ বাজার হিসেবে পরিচিতি পাওয়া সত্ত্বেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুনজর, কার্যকর ও টেকসই সড়ক সংস্কারে পরিকল্পিত পদক্ষেপ না থাকার কারনে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ পোকখালী মুসলিম বাজার বাসীর। জৈষ্টের শেষদিকে কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে বর্ষার আগেই পোকখালী মুসলিম বাজারে চরম ভোগান্তির সংকেত বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

সরেজমিনে বাজারের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, কোথাও পানি নিষ্কাশনের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা নেই, এলজিডি সড়কটি সংস্কারে দীর্ঘ সুত্রিতা, বৃষ্টি নিষ্কাশনের জন্য কোনো ড্রেন না থাকায় সেগুলিও বর্জ্য- আবর্জনায় ভরে গিয়ে পানি নিষ্কাশনের অযোগ্য হয়ে পড়েছে বাজারটি । খুবিই কষ্ট হচ্ছে বলে জানান পথ চলতে বিপাকে পথচারীরা।

ফলে বৃষ্টি হলেই দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে স্থানীয় বাসিন্দা, শিক্ষার্থী, সাধারণ ব্যবসায়ী, পথচারী, ভোক্তাসাধারণ থেকে শুরু করে বাজার সংশ্লিষ্ট সব শ্রেণীপেশার মানুষ। দেখা গেছে, বাজারের এলডিজিরোড়, মাছ, তরকারী বাজার,জামাল সদর দোকানের সহ কাপড় ও ব্রিজের নিচের সড়ক সহ পোকখালী মাদ্রাসার সামনে রোড়,ইউনিয়ন পরিষদ সড়ক, সহ প্রতিটি জনগুরুত্বপুর্ণ এলাকার অলিগলিও চলাচলের পথ কাদাজলে টইটুম্বুর ।

পোকখালী বাজারের কাপড়ের গলি,হাজ্বী ইলিয়াছ র্মাকেট থেকে বাজারের দক্ষিণ পার্শ্বে মুক্তার মৌলয়র ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার বেহাল অবস্থা। এসব রাস্তায় জলকাদার ভেতর দিয়ে পা ফেলে ফেলে ব্যবসায়ী, পথচারী, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসাগামী ছাত্র-ছাত্রী, সাধারণ মানুেষর কি নিদারুণ কষ্টের যাতায়াত। বিশেষ করে মাছ বাজার সামনে থেকে হাজ্বী ইলিয়াছে মার্কেটের সমনে হয়তে মাদ্রাসার দক্ষিণ পাশ্ব পর্যন্ত, সড়কের অবস্থা সবচেয়ে নাজুক।

মাষ্টার বদি আলম, মষ্টার আবছার , পোকখালী বিএনপির সভাপতি আক্তার উদ্দিন বাবুল ও সাধারন সম্পাদক এছ এম সেলিম,স্কুল-কলেজ পড়–য়া হাসান, জয়নাল, র্মোশেদ, অনন্যা, ব্যবসায়ী রালেল,মিজান, নাছির উদ্দিনসহ কয়েক চাকুরিজীবি বাজারের সড়কগুলোর দুর্দশা সম্পর্কে বলেন, বাজারের এলজিডি সড়কটি সংস্কারে দীর্ঘসুত্রিতায় চলাচলে বিগত কয়েক বছর যাবৎ অচলাবস্থায় পড়ে আছে। অনেকেই বাজারের অভ্যন্তরীণ সড়কের অবস্থা মগের মুল্লূকের চেয়েও ভয়ানক বলে মন্তব্য করেন।

অন্যদিকে আবুলফজল পাড়ায় বেলালের দোকান থেকে মসজিদের পাশ্বের সড়কটিও দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় অল্প বৃষ্টিতে খানা-খন্দেভরপুর সড়কটি কাদাজলে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। বাজারের প্রতিটি অলিগলির সড়কের উভয় পাশে বেইজ লেভেল না থাকায় মুলসড়কটি সামান্য বৃষ্টি হলেই নালায় পরিণত হচ্ছে।

আর টেকসই ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় বর্ষা মওসুমে অল্প বৃষ্টিতে জলকাদা, জলাবদ্ধতা, নালা-নর্দমার দুর্গন্ধ বাজারবাসীর’র যেন নিত্যসঙ্গী। তাই বাজার অভন্ত্যরীণ ড্রেনেজ ব্যবস্থা সংস্কারে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন পোকখালীবাসী এই বিষয়ে বাজার পরিচালনাধীন কমিটির সভাপতি সাথে যোগাযোক করলে জানয় আমরা সংস্কারের জন্য ব্যবস্থা নিচ্ছি ।

Share this post

PinIt
scroll to top