Home খেলা রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালির ক্লাব জুভেন্তাস খুঁজে নিলেন রোনাল্ডো

রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালির ক্লাব জুভেন্তাস খুঁজে নিলেন রোনাল্ডো

169
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(১০ জুলাই) :: জল্পনার অবসান৷ রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়লেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো৷ মঙ্গলবার স্প্যানিশ ক্লাবের পক্ষ থেকে এমনটাই জানানো হয়েছে৷ ন’বছরের সম্পর্ক ছেদ করে এবার ইতালির ক্লাব জুভেন্তাসে যাচ্ছেন সিআর সেভেন৷ স্পেন ছেড়ে ইতালিই এখন  পর্তুগিজ ফুটবলের পোস্টার বয়ের নতুন ঠিকানা৷ শেষবার রিয়ালের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছেন রোনাল্ডো৷ শুধু তাই নয়, টানা স্প্যানিশ ক্লাবের হয়ে টানা তিন বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের নজির রয়েছে রনের৷ নতুন ক্লাব জুভেন্তাসে সপ্তাহে সারে চার কোটি টাকা পেতে চলেছেন সিআরসেভেন৷

গুঞ্জনটাই সত্যি হলো, শেষ পর্যন্ত ইতালিয়ান ক্লাবেই যোগ দিলেন পর্তুগিজ অধিনায়ক। মঙ্গলবার রাতে তার জুভেন্টাসে যাওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। নিজেদের ওয়েবসাইটে মাদ্রিদের ক্লাবটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো জুভেন্টাসের সঙ্গে চুক্তি করতে রাজি হয়েছে।

একই সঙ্গে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে অভিনন্দন জানিয়েছে বর্তমান ইউরোপ চ্যাম্পিয়নরা, ‘সামনের প্রজন্মের জন্য ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো রিয়ালের প্রতীক ও বড় উদাহরণ হয়ে থাকবেন। রিয়াল মাদ্রিদ সবসময় তার ঘর হিসেবেই থাকবে।’

জুভেন্টাসের সঙ্গে ঠিক কত বছরের ‍চুক্তি হয়েছে, সেটা নিশ্চিত করেনি রিয়াল। তবে ইউরোপিয়ান মিডিয়ার খবর, ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে চার বছরের জন্য চুক্তি করেছেন তিনি সিরি ‘এ’ চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে। ২০০৯ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে রেকর্ড ৯৪ মিলিয়ন ইউরোতে রোনালদো যোগ দিয়েছিলেন সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে।

এর আগে ইউরোপিয়ান সংবাদমাধ্যমের খবর ছিল, ইতালিয়ান ক্লাবের সঙ্গে (মঙ্গলবার) রাতেই চুক্তির আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করতে যাচ্ছেন রোনালদো। রাতেই চূড়ান্ত ঘোষণা আসার সম্ভাবনার কথাও ছেপেছিল তারা। রিয়াল মাদ্রিদের খবরের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’র দাবি ছিল, জুভেন্টাসের সঙ্গে ইতিমধ্যে চুক্তির বিষয়ে সমঝোতায় পৌঁছেছে রিয়াল মাদ্রিদ। তাদের ‘সবুজ সংকেত’ পেয়েই জুভেন্টাস সভাপতি আন্দ্রেয়া আগনেলি উড়াল দিয়েছেন গ্রিসের উদ্দেশে, যেখানে বিশ্বকাপের পর এখন অবকাশ যাপনে আছেন রোনালদো।

মাদ্রিদভিত্তিক ক্রীড়া দৈনিকটি আরও ছেপেছিল, রোনালদোর সান্তিয়াগো বার্নাব্যু ছাড়াটা একরকম নিশ্চিতই হয়ে গেছে, এখন শুধু আনুষ্ঠানিক ঘোষণার অপেক্ষা। আর এই ঘোষণা সামনের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আসবে বলে ছিল তাদের দাবি। তারা এটাও জানিয়েছিল, রিয়াল সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ নাকি রোনালদোর চলে যাওয়ার ইচ্ছাকে সম্মান জানিয়েছেন এবং অনুমতি দিয়েছেন জুভেন্টাসের সঙ্গে আলোচনা করার।

আরেক স্প্যানিশ টিভি চ্যানেল ‘লা সেক্সাতা’-এর খবর ছিল, দলবদলের ব্যাপারে রিয়াল মাদ্রিদের পরিচালকরা জুভেন্টাসের প্রস্তাবের সঙ্গে সমঝোতায় পৌঁছেছেন মঙ্গলবার। তারা ১০৫ মিলিয়ন ইউরোতে রাজি হয়েছেন রোনালদোকে ছাড়তে। সমঝোতায় পৌঁছানোর পর জুভেন্টাস সভাপতি আগনেলি ‘লস ব্লাঙ্কোদের’ কাছে অনুমতি চান পর্তুগিজ উইঙ্গারের সঙ্গে দেখার করার। মাদ্রিদের ক্লাবের অনুমতি পাওয়ার পর তার গ্রিসে অবস্থানের ছবিও প্রকাশ করেছিল ইউরোপের বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম।

ফুটবল বিষয়ক ওয়েসবাইট ‘গোল ডটকম’-এর খবর ছিল, জুভেন্টাসের সঙ্গে রোনালদোর চুক্তিটা হচ্ছে চার বছরের। এই সময়ে প্রতি মৌসুমে পর্তুগিজ তারকার নেট বেতন হবে ৩০ মিলিয়ন ইউরো। শেষ পর্যন্ত তাদের ছাপানো খবরই সত্য হলো। রিয়ালের সঙ্গে ৯ বছরের সম্পর্কের ইতি টেনে দিলেন রোনালদো।

আবেগঘন বার্তায় সিআর সেভেনকে বিদায় জানাল রিয়াল মাদ্রিদ
আবেগঘন বার্তায় সিআর সেভেনকে বিদায় জানাল রিয়াল মাদ্রিদ

দীর্গ ৯ বছরের বন্ধন অবশেষে ছিন্ন হলো। শেষ হয়ে গেল স্প্যানিশ লা লিগায় মেসি-রোনালদো দ্বৈরথ। স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালির ক্লাব জুভেন্তাসে যাত্রা করলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আজ মঙ্গলবার এক ঘণ্টা আগে রিয়াল মাদ্রিদের জার্সি ইতিহাস হয়ে গেল সিআরসেভেনের কাছে। আবেগঘন এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ক্লাবটি।

বার্তায় রিয়ালের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে,  ‘রিয়াল মাদ্রিদ সবাইকে জানাচ্ছে যে, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর অনুরোধে জুভেন্টাসের সঙ্গে দলবদলের সিদ্ধান্তে সম্মত হয়েছি। আজ রিয়াল মাদ্রিদ এমন খেলোয়াড়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে চায় যে নিজেকে বিশ্বের সেরা বলে প্রমাণ করেছে। সে আমাদের ক্লাব এবং বিশ্ব ফুটবল ইতিহাসে অন্যতম উজ্জ্বল এক যুগের জন্ম দিয়েছে।’

‘৪৩৮ ম্যাচে ৪৫১ গোল করে রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা সে। এ সময়ে মোট ১৬টি শিরোপা জিতেছেন, যার মধ্যে গত  ৫ বছরে ৪টি চ্যাম্পিয়নস লিগ, যার মধ্যে আবার তিনটি পরপর। ব্যক্তিগতভাবে, রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে চারটি ব্যালন ডি’অর, দুটি ফিফা দ্য বেস্ট, এবং তিনটি গোল্ডেন বুট জিতেছেন।’

‘গত ৯ বছরে অসংখ্য শিরোপা, ট্রফি এবং ম্যাচ জয়ের অর্জনেই সব শেষ নয়; ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর আত্মনিবেদন, পরিশ্রম, দায়িত্বশীলতা, প্রতিভা এবং ধারাবাহিক উন্নতি ক্লাবের জন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছে। রিয়াল মাদ্রিদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো সব সময় মহান এক আদর্শ ও অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন। রিয়াল মাদ্রিদ সব সময় আপনার ঘর হয়েই থাকবে।’

বিদায় বন্ধু ; রিয়ালে তুমি ইতিহাস গড়েছ : রামোসবিদায় বন্ধু; রিয়ালে তুমি ইতিহাস গড়েছ : রামোস

কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে উচ্ছাসের এই দৃশ্য এখন স্মৃতি হয়ে থাকবে। 

ক্লাব বদল হয়ে গেল, তাতে কি আর বন্ধুত্ব ভাঙে। তবে ভেঙে গেল দীর্ঘদিনের ক্লাব বন্ধন। একই জার্সিতে একই দলের হয়ে খেলার সেইসব দিন এখন স্মৃতি। স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে প্রায় ৯ বছরের বন্ধন ছিন্ন করে ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্তাসে পাড়ি জমালেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। বন্ধুর এই বিদায় বেলা তাকে শুভকামনা জানালেন স্প্যানিশ তারকা সার্জিও রামোস।

রোনালদোর বিদায় নিশ্চত হওয়ার পর টুইট বার্তায় রামোস লিখেছেন, ‘ক্রিস্টিয়ানো তোমার গোল, তোমার পরিসংখ্যান এবং তোমার সব অর্জন কাউকে বলে বোঝানোর দরকার নেই। রিয়াল মাদ্রিদের একটি নতুন ইতিহাস লেখা হয়েছে তোমার হাত দিয়ে। মাদ্রিদের একজন হিসেবে তোমাকে সব সময় মনে রাখব। তোমার সঙ্গে খেলতে পেরে আমি গর্বিত। বিদায় বন্ধু! তোমার জন্য শুভকামনা।’

উল্লেখ্য, ২০০৯-১০ মৌসুমে রেকর্ড ৯৪ মিলিয়ন ইউরোতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে রিয়াল মাদ্রিদে আসেন রোনালদো। শুরু হয় তার অবিশ্বাস্য ফুটবল ক্যারিয়ার। ৪৩৮ ম্যাচে ৪৫০ গোল করে রিয়ালের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। পরপর তিনটিসহ জিতেছেন ৪টি চ্যাম্পিয়নস লিগ। দুটি লা লিগা, দুটি কোপা দেল রে, দুটি স্প্যানিশ সুপার কাপ, তিনটি ইউরোপিয়ান সুপার কাপ, তিনটি ক্লাব বিশ্বকাপ শিরোপা তাকে কিংবদন্তির আসনে বসিয়েছে।

 

SHARE