Home কক্সবাজার চকরিয়ার প্রতিটি স্কুলে ছাত্রদের সাঁতার শিখানোর ব্যবস্থা করা হবে : ডিসি-কামাল হোসেন

চকরিয়ার প্রতিটি স্কুলে ছাত্রদের সাঁতার শিখানোর ব্যবস্থা করা হবে : ডিসি-কামাল হোসেন

208
SHARE

মুকুল কান্তি দাশ,চকরিয়া(১৬ জুলাই) :: চকরিয়া মাতামুহুরী নদীর চোরাবালিতে আটকে মারা যাওয়া পাঁচ মেধাবী ছাত্রদের শোকার্ত পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানাতে চকরিয়ায় এসেছেন জেলা প্রশাসক মো.কামালা হোসেন।

প্রথমে তিনি চকরিয়া পৌরশহরের স্টেশন পাড়াস্থ নিহত এমশাদ ও মেহেরাবের বাড়িতে যান।

এসময় তিনি তাদের বাবা আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন ও তার স্ত্রী ও স্বজনদের সান্তনা দেন এবং মারা যাওয়া অন্য ছাত্রের পরিবারের সদস্যদের খোঁজ খবর নেন।

এসময় তিনি বলেন, উপজেলার প্রতিটি স্কুলে ছাত্রদের সাঁতার শিখানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান। পাশাপাশি চকরিয়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠটি সংস্কার করার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। নিহত ছাত্রদের জন্য কোন স্মৃতিস্তম্ভ করা হবে কিনা জানতে চাওয়ার জবাবে বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে তিনি জানান।

সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তিনি চকরিয়ায় আসলে এসময় তার সাথে ছিলেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) খোন্দকার ইখতিয়ার উদ্দিন মো.আরাফাত, চকরিয়া পৌরসভার কাউন্সিলর মো.রেজাউল করিম, মো.মুজিবুল হকসহ প্রমুখ।

এদিকে, মাতামুহুরী নদীর চোরাবালিতে আটকে পাঁচ মেধাবী ছাত্রের মৃত্যুতে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে খতমে কোরআন, দোয়া মাহফিল, মোনাজাত ও তবরুক বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার বিকালে চকরিয়া উপজেলা পরিষদ মসজিদে এসব কর্মসূচী পালিত হয়।

এতে উপজেলা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা কফিল উদ্দিন ফারুকী ও উপজেলার ইসলামিক ফাউন্ডেশন পরিচালিত মসজিদের ঈমামগণ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে চকরিয়া গ্রামার স্কুল শোক পালনে চারদিনের কর্মসূচী ঘোষন করেছেন।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, মাতামুহুরী নদীর পানিতে ডুবে নিহত পাঁচ স্কুল ছাত্রের আত্মার মাগফেরাত কামনায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে খতমে কোরআন, দোয়া মাহফিল ও তবরুক বিতরণ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, একসাথে পাঁচ ছাত্রের মৃত্যু কোনভাবেই মেনে নেয়ার নয়। পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি আমরা উপজেলা প্রশাসনও শোকাহত। উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পরিত্যক্ত খেলার মাঠগুলো সংস্কারের পাশাপাশি সাাঁতার শেখানোর ব্যাপারে জনমত গড়ে তুলতে উপজেলা প্রশাসন উদ্যোগ নেয়া হবে।

অপরদিকে, চকরিয়া গ্রামার স্কুলের ৫ জন মেধাবী ছাত্রের অকাল মৃত্যুতে গ্রামার স্কুলের পক্ষ থেকে ৪ দিনের কর্মসূচী ঘোষণা করা করেছে। চকরিয়া গ্রামার স্কুল পরিচালনা কমিটি (এডুকেয়ার ফাউন্ডেশন) ও শিক্ষকদের সমন্বয়ে কমিটির সভাপতি অধ্যাপক রুহুল আমিন ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক হারুনুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে,১৬ জুলাই বিদ্যালয় বন্ধ রাখা হয়। ১৭, ১৮ ও ১৯ জুলাই পবিত্র কোরআনহানী, কালো পতাকা উত্তোলন, বিদ্যালয়ে অর্ধনমিত পতাকা উত্তোলন, কালোব্যাজ ধারণ, ১ম ক্লাসের পর দ্বিতীয় ও তৃতীয় ক্লাসে ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে পৃথকভাবে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

SHARE