Home অর্থনীতি যুক্তরাষ্ট্র ও চীন বাণিজ্য বিরোধে লাভবান সৌদি জ্বালানি প্রতিষ্ঠান আরামকো

যুক্তরাষ্ট্র ও চীন বাণিজ্য বিরোধে লাভবান সৌদি জ্বালানি প্রতিষ্ঠান আরামকো

158
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(২২ জুলাই) :: যুক্তরাষ্ট্র ও চীন বিশ্বের সবচেয়ে বড় অর্থনীতির দুটি দেশ। সম্প্রতি ইতিহাসের সবচেয়ে জটিল বাণিজ্য বিরোধে জড়িয়েছে দেশ দুটি। এর জেরে চীন-যুক্তরাষ্ট্র দুই পক্ষই অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা। তবে এ বিরোধের পরিপ্রেক্ষিতে ফুলেফেঁপে উঠতে যাচ্ছে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় জ্বালানি প্রতিষ্ঠান সৌদি আরামকোর লাভের খাতা।

মূলত পাল্টাপাল্টি আমদানি শুল্কের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের বাজার থেকে জ্বালানি পণ্য আমদানিতে উত্সাহ হারাবেন চীনা আমদানিকারকরা। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে আগামী দিনগুলোয় সৌদি আরামকো চীনের বাজারে নিজেদের অবস্থান আরো পোক্ত করবে বলে মনে করা হচ্ছে। খবর অ্যারাবিয়ান বিজনেস।

বৈশ্বিক জ্বালানি খাতে চীন শীর্ষ ভোক্তা দেশ। ক্রমবর্ধমান অভ্যন্তরীণ জ্বালানি চাহিদার সিংহভাগ আমদানির মাধ্যমে পূরণ করে দেশটি। বিশেষত অপরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানিতে দেশটি যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর ওপর অনেকাংশে নির্ভরশীল। তবে বাণিজ্য বিরোধ শুরুর পর অপরিশোধিত জ্বালানি তেলসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্যের ওপর পাল্টাপাল্টি আমদানি শুল্ক আরোপ করেছে বেইজিং ও ওয়াশিংটন। এ কারণে যুক্তরাষ্ট্র থেকে জ্বালানি পণ্য আমদানি করাটা চীনের জন্য লাভজনক বিবেচিত হবে না।

এ পরিস্থিতি কাজে লাগানোর সুযোগ রয়েছে সৌদি আরামকোর সামনে। ট্যাংকার-ট্র্যাকিং অ্যান্ড ইন্টেলিজেন্স প্রতিষ্ঠান কেপলারের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৭ সালে সৌদি আরামকোর মাধ্যমে চীনের বাজারে মোট ১০ লাখ ৮০ হাজার টন জ্বালানি পণ্য রফতানি করেছে রিয়াদ। চলমান বাণিজ্য বিরোধের কারণে চীনা রফতানিকারকরা যুক্তরাষ্ট্রের ওপর থেকে মুখ ফিরিয়ে সৌদি আরবের প্রতি ঝুঁকলে, দেশটি থেকে চীনে জ্বালানি পণ্যের সম্মিলিত রফতানি আরো ৯ লাখ ৭০ হাজার টন পর্যন্ত বাড়তে পারে। অর্থাৎ বাণিজ্য বিরোধের কারণে সৌদি আরব থেকে চীনে জ্বালানি পণ্যের রফতানি বর্তমানের তুলনায় বেড়ে প্রায় দ্বিগুণ হচ্ছে।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক কনসালট্যান্সি প্রতিষ্ঠান এফজিইর পণ্যবাজার-বিষয়ক পরামর্শক অং হান উয়ি বলেন, বাণিজ্যযুদ্ধের জেরে সম্ভাব্য লোকসান এড়াতে চীনা আমদানিকারকরা অপরিশোধিত জ্বালানি তেল, তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাসসহ (এলপিজি) বিভিন্ন ধরনের জ্বালানি পণ্য আমদানিতে যুক্তরাষ্ট্রের বদলে সৌদি আরবের দিকে ঝুঁকবেন। আর এ প্রবণতা চীনের বাজারে সৌদি আরামকোর অবস্থান আরো পোক্ত করবে। ফলে বিশ্বের সবচেয়ে লাভজনক জ্বালানি প্রতিষ্ঠান সৌদি আরামকোর লাভের খাতা বর্তমানের তুলনায় আরো বেশি ভারী হবে।

SHARE