Home কক্সবাজার কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে কোন অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থ্যা : কমিশনার মাহবুব তালুকদার

কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে কোন অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থ্যা : কমিশনার মাহবুব তালুকদার

147
SHARE

কক্সবাংলা রিপোর্ট(২৩ জুলাই) :: কক্সবাজার নানা কারণে দেশে বিদেশে এখন অত্যন্ত পরিচিত পর্যটন শহর। সুতরাং এই শহরে একটি সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানে সবাইকেই আন্তরিক হতে হবে।’এ কারনে কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচন যাতে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ এবং সর্বজন গ্রহণযোগ্য হয় এর জন্য প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।’

সোমবার কক্সবাজার হিল ডাউন সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, নির্বাচনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটাররা ভোট দিতে যেতে পারবেন। নির্বাচনে কোনো পক্ষপাতিত্ব বরদাশত করবে না কমিশন। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সংশ্লিষ্টদের নিজ নিজ দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কোনো অনিয়মের চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন যেকোনো অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেলে সঙ্গে সঙ্গে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নির্বাচন কমিশনার  বলেন, ‘টাকা ও পেশিশক্তি কঠোরভাবে দমন করা হবে। ভোট পবিত্র আমানত। ওই দুটি অপরাধের কাছে পবিত্র ভোট নষ্ট হতে দেব না। যারা এই ধরনের নগ্ন অপরাধ করার চেষ্টা করবে, তাদের কোনো অবস্থাতেই ছাড় দেওয়া হবে না।’

ইভিএম ব্যবহারের ব্যাপারে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, বিশ্বে বিভিন্ন দেশে ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট নেয়া হচ্ছে। বাংলাদেশের ভোটব্যবস্থা ডিজিটালাইজ করতে ইভিএম সংযোজন করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজারেও একটি কেন্দ্রে পরীক্ষামূলকভাবে ব্যহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন । মূলত আগামী জাতীয় নির্বাচনে এটি ব্যবহার করা যায় কিনা এবং মানুষকে অধুনিক প্রযুক্তিতে সচেতনতা বাড়াতেই ইভিএম এর মাধ্যমে ভোট নেয়া হবে।

এর আগে নির্বাচন কমিশনার আরেক সভায় নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানের জন্য প্রার্থীদের সহযোগিতা কামনা করেছেন। তিনি বলেন, ‘কক্সবাজার নানা কারণে দেশে বিদেশে এখন অত্যন্ত পরিচিত পর্যটন শহর। সুতরাং এই শহরে একটি সুন্দর নির্বাচন অনুষ্ঠানে সবাইকেই আন্তরিক হতে হবে।’

সোমবার কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনের মেয়র ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের সঙ্গে ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুল আফসার। সভায় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক এবং কয়েকজন মেয়র ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থী বক্তব্য দেন।

নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন বলেন, ‘ভোটাদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে পৌর নির্বাচনে পর্যাপ্ত সংখ্যক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হবে। ইতমধ্যেই র্যাব ও বিজিবি নামানো হয়েছে। তাই ভোটাররা নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে গিয়ে তার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন।

পৌরসভা নির্বাচনে ১২ ওয়ার্ডে ৩৯ কেন্দ্রের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য ১ হাজার পুলিশ সদস্য, ২ প্লাটুন বিজিবি, ৬টি দলে ৯০ জন র‌্যাব সদস্য এবং প্রতিটি কেন্দ্রে ১৪ জন করে আনসার সদস্য এবং ১৪ জন পুলিশ মোতায়েন থাকবে। এছাড়া বিচারিক দায়িত্বপালনের জন্য ১২টি ওয়ার্ডে ১২ জন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবেন।’তিনি জানান,সোমবার থেকে পরীক্ষামূলকভাবে বিজিবি ও র‌্যাব মহড়া দেওয়া শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত, কক্সবাজার পৌরসভার ১২ ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ৮৩ হাজার ৭২৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪৪ হাজার ৩৭৩ জন ও নারী ভোটার ৩৯ হাজার ৩৫৫ জন। ভোটকেন্দ্র ৩৯টি। ৩টি কেন্দ্রের মোট ১৫টি বুথে ইভিএম পদ্ধতিতে পরীক্ষামূলকভাবে ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

SHARE