Home খেলা ইউরোপিয়ান ক্লাব দলবদলে ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের রাজত্ব

ইউরোপিয়ান ক্লাব দলবদলে ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের রাজত্ব

135
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(৪ আগস্ট) :: এবারের ইউরোপিয়ান দলবদল কেমন যেন পানসে, ম্যাড়মেড়ে। নব্য টাকাওয়ালা দুই পার্টি পিএসজি ও ম্যানচেস্টার সিটি এখনো পর্যন্ত চুপ। রিয়াল মাদ্রিদ, বায়ার্ন মিউনিখের মতো জায়ান্টরাও নতুন কোনো খেলোয়াড় এখনো কিনেনি।

বার্সেলোনা ৪ জনকে কিনেছে বটে; তবে সবগুলোই ছোট চুক্তি। বড় দলগুলো এমন নিরব থাকলে দলবদলের বাজার গরম হবে কি করে! তবে একেবারেই যে নিরুত্তাপ তা নয়। উত্তাপ কিছুটা ছড়াচ্ছে। আর সেই উত্তাপ-আকর্ষণের পুরোটাই ব্রাজিলিয়ানদের ঘিরে। এবারের ইউরোপিয়ান দলবদলে ব্রাজিলিয়ানদেরই একচ্ছত্র রাজত্ব!

দলবদলকারীদের তালিকাটা বলে দিচ্ছে এবারের দলবদল যেন ব্রাজিলিয়ানদের জন্যই! অন্যরা স্রেফ দর্শক! টাকার অঙ্কের হিসেবে এ পর্যন্ত সবচেয়ে দামী যে ১৮টি চুক্তি হয়েছে, তার ৯টিই ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়দের। বাকি ৯টি বিশ্বের বাকি দেশগুলোর। ভাবা যায়!

এ পর্যন্ত হয়ে যাওয়া চুক্তিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে দামী চুক্তিটার মালিক ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। রিয়াল মাদ্রিদ থেকে পর্তুগিজ সুপারস্টারকে ১১২ মিলিয়ন ইউরোয় কিনে নিয়েছে জুভেন্টাস। টাকার অঙ্কের হিসেবে রোনালদোর পর দ্বিতীয় দামী চুক্তিটা আলিসনের। ব্রাজিলিয়ান এই গোলরক্ষককে এএস রোমা থেকে ৭২.৫ মিলিয়ন ইউরোয় কিনে এনেছে লিভারপুল। যা আলিসনকে বানিয়ে দিয়েছে ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে দামী গোলরক্ষক।

তৃতীয় দামী চুক্তিটাও একজন ব্রাজিলিয়ানের। শাখতার দোনেৎস্ক থেকে মিডফিল্ডার ফ্রেডকে ৬০ মিলিয়ন ইউরোয় দলে ভিড়িয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দলবদলের মাধ্যমে আলোচনায় ছিলেন ফাবিনহো, আর্থার, ম্যালকম, ভিনসিয়াস জুনিয়র, ডগলাস কস্তা, ফিলিপে অ্যান্ডারসন, রিচার্লিসনরা। ফুটবলপ্রেমী মাত্রই জানেন, এরা সবাই ব্রাজিলিয়ান।

বিস্ময়-বালকের তকমা লেগে যাওয়া ভিনসিয়াসের সঙ্গে রিয়াল অবশ্য চুক্তিটা করেছে ২০১৭ সালেই। কিন্তু তার বয়স ১৮-এর নিচে থাকায় চুক্তিটা তখন কার্যকর হয়নি। গত ১ জুলাই তার বয়স ১৮ পূর্ণ হওয়ার পরই তা কার্যকর হয়েছে। আর সেদিনই তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিয়েছেন রিয়ালে।

টাকার অঙ্কে অনেকটা পিছিয়ে থাকলেও ম্যালকমের চুক্তিটি অন্যরকম উত্তাপই ছড়িয়েছে। সেই কৃতিত্ব অবশ্য বার্সেলোনার! কাতালন ক্লাবটি রীতিমতো হাইজ্যাক করেছে ব্রাজিলিয়ান তরুণকে। ২১ বছর বয়সী ম্যালকমকে কেনার সব আয়োজনই সরে ফেলেছিল রোমা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বাগড়া দিয়ে রোমার হাত থেকে ম্যালকমকে কেড়ে নেয় বার্সেলোনা। ৪২ মিলিয়ন ইউরোর বস্তার জোরেই এই ছিনতাই-কাণ্ড ঘটায় বার্সেলোনা।

কেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের নিয়ে এতো আগ্রহ ইউরোপিয়ান ক্লাবগুলোর? উত্তরটা সবারই জানা। যুগে যুগে অনেক প্রতিভাবান ফুটবলারদেরই জন্ম দিয়েছে ব্রাজিল। জন্ম দিয়েছে পেলে, গ্যারিঞ্চা, টোস্টাও, জোয়ারজিনহো, মারিও জাগালো, জিকো, সক্রেটিস, রোমারিও, রবার্তো কার্লোস, কাফু, রোনাল্ডো, রিভালদো, রোনালদিনহো, কাকা এবং হালের নেইমার, ফিলিপে কুতিনহোদের মতো তারকাদের।

এদেরই যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে উঠে আসছেন ভিনসিয়াস, ম্যালকম, আর্থার, অ্যান্ডারসন, রিচার্লিসনরা। এদের প্রতিভা এরই মধ্যে প্রমাণিত। বয়সও কম। এই দেইয়ের যোগফলেই ব্রাজিলিয়ান এই তরুণদের নিয়ে ইউরোপিয়ান ক্লাবগুলোর এমন টানাটানি। বার্সেলোনার দুই সতীর্থ আর্থার ও ম্যালকম, দুজনের বয়সই ২১।

রিয়ালের ভিনসিয়াস তো সবে ১৮-তে পা দিলেন। এবার দলবদল করা এই ৯ ব্রাজিলিয়ানের মধ্যে একমাত্র কস্তা ছাড়া বাকি সবারিই বয়স ২৫-এর নিচে। প্রতিভা আর তারুণ্যই এবারের দলবদলের বাজারে ব্রাজিলিয়ানদের হট করে তুলেছে।

এবারের দলবদলের এই ছবিটা দেখে সবচেয়ে বেশি খুশি হওয়ার কথা ব্রাজিল কোচ তিতের। রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্যর্থ হলেও কোচ হিসেবে তিতেকেই রেখে দিয়েছে ব্রাজিল। ২০২২ বিশ্বকাপ পর্যন্ত তার কাঁধেই থাকবে ব্রাজিলেল কোচের দায়িত্ব। তো উঠতি এই তারকাদের নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনারই সুযোগ পাচ্ছেন তিতে।

পাইপলাইনে এতো এতো প্রতিভাবান খেলোয়াড় দেখে তার চোখ তো চকচক করবেই!

SHARE