Home কক্সবাজার টেকনাফে রাজনৈতিক নেতা,জনপ্রতিনিধি সহ মাদককারবারীদের প্রাসাদে যৌথ টাস্কফোর্সের অভিযান

টেকনাফে রাজনৈতিক নেতা,জনপ্রতিনিধি সহ মাদককারবারীদের প্রাসাদে যৌথ টাস্কফোর্সের অভিযান

160
SHARE

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(৯ সেপ্টেম্বর) :: টেকনাফে আইন-শৃংখলা বাহিনীর মাদক বিরোধী যৌথ টাস্কফোর্স মাদক সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক নেতা, জনপ্রতিনিধি ও গডফাদারদের নির্মিত রাজ প্রাসাদ খ্যাত আস্তানায় অভিযান পরিচালনা করেছে। এসময় খুচরা মাদক বিক্রয় ভেন্ডার হতে ২টি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা যায়,৯ সেপ্টেম্বর দুপুর হতে বিকাল পর্যন্ত মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম অঞ্চলের ডেপুটি ডাইরেক্টর গোয়েন্দা) একেএম শওকত ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম, কক্সবাজার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সোমেন মন্ডল,টেকনাফ মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ রনজিত কুমার বড়–য়া, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ সার্কেলের সহকারী পরিচালক মোশারফ হোসেন চৌধুরীর নেতৃত্বে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি ও আনসার সদস্যদের সমন্বয়ে যৌথ টাস্কফোর্সের পৃথক দল টেকনাফ পৌর এলাকার চিহ্নিত মাদক চোরাকারবারী দক্ষিণ জালিয়া পাড়ার মোহাম্মদ হোছন প্রকাশ মাছনের পুত্র,

পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা, মৃত আব্দুল গাফ্ফারের পুত্র মোঃ মোজাম্মেল, মোঃ রফিক প্রকাশ পুতিন্নার পুত্র মোহাম্মদ আলম, ওসমানের পুত্র জোবায়ের, কুলাল পাড়ার এখলাসের স্ত্রী কালা বুড়ি, নাজির পাড়ার মৃত মোজাহার মিয়ার পুত্র এনাম মেম্বারের বাড়ি, সাবরাং নয়াপাড়ার শামসুল আলম মার্কিন, গফুর, জব্বার, হ্নীলা ইউনিয়নের লেদার মৃত আবুল কাশেমের পুত্র নুরুল হুদা মেম্বার, আলীখালীর মৃত আবুল কাশেমের পুত্র নুরুল কবির, রঙ্গিখালীর মৃত হায়দর আলীর পুত্র জামাল হোছন মেম্বার ও ফুলের ডেইল মৃত আব্দুল গাফ্ফারের পুত্র শামসুল আলম বাবুল মেম্বারের বাড়িতে অভিযান চালায়।

এসময় তালিকাভূক্ত মাদক চোরাকারবারীদের তৈরী রাজ-প্রাসাদে লোকজন না থাকায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগের কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে কুলাল পাড়ার মাদকের ভেন্ডার খ্যাত কালা বুড়ির বাড়ি হতে ২টি ধারালো কিরিচ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে মাদক বিরোধী অভিযান যতই জোরদার হোক না কেন কৌশল পরিবর্তন করে মাদকের চালানের অনুপ্রবেশ ও পাচার কার্যক্রম অব্যাহত থাকায় সচেতন মহল চরম উদ্বিগ্ন অবস্থায় রয়েছে।

SHARE