Home কক্সবাজার কক্সবাজারে প্রথমবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করলেন ভারতের হাই কমিশনার শ্রিংলা : ত্রাণ...

কক্সবাজারে প্রথমবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করলেন ভারতের হাই কমিশনার শ্রিংলা : ত্রাণ বিতরন

235
SHARE

কক্সবাংলা রিপোর্ট(১৭ সেপ্টেম্বর) :: কক্সবাজারে প্রথমবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন ভারতের হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। সোমবার দুপুরে উখিয়ার বালুখালী ও কুতুপালং হিন্দু রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে ত্রাণ বিতরণ করেন।

এসময় ভারতের হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন মিয়ানমার থেকে নির্যাতিত হয়ে আসা বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের পক্ষে রয়েছে ভারত। এ জন্য জাতিসংঘের তত্বাবধানে প্রত্যাবাসনের যে প্রক্রিয়া চলছে এতে ভারত সহযোগিতা করছে। তিনি আরও বলেন ভারত আশ্রিত এসব রোহিঙ্গাদের আগেও সহযোগিতা করেছে এখনো করছে। আগামিতেও প্রয়োজনে সহযোগিতা করতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে জানান হর্ষবর্ধ শ্রিংলা।

সোমবার দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন ও জ্বালানি তেল বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে সেখানে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে আলোচনা সভায় এ কথা বলেন ভারতের হাই কমিশনার। শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মো. আবুল কালামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোফাজ্জফল হোসেন চৌধুরী মায়া।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারত বাংলাদেশের পাশে আছে উল্লেখ করে শ্রিংলা বলেন, ‘প্রথম ও দ্বিতীয় দফা ভারত সরকারের ত্রাণসামগ্রী দেওয়ার পর এবার তৃতীয় দফা হিসেবে কেরোসিন ও স্টোভ বিতরণ করা হচ্ছে। রোহিঙ্গাদের জ্বালানির কথা বিবেচনা করে আজ ১১ লাখ লিটার কেরোসিন ও ২০ হাজার স্টোভ বিতরণ করা হচ্ছে। ২০ হাজার রোহিঙ্গা পরিবারকে একটি করে স্টোভ ও ১০ কেজি করে কেরোসিন বিতরণ করা হচ্ছে।’

শ্রিংলা বলেন, ‘ইতোমধ্যে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে ২৫০টি বাড়ি নির্মাণ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এছাড়াও মিয়ানমারের মংডু জেলার ক্যিং সং গ্রামে আরও ৫০টি বাড়ি নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে।’

বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে দুপুর ১টায় কুতুপালং হিন্দু রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে সেখানেও ত্রাণ বিতরণ করেন।এসময় তিনি হিন্দু রোহিঙ্গা শরনার্থীদের সাথে কথা বলেন এবং পুরো ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।এরপর সেখান থেকে তিনি সরাসরি কক্সবাজার বিমান বন্দরে রওনা দেন।

এর আগে সোমবার সকাল সাড়ে ৯ টায় তিনি বিমানযোগে কক্সবাজার পৌঁছে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে রওনা দেন। পৌনে ১২ টার দিকে তিনি উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পে পৌঁছেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশস্থ ভারতের হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল,বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমদ মজুমদার। ‘অপারেশন ইনসানিয়াত’ এর আওতায় তৃতীয়বারের মত ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেছে ভারত। এবারে ২০ হাজার রোহিঙ্গার মাঝে কেরোসিনের চুলা ও তেলসহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৫ আগস্টের পর থেকে এ পর্যন্ত মিয়ানমার সেনাদের নির্যাতনে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৭ লাখের মতো। আগে থেকে অবস্থান করাদের মিলিয়ে কক্সবাজারে রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় ১২ লাখ। এই বিশাল সংকটের মধ্যে বিভিন্ন সময় রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণসামগ্রী পাঠালেও কোনও সময় প্রতিনিধি পাঠায়নি ভারত। তাই ভারতীয় প্রতিনিধি দলের এ সফরের মধ্য দিয়ে রোহিঙ্গা সংকট নিরসন প্রক্রিয়া আরও অনেকদূর এগিয়ে যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

SHARE