টেকনাফে পৃথক অভিযানে দুই লাখ পরিত্যক্ত ইয়াবা উদ্ধার

Teknaf-Pic-A-19-09-18.jpg

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(১৯ সেপ্টেম্বর) :: কক্সবাজারের টেকনাফে কোস্টগার্ড-বিজিবি পৃথক অভিযান চালিয়ে ২লাখ পরিত্যক্ত ইয়াবা বড়ি জব্দ করেছে।

জানা যায়, ১৯ সেপ্টেম্বর রাতের প্রথম প্রহর সোয়া ১টারদিকে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পূর্ব জোনের টেকনাফ সিজি ষ্টেশনের জওয়ানেরা সাবরাং ইউনিয়নের জালিয়া পাড়া পয়েন্ট দিয়ে ইয়াবার চালান খালাসের সংবাদ পেয়ে বোট নিয়ে টহলে যাওয়ার সময় একটি সন্দেহভাজন বোটকে থামানোর সংকেত দিলে একটি প্লাস্টিকের বস্তা নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে মিয়ানমারের দিকে পালিয়ে যায়।

বস্তাটি উদ্ধার করে সিজি ষ্টেশনে এনে গণনা করে সাড়ে ৭ কোটি টাকা মূল্যমানের ১ লক্ষ ৫০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি পাওয়া যায়। জব্দকৃত ইয়াবা পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

অপরদিকে গত ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭টারদিকে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের সাবরাং খুরের মুখ অস্থায়ী চেকপোষ্টের নায়েক মোঃ রকিবুল হাসান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মোটর সাইকেলযোগে বিশেষ টহল দল নিয়ে নয়াপাড়ায় অভিযানে যায়।

এসময় ২জন লোক দেখতে পেয়ে দাড়াতে বললে অগ্রাহ্য করায় তাদের ধাওয়া করা হলে একটি পুটলা ফেলে পার্শ্ববর্তী গ্রামের ভেতর পালিয়ে যায়।

ঘটনাস্থল হতে পুটলাটি উদ্ধার করে ব্যাটালিয়ন সদরে নিয়ে গণনা করে পরবর্তীতে টহলদল ইয়াবা পাচারকারী কর্তৃক ফেলে যাওয়া প্যাকেটটি খুলে গণনা করে ১কোটি ৫০লক্ষ টাকার ৫০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ি জব্দ করতে সক্ষম হয়।

যা পরবর্তীতে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করার জন্য ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে।

এর গত ২দিন আগেও বিজিবি জওয়ানেরা ২ লাখ পরিত্যক্ত ইয়াবার চালান উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের মধ্যেও হঠাৎ করে টেকনাফ সীমান্তে মাদকের চালান আটকের ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় সচেতন মহলে অজানা আতংক ছড়িয়ে পড়ছে।

Share this post

PinIt
scroll to top