Home প্রযুক্তি হ্যাকিং হওয়া ৫ কোটি অ্যাকাউন্ট সুরক্ষায় ফেসবুক

হ্যাকিং হওয়া ৫ কোটি অ্যাকাউন্ট সুরক্ষায় ফেসবুক

30
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(২৯ সেপ্টেম্বর) :: প্রায় পাঁচ কোটি ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট হ্যাকিংয়ের শিকার হওয়ার পর সেসব অ্যাকাউন্ট সুরক্ষায় নেওয়া পদক্ষেপের বিস্তারিত তথ্য জানিয়েছেন জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ।

মঙ্গলবার এই হ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটলেও শুক্রবার নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার কথা জানায় কোম্পানিটি। এরপরই নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক পোস্টে সেসব অ্যাকাউন্টের সুরক্ষায় নেওয়া পদক্ষেপের বিস্তারিত জানান জাকারবার্গ। এর আগে হ্যাকিংয়ের খবর জানিয়ে ফেসবুকের তরফে জানানো হয় নিরাপত্তা ত্রুটির কারণে এসব অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম হয় আক্রমণকারী।

শুক্রবারের ফেসবুক পোস্টে জাকারবার্গ বলেন, ‘আমাদের চিহ্নিত করা একটি গুরুত্বপূর্ণ নিরাপত্তা ইস্যুর অগ্রগতি সম্পর্কে জানাতে চাই। গত রাতে সাময়িকভাবে ইস্যুটি সমাধান করার পর আক্রমণের শিকার হতে পারে এমন অ্যাকাউন্টগুলোর বিষয়ে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি আমরা এখনও তদন্ত করে দেখছি, তবে এখন পর্যন্ত যা জানতে পেরেছি, আপনাদের তা জানাতে চাই।’

গত জুলাইতে মার্কিন বাণিজ্য সাময়িকী ব্লুমবার্গের তালিকায় বিশ্বের তৃতীয় শীর্ষ ধনী হওয়া জাকারবার্গ পোস্টে লেখেন, ‘মঙ্গলবার আমরা দেখতে পাই এক আক্রমণকারী ফেসবুকের ৫ কোটি অ্যাকাউন্টে লগ ইন করতে পারার মতো তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার প্রযুক্তিগত দুর্বলতা ভেঙে ফেলেছে। আমরা এখনও জানি না এসব অ্যাকাউন্টের তথ্যের অপব্যবহার হয়েছে কিনা তবে আমরা এখনও তা খতিয়ে দেখছি আর আরও বেশি কিছু জানতে পারলে আমরা আপনাদের জানিয়ে দেব।’

আরও পড়তে পারেন: ৫ কোটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাকিংয়ের শিকার

তিনি লেখেন, ‘এই ইস্যুতে আমরা এরমধ্যে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নিয়েছি। তা হলো ১. আক্রমণকারী বা অন্য কেউ যেন লগ ইন করতে পারার তথ্য হাতিয়ে নিতে না পারে তা মোকাবিলায় আমরা প্রযুক্তিগত দুর্বলতাটি কাটিয়ে উঠেছি। এছাড়া আক্রান্ত ৫ কোটি অ্যাকাউন্টের যেসব তথ্য আক্রমণকারী হাতিয়ে নিয়েছিল তা অকার্যকর করে দিয়েছি-কারণ তাতে তারা লগ আউট হয়ে পড়েছে। এসব ব্যবহারকারীকে আবারও তাদের অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পুনরায় লগ ইন করতে হবে। পুনরায় লগ ইন করার পর এসব অ্যাকাউন্টের নিউজ ফিডের ওপরে একটি বার্তা দিয়ে যা ঘটেছে তা তাদের জানানো হয়েছে। ২. দুর্বলতা কাটিয়ে ওঠতে পেরেছি বিশ্বাস করার পরও সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে যে ফিচারটিতে নিরাপত্তা দুর্বলতাটি ছিল তা আমরা সাময়িকভাবে সরিয়ে নিয়েছি। যতক্ষণ পর্যন্ত না আমরা এটি তদন্ত সম্পূর্ণ করতে পারি এবং এটাতে অন্য কোনও নিরাপত্তা ইস্যু নেই তা নিশ্চিত করতে পারি ততক্ষণ তা সরিয়ে নেওয়া থাকবে। ওই ফিচারটি হলো ‘ভিউ অ্যাজ’। এই ফিচারটি একটি ব্যক্তিগত টুল যার মাধ্যমে অন্যরা কিভাবে আপনার নিজের প্রোফাইল দেখতে পারবে তা দেখাতে ব্যবহার করা হয়’।

এছাড়া তৃতীয় পদক্ষেপ সম্পর্কে জানাতে গিয়ে ফেসবুকের অন্যতম এই প্রতিষ্ঠাতা লেখেন, ‘অতিরিক্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ওই দুর্বলতাটির সূচনার পর থেকে যারাই ‘ভিউ অ্যাজ’ ফিচারটি ব্যবহার করেছেন তাদের প্রত্যেককেও লগ আউট করে দিচ্ছি। এতে প্রায় আরও চার কোটি বা তারও বেশি মানুষকে তাদের অ্যাকাউন্টে পুনরায় লগ ইন করতে হবে। এসব অ্যাকাউন্টের তথ্য হাতানো হয়েছে এমন কোনও প্রমাণ এখন পর্যন্ত আমরা পাইনি কিন্তু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে এই পদক্ষেপ নিয়েছি।’

এসব পদক্ষেপের তথ্য জানানোর পাশাপাশি ফেসবুক পোস্টে জাকারবার্গ লেখেন, ‘আমরা বরাবর এমন মানুষদের আক্রমণের মোকাবিলা করছি যারা বিশ্বের নানা প্রান্তের ফেসবুক অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণ বা তথ্য চুরি করতে চায়। এসব দুর্বলতা শনাক্ত করার পর তা ঠিক করে এবং আক্রমণের ঝুঁকিতে থাকা অ্যাকাউন্টগুলো সুরক্ষিত করে আমরা খুশি হলেও, বাস্তবতা হলো প্রথমেই এসব ঘটনা ঠেকাতে আমাদের নতুন সরঞ্জামগুলো প্রতিনিয়ত উন্নত করা দরকার’। ব্যবহারকারীরা অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে বা লগ ইন করতে কোনও সমস্যার মুখোমুখি হলে তাদের অ্যাকাউন্টে ঢুকতে ফেসবুক হেল্প সেন্টারের সাহায্য নিতেও পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

অতিরিক্ত তথ্য জানার জন্য ফেসবুক ব্যবহারকারীদের কোম্পানির প্রডাক্ট ম্যানেজমেন্ট এর ভাইস প্রেসিডেন্ট গাই রোসেন এর পোস্ট দেখার অনুরোধ জানিয়ে একটি লিঙ্ক শেয়ার করেছেন জাকারবার্গ। এছাড়া তদন্ত এখনও চলছে জানিয়ে তিনি কোনও অগ্রগতি হলে তা জানানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের শুরুর দিকে ফেসবুকের প্রায় ৫ কোটি গ্রাহকের তথ্য চুরির অভিযোগ ওঠে। যুক্তরাজ্যের প্রতিষ্ঠান ক্যামব্রিজ অ্যানালেটিকা ওই তথ্য নিয়ে ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে প্রচারণা চালায় বলে ওই সময় অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সংসদীয় কমিটি ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা জাকারবার্গকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে। এছাড়া ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যেও ঘটনাটি ক্ষোভের জন্ম দেয়। ওই ঘটনায় শেয়ারের দরপতনের জেরে প্রায় ৫ হাজার ৮০০ কোটি ডলার লোকসানের মুখে পড়ে কোম্পানিটি।

SHARE