Home আন্তর্জাতিক যুক্তরাষ্ট্রের হুমকি সত্ত্বেও এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কিনবে ভারত

যুক্তরাষ্ট্রের হুমকি সত্ত্বেও এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কিনবে ভারত

91
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(১ অক্টোবর) :: যুক্তরাষ্ট্র আগে থেকেই হুমকি দিয়ে রেখেছে- রাশিয়ার কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনলে ভারতকে নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হবে। সেই হুমকি সত্ত্বেও অত্যাধুনিক রুশ এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ক্রয় করবে ভারত।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভদ্মাদিমির পুতিনের ভারত সফরকালে ক্ষেপণাস্ত্র কেনার চুক্তি চূড়ান্ত করবে নয়াদিল্লি। আগামী ৫ ও ৬ অক্টোবর ভারত-রাশিয়া সম্মেলনে যোগ দিতে নয়াদিল্লি যাচ্ছেন পুতিন। ভারতের আশা, তারা ট্রাম্প প্রশাসনের কাছ থেকে বিশেষ ছাড় পাবে।

অন্যদিকে আশঙ্কা, তারা যদি চুক্তিটি না করে তাহলে রাশিয়া সরাসরি পাকিস্তানের কাছে অস্ত্র বিক্রি করবে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

ভারতীয় কর্মকর্তারা জানান, রাশিয়ার সঙ্গে অস্ত্র চুক্তিটি ভারতের কৌশলগত স্বায়ত্তশাসন বজায় রাখা এবং সামরিক সরঞ্জাম আমদানির ক্ষেত্রে কোনো নির্দিষ্ট দেশের ওপর নির্ভরশীল না হওয়ার পদক্ষেপ। তাই রাশিয়ার কাছ থেকে অস্ত্র কেনায় যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার আশঙ্কা থাকলেও দিল্লি চুক্তিটি করতে চায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, এই সপ্তাহে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার পাঁচটি ইউনিট ক্রয়ের অনুমোদন দিয়েছে নিরাপত্তাবিষয়ক কেবিনেট কমিটি। তবে রাশিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে চারটি যুদ্ধবিমান তৈরির চুক্তিটি কারিগরি জটিলতায় আটকে গেছে।

ভারত যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার কাছ থেকে অস্ত্র কেনার কথা জানিয়েছে এবং অনুরোধ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্সিয়াল ছাড় পাওয়ার জন্য।

ভারতের মরিয়া হয়ে চুক্তিটি চূড়ান্ত করার প্রথম কারণ হচ্ছে কর্মকর্তারা মনে করছেন, দিল্লি চুক্তিটি না করলে হতাশ রাশিয়া হয়তো পাকিস্তানের কাছে অস্ত্র বিক্রি শুরু করবে। চীনের কাছে যেভাবে রাশিয়া অস্ত্র বিক্রি করছে, এতে আঞ্চলিক সামরিক নিরাপত্তা ভারসাম্য নষ্ট হতে পারে।

দ্বিতীয়ত, মোদি সরকারকে নতুন ও পুরনো মিত্রের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। কূটনৈতিকভাবেও এস-৪০০ চুক্তিটি বাতিল বা পিছিয়ে দিলে মোদি ও পুতিনের মধ্যে যে সম্পর্ক গড়ে উঠেছে, সেটার অবনতি হতে পারে। কর্মকর্তারা বলছেন, পুতিনের সঙ্গে  সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ করতে মোদিকে অনেক কাঠখড়  পোড়াতে হয়েছে। যদিও তা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক বাদ দিয়ে হয়নি।

SHARE