Home কক্সবাজার টেকনাফের বঙ্গোপসাগরে ৬ দালালসহ মালয়েশিয়াগামী ৩৯ রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশু বোঝাই ট্রলার...

টেকনাফের বঙ্গোপসাগরে ৬ দালালসহ মালয়েশিয়াগামী ৩৯ রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশু বোঝাই ট্রলার আটক

115
SHARE

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ(৭ নভেম্বর) :: টেকনাফে সেন্টমার্টিনে কোস্টগার্ড সদস্যরা সাগরে অভিযান চালিয়ে ৬দালালসহ মালয়েশিয়াগামী ৩৯ রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুকে আটক করেছে। এই ঘটনায় মানব পাচারে ব্যবহৃত ট্রলার জব্দ করা হয়েছে।

জানা যায়,৭ নভেম্বর বিকাল ৪টারদিকে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সেন্টমার্টিন ষ্টেশনের সেন্টমার্টিন ষ্টেশন কমান্ডার ষ্টেশন কমান্ডার ফাইজুল ইসলামের নেতৃত্বে জওয়ানেরা টহল দেওয়ার সময় পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে একটি মানব বোঝাই ট্রলার দেখতে পেয়ে ধাওয়া করে আটক করে।

পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে ৬ জন দালালের মধ্যস্থতায় তারা সাগর পথে মালয়েশিয়ার গমনের জন্য শীপে উঠার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়। যাত্রাকালে কোস্টগার্ড সদস্যদের হাতে আটক হন।

প্রাথমিকভাবে আটককৃতদের মধ্যে ৪ জন ৬জন মানব পাচারকারী দালাল, ১০ জন রোহিঙ্গা নারী, ১০ রোহিঙ্গা জন পুরুষ, ৪জন বাংলাদেশী পুরুষ ও ৯ জন শিশুসহ মোট ৩৯জন ভিকটিম রয়েছে। মানব পাচারে ব্যবহৃত ট্রলারটি জব্দ করা হয়েছে।

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা হলেন টেকনাফের হ্নীলার মুচনী রোহিঙ্গা ক্যম্পের এস ব্লকের বাসিন্দা হালিমা (১৮), সানজিদা (৪০), সাবিয়া বেগম (২০), নুরুল আমিন (১২), নুর ফয়সাল (৫), সাজিদা (৮), নুর কামাল (৫), নুর হাশেম (৯), মো. আনিস (১৫), ছৈয়দুল আমিন (১৪), রমজান আলী (৩৩) ও আফসার মিয়া (১৯)। লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মনোয়ারা (২২), তাসনিম (২৫), নূরাসাফ, ফরমিন (২৫) ও হারসা বিবি (১৮)।

উখিয়ার থাইংখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের হাসিনা (২০), মো. জমির (১০), এনায়েত উল্লাহ (১৬), আজিজ কামাল (২০), আজিজ কামাল (১৫) ও শামসু (২৫)। বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা খতিজা বেগম (২০), শাহবিদা (৩০), মো. রিয়াহ (৮) ও শরমিন (৫)। কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সৈয়দুল ইসলাম (১৫) ও ইয়াসির (১৮)।

এছাড়া উদ্ধার চার বাংলাদেশী হলেন টাঙ্গাইলের কবির উদ্দিন (২৪) ও মাজেদুর রহমান (২৫), কক্সবাজারের পেকুয়ার পূর্ব পাহাড়ীখালী এলাকার মো. কাশেম (১৭) ও একই এলাকার মনির হোসেন (১৮)।

এই ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়েরের পর থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়া চলছে বলে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড দক্ষিণ-পূর্ব জোনের লেঃ কমান্ডার সাইফুল ইসলাম নিশ্চিত করেন।

SHARE