Home শীর্ষ সংবাদ আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত : শেষ মুহূর্তে নানা হিসাব-নিকাশ

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত : শেষ মুহূর্তে নানা হিসাব-নিকাশ

2062
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(২৪ নভেম্বর) :: আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতৃত্বাধীন প্রধান দুই জোট তাদের মনোনয়নপ্রাপ্তদের তালিকা প্রায় চূড়ান্ত করে এনেছে। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের হিসাব-নিকাশ। প্রতিদ্বন্দ্বী জোটের তালিকায় চোখ রাখার চেষ্টা করছে দুই জোটই। কারণ নির্বাচনের আগেই তারা ‘হারতে’ চায় না একে অন্যের কাছে

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা তৈরির কার্যক্রম গুছিয়ে আনছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ জন্য তিনি মহাজোটভুক্ত দলগুলোর শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলছেন। এ অবস্থায় আসন বণ্টন নিয়ে মহাজোটে এখন শেষ মুহূর্তের দৌড়ঝাঁপ চলছে।

সর্বশেষ গতকাল শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বেশ কিছু সময় নির্বাচন এবং আসন বণ্টন নিয়ে আলোচনা করেছেন বলে জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রী এর আগে আসন ভাগাভাগি নিয়ে বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সঙ্গে কথা বলেছেন। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সঙ্গেও প্রধানমন্ত্রীর কথা হয়েছে। মহাজোটের অন্যতম এই দুই প্রধান রাজনৈতিক দলের দুই শীর্ষ নেতা ছাড়াও অন্য শরিকদের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও তিনি আলোচনা করছেন।

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের এবং বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফোরামের (বিএনএফ) সভাপতি এস এম আবুল কালাম আজাদও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন। এস এম আবুল কালাম আজাদ ঢাকা-১৭ আসনের এমপি। তিনি মহাজোটের মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। আওয়ামী লীগ এ আসনে চিত্রনায়ক আকবর হোসেন পাঠান ফারুকের নাম চূড়ান্ত করেছে। তবে এরশাদ চাইলে শেষ পর্যন্ত এ আসনটি জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত রয়েছে আওয়ামী লীগের। সে ক্ষেত্রে জিএম কাদের মনোনয়ন পেতে পারেন।

তৃণমূল বিএনপির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নাজমুল হুদাও এ আসনে মহাজোটের মনোনয়ন চাইছেন। ইতিমধ্যে তিনি আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে দেখা করে তার আগ্রহের কথা জানিয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য মাহী বি. চৌধুরী আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে দেখা করে আসন ভাগাভাগি নিয়ে আলোচনা করেন। এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনায় ২২টি আসনে মনোনয়ন চান বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। বিকল্পধারা কম করে হলেও ১০টি আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছে।

এদিকে জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারের সঙ্গে প্রায় প্রতিদিনই টেলিফোনে যোগাযোগ রাখছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি রুহুল আমিন হাওলাদারকে জানিয়েছেন, মহাজোটের মনোনয়নের জন্য জাতীয় পার্টির দেওয়া প্রার্থী তালিকা যাচাই-বাছাই করে দেখছেন প্রধানমন্ত্রী। আজকের মধ্যে এই কার্যক্রম শেষ হবে।

তবে কয়েকটি আসনে মহাজোটের মনোনয়ন নিয়ে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির মধ্যে টানাটানি হচ্ছে। লালমনিরহাট-৩ আসনে জি এম কাদের মহাজোটের মনোনয়ন চাইছেন। এ আসনের বর্তমান এমপি আওয়ামী লীগের আবু সালেহ মোহাম্মদ সাঈদ দুলাল ছাড় দিতে চাইছেন না। খুলনা-১ আসনে মহাজোটের মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়। এই আসনে ছাড় দিতে চাইছে না আওয়ামী লীগ।

জাতীয় পার্টির সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়ে বরিশাল-২ আসনে আওয়ামী লীগের এমপি অ্যাডভোকেট তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুসের ভাগ্য বিপর্যয় ঘটতে যাচ্ছে। বরিশালের রাজনীতিতে ভালো মানুষ হিসেবে পরিচিত জেলা আওয়ামী লীগের এই সাধারণ সম্পাদক এবার দলের মনোনয়নবঞ্চিত হচ্ছেন বলে জানা গেছে। এ আসনে মহাজোটের মনোনয়ন পেতে পারেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য চিত্রনায়ক মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা।

কক্সবাজার-১ এবং কক্সবাজার-৩ আসনের মনোনয়ন নিয়েও আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির মধ্যে এক ধরনের টানাটানি চলছে। 

আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা জানিয়েছেন, মহাজোটের মনোনয়ন নিয়ে কয়েকটি আসনে চমকের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এর প্রথম দিকে আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর নাম থাকতে পারে। তিনি ফরিদপুর-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হলেও জাকের পার্টির চেয়ারম্যান পীরজাদা মোস্তফা আমীর ফয়সল মোজাদ্দেদীর জন্য তাকে আসনটি ছেড়ে দিতে হতে পারে।

রংপুর-৫ আসনের এমপি আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান এবারও দলের মনোনয়ন পেতে পারেন। কিন্তু স্থানীয় কয়েকজন নেতা গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে তার বিরুদ্ধে বয়স-সংক্রান্ত জটিলতার অভিযোগ এনে প্রার্থী বদলের অনুরোধ করেছেন। এই আসনে নতুন মুখ এলে সেটা হবে চমক।

মাগুরা-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব অ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর। তিনি নতুন মুখের তালিকায় থাকবেন। চমকের অপেক্ষায় আছেন নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী ক্রিকেট তারকা মাশরাফি বিন মুর্তজা। পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক নূর মোহাম্মদ কিশোরগঞ্জ-২ আসনে মনোনয়ন পেতে পারেন। সেটাও হবে চমক।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার ভাগ্নে এস এম শাহজাদা সাজু পটুয়াখালী-৩ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন। নির্বাচনী এলাকার সঙ্গে তেমন একটা যোগাযোগ না থাকার পরেও তিনি দলের মনোনয়ন পেলে সেটা চমকে দেওয়ার মতো ঘটনাই হবে। সে ক্ষেত্রে মনোনয়নবঞ্চিত হবেন বর্তমান সংসদ সদস্য আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন। সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

SHARE