পৃথিবী নিয়ে ভয়ঙ্কর ভবিষ্যত

world.jpg

বিজ্ঞানীদের মতে, পৃথিবীর অভ্যন্তরে অবস্থিত টেকটনিক প্লেটগুলি একটি অন্যটির নীচে চলে আসার ফলে টান পড়ছে মহাসাগরের পানিতে। বিপুল পরিমাণ পানি প্রবেশ করছে ভূগর্ভের গভীরে। ফলে কমছে পানির স্তর। ক্রমেই উধাও হযে যাচ্ছে সমুদ্র। এমন দিন আসতেই পারে, যখন এই গ্রহ পানিশূন্য হয়ে পড়বে।

ভূমিকম্পের সূত্র ধরেই এই তথ্যে উপনীত হয়েছেন গবেষকরা। সিসমোগ্রাফে ধৃত রেখাগুলির বিশ্লেষণ করতে করতে তারা দেখিয়েছেন, প্রশান্ত মহাগারের ম্যারিনাস ট্রেঞ্চ অঞ্চলে প্যাসিফিক প্লেট ফিলিপাইন প্লেটের নীচে ঢুকে যাচ্ছে। ফলে মহাসাগরের পানি প্রবেশ করছে বা বলা ভাল হারিয়ে যাচ্ছে ভূগর্ভের গভীরে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-বিজ্ঞানের গবেষক ওয়েইসেন শেন, ডগলাস এ উইয়েনস প্রমুখ এই ঘটনাকে রীতিমতো বিপদ বলেই চিহ্নিত করেছেন। এ থেকে ভূমিকম্পের প্রবণতা বাড়ছে বলেই তাদের ধারণা।

তবে কী পরিমাণ সমুদ্রজল ভূগর্ভের অভ্যন্তরে প্রবেশ করেছে, সেই হিসেব পাওয়া অসম্ভব বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। এই গবেষণাপত্রের বিপরীতে বেশ কিছু বিশেষজ্ঞ এই প্রশ্নও তুলেছেন, যে পরিমাণ পানি ভূগর্ভে প্রবেশ করে, সেই পরিমাণ পানি কি আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে বেরিয়ে আসে না? গবেষক দলের অন্যতম সদস্য চেন কাই জানিয়েছেন, এই বিষয়ে তারা পুনরায় অনুসন্ধন চালাচ্ছেন।

Share this post

PinIt
scroll to top