Home কক্সবাজার কক্সবাজার শহরে তাবলীগ সাথী-আলেমদের বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

কক্সবাজার শহরে তাবলীগ সাথী-আলেমদের বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

55
SHARE

কক্সবাংলা রিপোর্ট(৬ ডিসেম্বর) :: টঙ্গি ইজতেমা মাঠে আলেম, মাদরাসার ছাত্র ও তাবলীগ সাথীদের উপর সা’দ গ্রুপের হামলার ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে কক্সবাজার শহরে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে আলেম-ওলামাগণ।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় শহরের খুরুশকুল রাস্তার মাথা থেকে দশ হাজারের অধিক তাবলীগ ও আলেমগণ মিছিল করে কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরী মাঠে সমাবেশে উপস্থিত হন।

হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুরের পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- মাওলানা আবদুর রহিম ফারুকী, মাওলানা আতাউল করিম, মাওলানা হেলাল উদ্দিন, মাওলানা নেজাম উদ্দিন, মাওলানা সরওয়ার আলম কুতুবী, মাওলানা রফিকুল্লাহ, মাওলানা ওবাইদুল্লাহ রফিক, মাওলানা ইয়াসিন সহ সর্ব স্তরের তৌহিদী জনতা।

পরে একটি প্রতিনিধি দল কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেনের সাথে সাক্ষাত করে ৬ দফা দাবী নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্বারকলিপি প্রদান করেন।

৬ দফা দাবীগুলো হল…..

হামলার নির্দেশদাতা ওয়াসিফুল ইসলাম ও শাহাবুদ্দিন নাসিম গংদের সহ হামলার সাথে জড়িত সকলকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদান করতে হবে।

আহত ও নিহতদের ক্ষতিপূরণ ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে,

টঙ্গি ময়দান এতদিন যেভাবে শুরা ভিত্তিক পরিচালিত তাবলীগের সাথী ও ওলামায়ে কেরামের অধীনে ছিল তাদের কাছেই হস্তান্তর করতে হবে,

অতিসত্তর কাকরাইলের সকল কার্যকলাপ হতে ওয়াসিফ ও নাসিম গংকে বহিস্কার করতে হবে,

সারা দেশে ওলামায়ে কেরাম ও শুরা ভিত্তিক পরিচালিত তাবলীগের সাথীদের উপর হামলা মামলা বন্ধ করে পূর্ণ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে ও

টঙ্গির আগামী এজতেমা যথাসময়ে পূর্ব ঘোষিত ( ১৮,১৯,২০ প্রথম ধাপ ও ২৫,২৬, ২৭ জানুয়ারী ২০১৯ তারিখে দ্বিতীয় ধাপ) অনুষ্ঠানের কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে ১ ডিসেম্বর গাজীপুর টঙ্গি এজতেমার ময়দানে সা’দ পন্থি ছাত্রদের উপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় ১১২০ জনের মত আহত হন, এ পর্যন্ত ৩ জন নিহত হন। ২১০ জন হাসপতালে আছে। নারায়ণগঞ্জের ৫ জন মাদরাসার ছাত্র নিখোঁজ আছে, যাদের এখনো খোঁজ পাওয়া যায়নি ।

SHARE