Home শীর্ষ সংবাদ জাতীয় নির্বাচনে খালেদা জিয়া ‘বাতিল’, হামলা বিএনপি অফিসে

জাতীয় নির্বাচনে খালেদা জিয়া ‘বাতিল’, হামলা বিএনপি অফিসে

42
SHARE

কক্সবাংলা ডটকম(৮ ডিসেম্বর) :: সর্বাপেক্ষা সংকটজনক অবস্থার মধ্যে দিয়েই জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে চলেছে বিএনপি৷ কারণ দলের শীর্ষ নেত্রী তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া আর কোনওভাবেই নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না৷ সেই সঙ্গে দলীয় প্রধান কার্যালয়ে হল হামলা৷ এর জেরে পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ৷

নির্বাচন কমিশন তাদের চূড়ান্ত রায়ে শেষ পর্যন্ত বাতিল করেছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মনোনয়ন৷ কারণ তিনি আর্থিক দুর্নীতির মামলায় জেলবন্দি৷ তাঁর সাজার মেয়াদ দু বছরের বেশি৷

ফলে আসন্ন একাদশতম জাতীয় নির্বাচনে আর বেগম জিয়া থাকছেন না৷ অবশ্য ইসি-র রায়ের বিরুদ্ধে বিএনপি নেত্রী হাইকোর্টে আপিল করতে পারেন৷ বিশেষজ্ঞদের ধারণা, সেখানেও তাঁর আবেদন নামঞ্জুর হওয়া সময়ের অপেক্ষা৷

এটা নিশ্চিত যে বাংলাদেশ জাতীয় নির্বাচনে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হেভিওয়েট নেত্রী আর থাকছেন না৷ বিএনপি সুপ্রিম নেত্রীর হয়ে তাঁর দলের শীর্ষ নেতারা তিনটি আসনের জন্য মনোনয়নপত্র তুলেছিলেন৷ ফেনী-১ এবং বগুড়া-৬ ও বগুড়া-৭ আসন থেকে দলীয় মনোনয়নপত্র জমা দেন। তবে তিনি দণ্ডিত হওয়ায় রিটার্নিং কর্মকর্তারা তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিল বলে ঘোষণা করেন। এরপর ছিল নির্বাচন কমিশনে বিশেষ শুনানি৷

এদিকে দলনেত্রীর মনোনয়ন না পাওয়া নিয়ে উত্তেজনা ছিলই৷ তার সঙ্গে জড়িয়েছে দলীয় মনোনয়ন না পাওয়া নিয়ে প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রীর বিদ্রোহ ও তাঁর অনুগামীদের বিক্ষোভ৷ পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে ঢাকায় বিএনপি-র সদর দফতর আক্রান্ত হল৷ সকালে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল৷ বেলা গড়াতে তা আরও ঘোরতর হয়েছে৷ প্রাক্তন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এহসানুল হক মিলনের কর্মী সমর্থকরা ঘিরে রয়েছেন গুলশনস্থিত দলীয় দফতর৷

দলনেত্রীর কী হল তাতে তাদের বয়েই গিয়েছে এমন মনোভাব৷ চাই একটা মনোনয়ন যাতে বিএনপি প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা যেতে পারে এমন যুদ্ধংদেহী অবস্থান নিয়ে দ্রুত কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে সিদ্ধান্ত নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন হামলাকারীরা৷ সবমিলে গুলশন সরগরম৷

SHARE