Home কক্সবাজার রামুতে গভীর রাতে জমি দখলকারিদের তান্ডব : এলাকায় ডাকাত আতংক

রামুতে গভীর রাতে জমি দখলকারিদের তান্ডব : এলাকায় ডাকাত আতংক

41
SHARE

সোয়েব সাঈদ,রামু(৮ ডিসেম্বর) :: রামু উপজেলার চাকমারকুল গভীর রাতে স্থাপনাসহ জমি দখলের চেষ্টা চালিয়েছে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী চক্র। এসময় পুরো এলাকায় ডাকাত আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

বৃহষ্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ২টায় রামুর চাকমারকুল ইউনিয়নের শ্রীমুরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে এবং জমি জবর-দখলে জড়িত ২ জনকে আটক করে। আটককৃতরা হলো, মৃত কালুর ছেলে মাহবুব আলম ও মনসুর আলী।

রামু থানার ওসি (তদন্ত) মিজানুর রহমান জানান, গভীর রাতে ডাকাতির খবর পেয়ে পুলিশ ওই এলাকায় গিয়ে জমি জবর দখলের চেষ্টার বিষয়টি দেখে ঘটনায় জড়িত কয়েকজনকে থানায় নিয়ে আসেন।

জমিটির মালিক শাহাদাৎ হোছাইন জানান, ক্রয়কৃত জমিতে তিনি দোকানপাট নির্মাণ করে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখল করে আসছেন। কিন্তু ওই রাতে পূর্বপরিকল্পিতভাবে অস্ত্র, দা, লাটি-সোটা নিয়ে অর্ধ শতাধিক সন্ত্রাসী তার জমিটি জবর দখলের উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। হামলায় নেতৃত্ব দেন, মৃত কালুর ছেলে মাহবুব আলম, রমজান আলী, মনসুর আলী ও নুরুল আলম। হামলাকারিরা তার জমির ঘেরাবেড়া ও দোকানে ভাংচুর এবং লুটপাট চালিয়েছে।

শাহাদাৎ হোছাইন আরো জানান, স্টেশনের মূল্যবান এ জমিটি ইতিপূর্বে স্থানীয় প্রভাবশালী চক্র জবর-দখলের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে তাকে নানাভাবে হয়রানি করে আসছে। এনিয়ে তিনি রামু সহকারি জজ আদালতে মামলা করলে বিজ্ঞ আদালত ওই জমিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। কিন্তু প্রভাবশালী ভূমিগ্রাসীরা ডিসেম্বর মাসে জজ কোর্ট বন্ধের সুযোগে এ জমিটি জবর দখলের পরিকল্পিত এ চেষ্টা চালায়। এ ঘটনার পর থেকে মামলা না করার জন্য হামলাকারিরা তাকে বিভিন্নভাবে হুমকী দিচ্ছে। ফলে তিনি চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান।

এলাকাবাসী জানিয়েছে, গভীর রাতে জবর-দখলের উদ্দেশ্যে হামলা শুরু হলে এলাকায় ডাকাত আতংক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকে আতংকিত হয়ে থানায় ডাকাতি চলছে মর্মে মুঠোফোনে খবর দেয়। তবে এলাকাবাসী পুলিশের তাৎক্ষনিক উপস্থিতি দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেছে। হামলাকারিরা সরকারি দলের নাম ব্যবহার করে উল্টো সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছে। তাই এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে এলাকাবাসী।

SHARE