শনিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

শনিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

কক্সবাজারে ইউএসএআইডি ও এসিডিআই/ভোকা ওয়ার্কশপে বক্তারা : পুষ্টির অন্যতম ভিত্তি দুধ ও অন্যান্য প্রাণিজ আমিষ

সোমবার, ২৯ আগস্ট ২০২২
180 ভিউ
কক্সবাজারে ইউএসএআইডি ও এসিডিআই/ভোকা ওয়ার্কশপে বক্তারা : পুষ্টির অন্যতম ভিত্তি দুধ ও অন্যান্য প্রাণিজ আমিষ

কক্সবাংলা রিপোর্ট :: দেশ গড়ার জন্য যেমন অবকাঠামো দরকার, তেমনি স্বাস্থ্যবান ও মেধাবী জাতি গঠনে দরকার পুষ্টি। পুষ্টির অন্যতম ভিত্তি হলো দুধ। কারণ দুধ একটি আদর্শ খাবার। যেকোনো বয়সের মানুষের জন্য দুধ অত্যন্ত প্রয়োজন। এছাড়া বেকার সমস্যা দূরীকরণ, জ্বালানি সমস্যা সমাধানে এ খাতের বড় অবদান রাখার সুযোগ আছে। কর্মশালায় অতিথিরা বলেন, জনপ্রতি দিনে ২৫০ মিলিলিটার দুধ খাওয়া দরকার। সববয়সী মানুষ যাতে দুধ খেতে উদ্বুদ্ধ হয় এজন্য দুধের সরবরাহ বাড়াতে হবে। দুধের দাম সহনীয় রাখা এবং দুধের গুণগত মান বজায় রাখতে মনিটরিং এর ওপর জোর দেন বক্তারা। এছাড়া সাশ্রয়ীমূল্যে জনগণের দুধ প্রাপ্তি নিশ্চিতে বাজার ব্যবস্থাপনা জরুরি।

সোমবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে কক্সবাজার শহরের তারকা হোটেলে ওশান প্যারাডাইজে আর্ন্তজাতিক উন্নয়ন সংস্থা Acdi/Voca এবং ইউএসএআইডি’র অর্থায়নে ফিড দ্য ফিউচার বাংলাদেশ লাইভস্টক অ্যান্ড নিউট্রেশন অ্যাক্টিভিটি আয়োজিত ‘সামাজিক আচরণ পরিবর্তনে কৌশল তৈরিতে দিক নির্দেশনা’ বিষয়ক কর্মশালায় বক্তারা এ কথা বলেন।

ইউএসএআইডি অর্থায়নে পরিচালিত ফিড দ্য ফিউচার বাংলাদেশ লাইভস্টক এন্ড নিউট্রিশন এক্টিভিটি, “সোস্যাল বিহেভিয়ার চেঞ্জ স্ট্রাটেজি শেয়ারিং এন্ড কনসালটেশন ওর্য়াকশপ এর আয়োজন করে। এই প্রকল্পটির মূল লক্ষ্য হলো, মানুষের অভ্যাসগত পরিবর্তনের মাধ্যমে দুধ, মাংস এবং দুগ্ধজাত পণ্য খাওয়া বৃদ্ধি করে জনগণের পুষ্টির উন্নয়ন করা।

উক্ত কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার জেলা প্রাণিসম্পদ কার্মকর্তা ডা. জোর্তিময় ভৌমিক। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পুষ্টি সমন্বয় কমিটির সদস্য সচিব ও সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাহবুবর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন, কক্সবাজারের উপপরিচালক ফাহমিদা বেগম।

এছাড়া আরও অংশগ্রহন করেন সরকারি বিভিন্ন সংগঠনের জেলা এবং বিভাগীও প্রতিনিধিগণ, ইউএসএআইডির অর্থায়নে পরিচালিত বিভিন্ন কর্মসূচির উন্নয়ন সহযোগীবৃন্দ, এনজিও, জাতিসংঘ এবং বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিগণ এবং খামারী ও বাজার প্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্টগণ।

অনুষ্ঠানে দুধ, দুগ্ধজাত পণ্য ও মাংস খাওয়ার গুরুত্ব বিষয়ে আরও বক্তব্য রাখেন জনাব মোহাম্মদ নূরুল আমীন সিদ্দিকী, চিপ অফ পার্টি; মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, ডেপুটি চিপ অফ পার্টি ও টীম লিড, নিউট্রিশন; ডাঃ সঞ্জয় চন্দ্র ভট্টাচার্য, সিনিয়র ফিল্ড কো-অর্ডীনেটর; বাংলাদেশ লাইভস্টক এন্ড নিউট্রিশন এক্টিভিটি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিভিল সার্জন মানব শরীরে সুষম গঠনের জন্য সুষম পুষ্ঠিকর খাবার গ্রহনের উপর জোড় দিয়ে বলেন, উৎকৃষ্ঠ প্রোটিন পাবার জন্য নিয়মিত প্রাণিজ আমিষ যেমন ; দুধ , মাংস, ডিম খাবারে নিয়মিত রাখার চেষ্টা করতে হবে, গর্ভবতি মায়েদের গর্ভে ভ্রুন আসার পর থেকে বাচ্চা ভূমিষ্ট হবার পরবর্তী ২ বছর ( বা প্রথম ১০০০ দিন ) জাতি হিসেবে আমরা সুস্থ, সবল ও কর্মক্ষম থেকে অনাগত প্রজন্মের জন্য একটি সমৃদ্ধ আগামী রেখে যেতে পারি। এজন্য আজকের কর্মশালার মাধ্যমে আশা রাখি দুধ, দুধজাত পন্য এবং মাংস ভক্ষনের আচরন পরিবর্তন গঠন কৌশলপত্রের বাস্তবায়ন সঠিকভাবে অনুসৃত হবে।

উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,কর্মশালায় অতিথিরা বলেন, জনপ্রতি দিনে ২৫০ মিলিলিটার দুধ খাওয়া দরকার। সববয়সী মানুষ যাতে দুধ খেতে উদ্বুদ্ধ হয় এজন্য দুধের সরবরাহ বাড়াতে হবে। দুধের দাম সহনীয় রাখা এবং দুধের গুণগত মান বজায় রাখতে মনিটরিং এর ওপর জোর দেন বক্তারা। এছাড়া সাশ্রয়ীমূল্যে জনগণের দুধ প্রাপ্তি নিশ্চিতে বাজার ব্যবস্থাপনা জরুরি।

বাংলাদেশে পুষ্টিহীনতার একটি বড় কারণ হচ্ছে সঠিক পরিমান পুষ্টিকর খাবার গ্রহনে জনগনের আচরন পরিবর্তন না হওয়া তথা দুধ, দুগ্ধজাত পণ্য ও মাংস খাওয়ার ক্ষেত্রে জনসচেতনতা ও প্রাপ্তির অভাব রয়েছে। তাই প্রাণীজ আমিষ এর খাদ্য সরবরাহ বৃদ্ধি করতে হলে উক্ত পণ্যের উৎপাদন, বাজারজাতকরণের সুযোগ এবং সচেতনতা বৃদ্ধি করা গুরুত্বপূর্ণ । এছাড়া সঠিক প্রাণিজ আমিষ গ্রহণের ক্ষেত্রে উৎপাদনের পাশাপাশি সহজ প্রাপ্যতা এবং সচেতনতা বিষয়ে আলোচনা করেন ।

উল্লেখ্য,এসিডিআই/ভোকা একাটি আন্তজাতিক উন্নয়ন সংস্থ্যা যা, বিশ্বব্যাপি বিদেশী সহায়তায় প্রকল্প পরিকল্পনা এবং বাস্তবায়নে কাজ করে। এটি ১৯৬৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং প্রায় ১৫০টি উন্নয়নশীল দেশে কাজ করেছে । সংস্থাটি বিবিধ প্রকল্পের মাধ্যমে, লক্ষ্যভূক্ত পরিবারগুলোকে তাদের জীবনের ইতিবাচক এবং স্থায়ী পরিবর্তন আনতে সক্ষম করে তোলে। এসিডিআই/ভোকা’ জনগোষ্টির আয় বৃদ্ধি, জীবিকা নির্বাহ এবং পিছিয়ে পড়া নারী, যুবসমাজ এবং বঞ্চিত মানুষের জন্য সুযোগ তৈরি করে।

ইউএসএআইডি: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ইউএসএআইডি ১৯৭১ সাল থেকে বাংলাদেশে ৭ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি উন্নয়ন সহায়তা প্রদান করেছে। ২০১৮ সালে, ইউএসএআইডি খাদ্য নিরাপত্তা এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নকে প্রসারিত করা, স্বাস্থ্যগত উন্নয়নসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষের জীবন উন্নতির জন্য প্রায় ২১৯ মিলিয়ন ডলার প্রদান করেছে। শিক্ষা, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা অনুশীলন প্রচার, পরিবেশ রক্ষা, এবং জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য অভিযোযন বৃদ্ধি ইত্যাদি ইউএসএআইডি’র কার্যক্রমের অংশ।

180 ভিউ

Posted ৭:৩৬ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২৯ আগস্ট ২০২২

coxbangla.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

Editor & Publisher

Chanchal Dash Gupta

Member : coxsbazar press club & coxsbazar journalist union (cbuj)
cell: 01558-310550 or 01736-202922
mail: chanchalcox@gmail.com
Office : coxsbazar press club building(1st floor),shaheed sharanee road,cox’sbazar municipalty
coxsbazar-4700
Bangladesh
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ABOUT US :

coxbangla.com is a dedicated 24x7 news website which is published 2010 in coxbazar city. coxbangla is the news plus right and true information. Be informed be truthful are the only right way. Because you have the right. So coxbangla always offiers the latest news coxbazar, national and international news on current offers, politics, economic, entertainment, sports, health, science, defence & technology, space, history, lifestyle, tourism, food etc in Bengali.

design and development by : webnewsdesign.com