বৃহস্পতিবার ২০শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

বৃহস্পতিবার ২০শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

বিশ্বব্যাপী তারকা বনে যাওয়া কে এই আইসক্রিমওয়ালা ?(ভিডিও সহ)

মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২১
168 ভিউ
বিশ্বব্যাপী তারকা বনে যাওয়া কে এই আইসক্রিমওয়ালা ?(ভিডিও সহ)

কক্সবাংলা ডটকম(২১ ডিসেম্বর) :: আইসক্রিম অপছন্দ, এমন মানুষ পাওয়া কঠিন। বিশ্বজুড়েই ছেলে-বুড়ো সবার পছন্দের শীর্ষে আছে আইসক্রিম।

তবে এটি খেতে গিয়ে যদি নাচতে হয়, অনেকেই হয়তো ইতস্তত করবেন। অবশ্য তাতে পরোয়া নেই তুরস্কের এক আইসক্রিম বিক্রেতার।

বরং ক্রেতাদের নাচতে ‘বাধ্য করে’ রীতিমতো তারকা বনে গেছেন ‘সিলগিন ডন্ডুরমাজে’ বা ‘খ্যাপাটে আইসক্রিমওয়ালা’ নামের দোকানটির মালিক।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে তার আইসক্রিম বিক্রির বিভিন্ন ভিডিও। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এই নাচের কৌশল অনুসরণ করে ভিডিও তৈরির জোয়ারও বইছে।

নাচের তালে আইসক্রিম বিক্রির কৌশল শিখিয়ে বিশ্বব্যাপী ঝড় তোলা এই আইসক্রিম বিক্রেতার নাম মেহমেট ডিঞ্চ। মেহমেট পেশায় আইসক্রিম বিক্রেতা হলেও তাকে নাচিয়ে আর গায়ক বললেও কোনো ভুল হবে না।

১৯৮২ সালে তুরস্কের হাটেয় প্রদেশের আন্টাকিয়াতে জন্ম মেহমেট ডিঞ্চের। শৈশবটা কোনো রকম কাটলেও দুরন্ত কৈশোরের সময়টা মোটেও সুখকর ছিল না। মাত্র ১৬ বছর বয়সে টিকে থাকার লড়াই তাকে নিয়ে যায় ইউরোপের দেশ সাইপ্রাসে। সেখানে শুরু হয় নির্মাণশ্রমিকের জীবন।

শৈশব থেকেই নাচের প্রতি ঝোঁক ছিল মেহমেটের। সাইপ্রাসে প্রবাস জীবনে কাজের ফাঁকে এক-আধটু নাচের চর্চাও চলত, ঝালিয়ে নেয়ার চেষ্টা করতেন নিজেকে। তবে মেহমেট ওই সময়ে নাচ দিয়ে কারও নজর কাড়তে ব্যর্থ হন।

সাইপ্রাসের সাত বছরের প্রবাস জীবন শেষে, যেটুকু সঞ্চয় তা নিয়ে ফেরেন তুরস্কের নিজ শহরে। এরপর আন্টাকিয়ার লারায় শুরু হয় আইসক্রিম বিক্রির পেশা। পর্যটনের জন্য তুরস্কের খ্যাতি বিশ্বজোড়া। আন্টাকিয়া শহরেও আছে ভ্রমণপিয়াসীদের আনাগোনা। এই সুযোগটাই নিতে চাইলেন মেহমেট।

তবে ব্যবসার শুরুটা একদমই ছিল পানসে। এমন অবস্থায় আইসক্রিম বিক্রির নতুন কৌশল নিয়ে ভাবতে শুরু করেন এই তরুণ।

নেচে-গেয়ে মাত করা কে এই আইসক্রিমওয়ালা?
বিশ্বব্যাপী ঝড় তোলা এই আইসক্রিম বিক্রেতা মেহমেট ডিঞ্চ

তুরস্কের মোস্তফা কামাল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিজনেস ইনফরমেটিকসে পড়াশোনা করা মেহমেট বদলে ফেলেন আইসক্রিম বিক্রির ধরন। দোকানে আসা ক্রেতাদের আইসক্রিম পরিবেশনের ফাঁকে শুরু হয় নৃত্য। একপর্যায়ে ক্রেতাদেরও আমন্ত্রণ জানান নাচের অংশীদার হতে। এই নাচের ভিডিও ভাইরাল হতে শুরু করলে তারকা বনে যান মেহমেট। সেই সঙ্গে এখন দারুণ জমজমাট তার ব্যবসা।

মাস তিনেক আগের কথা। টার্কিশ ইউটিউবার মুয়াজ কালাইজের চ্যানেল ‘টেল মি’তে অতিথি হিসেবে আসেন মেহমেট ডিঞ্চ। সেটি ছিল তার প্রথম ভিডিও সাক্ষাৎকার। সেখানে নিজের তারকা হয়ে ওঠার পেছনের গল্প শোনান মেহমেট।

এই তরুণ জানান, নেচে-গেয়ে আইসক্রিম বিক্রির আইডিয়াটি মাথায় আসে করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর আগে। তবে এখন থেকে প্রায় ৯ মাস আগে এগুলোর ভিডিও ভাইরাল হয়।

মেহমেটের নিজের একটি গান আছে, ‘কালবিমসিন’। গেয়েছেন নিজেই। সেই গানের ছন্দে নেচে-গেয়ে আইসক্রিম বিক্রি করেন তিনি। ক্রেতাদের সঙ্গে তার নাচের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। কোরিওগ্রাফির কারণে ওইসব ভিডিও ভাইরাল হতে সময় লাগেনি।

আইসক্রিম পার্লারে আসা ক্রেতারাও দারুণ উপভোগ করছেন বিষয়টি। আইসক্রিম খাওয়ার পাশাপাশি মেহমেটের সঙ্গে দেখা করার সুযোগটিও নিতে চান অনেকে।

‘সিলগিন ডন্ডুরমাজে’তে প্রতিদিন ছয় থেকে সাত হাজার মানুষ আসছেন বলে জানিয়েছেন মেহমেট। ‘টেল মি’তে তিনি বলেন, ‘আইসক্রিম খাওয়া, আমার সঙ্গে দেখা করা এবং নাচতে আসছেন অসংখ্য ক্রেতা।’

তার নাচের ভিডিও বিভিন্ন দেশে পেয়েছে দারুণ জনপ্রিয়তা। বিশেষ করে দুবাই, কাতার, ওমানে অসংখ্য অনুসারী তৈরি হয়েছে। এখন সেই অনুসারীদের কাছে সরাসরি পৌঁছানোর ছক কষছেন মেহমেট। দুবাইতেও ‘সিলগিন ডন্ডুরমাজে’-এর শাখা খোলার চিন্তাভাবনা চলছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘দ্য ক্রেজি আইসক্রিম ম্যান’ মেহমেটের অনুসারীর সংখ্যাটাও চমকে ওঠার মতো। ইউটিউবে তার ফলোয়ার আছে ১১ লাখ ৬০ হাজার। ইনস্টাগ্রামে সেই সংখ্যা ১১ লাখ। ভিডিও শেয়ারিং ‘টিকটক’ প্ল্যাটফর্মে মেহমেটের অনুসারী ১৬ লাখ ৪০ হাজার।

নেচে-গেয়ে মাত করা কে এই আইসক্রিমওয়ালা?

মেহমেটের ‘কালবিমসিন’ গানটি গুগল ট্রান্সলেটরের সাহায্যে টার্কিশ ভাষা থেকে ইংরেজিতে রূপান্তরের পর সেটির বাংলা অনুবাদ কক্সবাংলা’র পাঠকদের জন্য দেয়া হলো:

Kanmam başka suratlara

Varsan sen yanımda yeter

Dudakların ilaç bana

Yaklaşsana yanıma

কারও মুখের মায়ায় ভুল করি না

তুমি সঙ্গে আছ আমার, এটাই শুধু চাওয়া

তোমার ঠোঁট আমার রোগ সারিয়ে দেয়

তুমি এসো কাছে আমার

Dönsek yine bahara seninle

Çimenler kaplı zeminde

Kırmızı gül bahçelerinde

Kalbimin en, en derininde

তোমায় নিতে চাই বসন্তের দিনে

ঘাসে ঢাকা সেই মাটিতে

লাল গোলাপের বাগানে

মনের গভীর থেকে আরও গভীরে

Elimi tut sıkı sıkı

Bırakma hiç sakın, sakın

Sevemem kimseyi sen gibi

Kalbime aşkın akın akın

আমার হাতটি ধরো আরও জোরে

ছেড়ে দিও না কোনো দিন, কোনো দিনও

তোমার মতো ভালোবাসা আর পাব না

তোমায় ছাড়া থেমে যাবে প্রেমের ধারা

Bize yeterli bi’ kapı

İki oda, bi’ de çatı

Sende kalsın anahtarı

Sevemem kimseyi sen gibi

এক দরোজার একটি ঘরই

দুটি রুম আর একটি ছাদ

চাবিটি তোমার কাছে থাক

তোমার মতো ভালোবাসা আর পাব না

Sevemem kimseyi sen gibi

Sevemem kimseyi sen gibi, ah

তোমার মতো কাউকে ভালোবাসতে আমি পারব না

তোমার মতো কাউকে ভালোবাসতে চাই না

168 ভিউ

Posted ১১:৩৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২১

coxbangla.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

Archive Calendar

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

Editor & Publisher

Chanchal Dash Gupta

Member : coxsbazar press club & coxsbazar journalist union (cbuj)
cell: 01558-310550 or 01736-202922
mail: chanchalcox@gmail.com
Office : coxsbazar press club building(1st floor),shaheed sharanee road,cox’sbazar municipalty
coxsbazar-4700
Bangladesh
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ABOUT US :

coxbangla.com is a dedicated 24x7 news website which is published 2010 in coxbazar city. coxbangla is the news plus right and true information. Be informed be truthful are the only right way. Because you have the right. So coxbangla always offiers the latest news coxbazar, national and international news on current offers, politics, economic, entertainment, sports, health, science, defence & technology, space, history, lifestyle, tourism, food etc in Bengali.

design and development by : webnewsdesign.com