শুক্রবার ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

শুক্রবার ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

“স্যার-লিডার” প্লিজ আপনাদের গাড়িতে আমাকে নিয়ে যান, না হয় ওরা মেরে ফেলবে

সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২
351 ভিউ
“স্যার-লিডার” প্লিজ আপনাদের গাড়িতে আমাকে নিয়ে যান, না হয় ওরা মেরে ফেলবে

কক্সবাংলা রিপোর্ট :: “স্যার প্লিজ প্রয়োজনে আমার হাতে হ্যান্ডকাফ পড়িয়ে এখান থেকে নিয়ে যান,লিডার আমাকে আপনাদের গাড়িতে করে কক্সবাজার পর্যন্ত নিয়ে যান, না হয় ওরা আমাকে মেরে ফেলবে!” এই আর্জিটি করেছিল সন্ত্রাসীদের হাতে ৩ জুলাই প্রকাশ্যে খুন হওয়া কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার সহসভাপতি ফয়সাল উদ্দিন(২৩) এর। বিপদে পড়লে পুলিশের বা দলীয় নেতাদের সহযোগীতা চাইবে এটাই স্বাভাবিক।

প্রায় দু’ঘন্টা ফয়সাল তাদের সহযোগিতা চেয়েছিলো।  কিন্তু কেউই রহস্যজনক কারণে তাকে সাহায্য করেনি। তাই শেষ পরিণতি সবার সামনে নৃশংস খুন। তবে ঘটনার পর থেকে ৬ কিলোমিটার দুরে কক্সবাজার শহরে ব্যাপক মিছিল-মিটিং প্রতিবাদ চলছে। কিন্তু ঘটনাস্থল সদরের ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ডেইলপাড়ায় এটা কেউ বাধা দিতে সাহস পায়নি। অথচ সে জায়গায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলন চলছিল।  ফয়সালকে প্রকাশ্যে হত্যার ঘটনায় স্থানীয় এবং দলীয় নেতা কর্মীদের মধ্যে চরম ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

ফেসবুকে একজন ক্ষোভ প্রকাশ করে লেখেন,“কক্সবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের কাছে ফয়সাল বাঁচার জন্য সহযোগিতা চাইলেও কোন সহযোগিতা পায়নি,তারা যদি ফয়সালকে নিজেদের গাড়িতে করে নিয়ে আসতো তাহলে ছাত্রলীগের একটি তাজা প্রাণ বেঁচে যেতো। একই নেতারা হাসপাতালে পুলিশের হাতে ছাত্রলীগকে মার খাওয়ালো। দুঃখজনক ও লজ্জা!! এমন নেতাদের আওয়ামী লীগ থেকে পদত্যাগ এর দাবি জানাই।”

জানা যায়,৩জুলাই রোববার সন্ধ্যায় কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুলে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলন শেষ করে বাড়িতে ফেরার পথে ফয়সাল উদ্দিন ( ২৬) ফয়সাল খুন হন।

স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, পুলিশের উপস্থিতিতেই আজীজ সিকদারসহ সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে ফয়সালকে হত্যা করেছে।

রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ডেইলপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।এ সময় পুলিশও দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হয়েছেন। আহত হয়েছেন সিএনজি যাত্রী, পুলিশ ও স্থানীয় ইউপি সদস্য। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

নিহত ফয়সাল উদ্দিন খুরুশকুল ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ ডেইলপাড়া দরগার ডেইল এলাকার লাল মোহাম্মদের ছেলে এবং কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ কক্সবাজার জেলা শাখার সহসভাপতি।

হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে এবং সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে শহরের প্রধান সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জেলা ছাত্রলীগ।

বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেওয়া জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান বলেন, পুলিশের উপস্থিতিতেই ছাত্রলীগের নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।নিহত ফয়সাল উদ্দিন কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীর উল গীয়াস বলেন, পূর্বশত্রুতার জের ধরে সন্ত্রাসীরা ফয়সাল উদ্দিনের ওপর হামলা চালিয়েছে।পুলিশ যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে ছাত্রলীগ নেতাকে বাঁচাতে। এমনকি পুলিশ ১৬ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়েও হত্যাকারীদের নিবৃত্ত করতে পারেনি। সন্ত্রাসীদের ধরতে এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

May be an image of 9 people, people standing, fire and outdoors

খুরুশকুল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জসিম উদ্দিন জানান, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ফয়সাল। এ সময় স্থানীয় বিএনপি নেতা আজিজ সিকদারের নেতৃত্বে কিছু উচ্ছৃঙ্খল ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র নিয়ে সম্মেলনস্থলে ঢুকে পড়ে। অস্ত্রধারীরা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফয়সালকে সম্মেলনস্থল থেকে তুলে নিতে চাইলে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

তিনি আরো জানান, কক্সবাজার সদর থানার উপসহকারী পরিদর্শক রায়হানের নেতৃত্বে পুলিশের দল সেখানে উপস্থিত হয়। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতারা দুর্বৃত্ত দলের হামলা থেকে রক্ষার জন্য পুলিশের গাড়িতে ফয়সালকে তুলে নিতে অনুরোধ জানান। কিন্তু পুলিশ তা না করে একটি সিএনজি ট্যাক্সিতে তুলে দেয় ফয়সালকে। পেছনে পুলিশের গাড়ি এবং ফয়সালকে বহনকারী ট্যাক্সিটি হত্যাকারীদের ঘরের সামনে আসা মাত্রই ২০ থেকে ২৫ জনের অস্ত্রধারী দুর্বৃত্ত দল সিএনজি ট্যাক্সিতে হামলা শুরু করে দেয়।

গুরুতর আহত ফয়সালসহ আরো কয়েকজনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। তাঁর মরদেহ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন আরো তিনজন। তার মধ্যে রমজান আলী নামের আরো একজন ছাত্রলীগ নেতার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানা গেছে।

এদিকে রোববার রাত ১০টায় কক্সবাজার  জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সামনে হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে এবং সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের অবস্থান নিতে দেখা যায়।

অপরদিকে ছাত্রলীগ নেতা ফায়সাল উদ্দীন হত্যার প্রধান হোতা আজিজকে লিংকরোড থেকে সোমবার গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১৫।

May be an image of 1 person, beard and standing

 

 

351 ভিউ

Posted ২:২৬ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২

coxbangla.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

Archive Calendar

রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  

Editor & Publisher

Chanchal Dash Gupta

Member : coxsbazar press club & coxsbazar journalist union (cbuj)
cell: 01558-310550 or 01736-202922
mail: chanchalcox@gmail.com
Office : coxsbazar press club building(1st floor),shaheed sharanee road,cox’sbazar municipalty
coxsbazar-4700
Bangladesh
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ABOUT US :

coxbangla.com is a dedicated 24x7 news website which is published 2010 in coxbazar city. coxbangla is the news plus right and true information. Be informed be truthful are the only right way. Because you have the right. So coxbangla always offiers the latest news coxbazar, national and international news on current offers, politics, economic, entertainment, sports, health, science, defence & technology, space, history, lifestyle, tourism, food etc in Bengali.

design and development by : webnewsdesign.com