শনিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

শনিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

৭৩ বছর বয়সে অবশেষে ব্রিটেনের রাজা হলেন চার্লস

শুক্রবার, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
72 ভিউ
৭৩ বছর বয়সে অবশেষে  ব্রিটেনের রাজা হলেন চার্লস

কক্সবাংলা ডটকম :: রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের বড় ছেলে চার্লস, প্রিন্স অফ ওয়েলস, অবশেষে ব্রিটেনের রাজা হয়েছেন। কিন্তু ৭৩ বছর বয়সে, তার রাজত্বের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে তাঁর বয়স এবং বিশ্বজুড়ে ব্রিটিশ রাজতন্ত্রের ক্ষয়িষ্ণু প্রভাব।

চার্লস কার্যত তার পুরো জীবন উত্তরাধিকারী হিসাবে কাটিয়েছেন এবং নিজের কাজের মধ্য দিয়ে একজন পরিচিত ব্যক্তিত্ব হয়ে উঠেছেন।

এমনকি যখন বেশিরভাগ লোক অবসর গ্রহণ করেছেন এমন বয়সে তিনি একটি নতুন চাকরিও শুরু করেন। কিন্তু তার মা যে নিরপেক্ষতা দেখেছেন তার সম্পূর্ণ বিপরীতে দাঁড়িয়ে তিনি মাঝে মাঝেই দৃঢ়ভাবে নিজের ধারনার পক্ষে মতামত দিয়ে বিতর্কের মুখোমুখি হয়েছেন। এই ঘটনা তাঁকে আরও স্পষ্টবাদী এবং বিভাজনকারী ব্যক্তিত্বে পরিণত করেছে।

রাজকুমারী এলিজাবেথ যখন ২৫ বছর বয়সে রানী হয়েছিলেন তখন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়া ব্রিটেনে ব্যাপক জনপ্রিয় সমর্থন পান তিনি। অন্যদিকে জনসাধারণ চার্লস সম্পর্কে তাদের মতামত তা ভাল হোক অথবা খারাপ,তৈরি করতে কয়েক দশক পেয়েছে।

২০২২ সালের মে মাসে একটি YouGov-এর পোলে দেখা গিয়েছে চার্লসের ৫৬ শতাংশ অনুমোদনের রেটিং ছিল।চার্লসের আগে ছিলেন রানী।

তাঁর অনুমোদন রেটিং ছিল ৮১ শতাংশ। অন্যদিকে চার্লসের বড় ছেলে প্রিন্স উইলিয়ামের রেটিং ছিল ৭৭ শতাংশ এবং উইলিয়ামের স্ত্রী ক্যাথরিনের রেটিং ছিল ৭৬ শতাংশ। ছার্লসের সকলের তুলনায় অনেকটাই পিছনে ছিলেন।

চার্লসের দ্বিতীয় স্ত্রী ক্যামিলা ৪৮ শতাংশ রেটিং নিয়ে অন্যদের তুলনায় অনেকটা পিছিয়ে ছিলেন।

২০২১ সালের এপ্রিলে তার বাবা প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যু এবং তার মায়ের স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ার পর থেকে, চার্লস লক্ষণীয়ভাবে আরও বেশি দৃশ্যমান হয়েছেন জনসমক্ষে। ক্যামিলা, ছোট ভাই এডওয়ার্ড, উইলিয়াম এবং কেটকে সঙ্গে তার চারপাশে একটি অভ্যন্তরীণ শক্ত বৃত্ত তৈরি করেছে।

রাজপরিবারের লেখক ফিল ড্যাম্পিয়ার বলেন, ‘যাই ঘটুক না কেন, তিনি দীর্ঘদিন রাজত্ব করতে যাচ্ছেন না এবং এটি তার পক্ষে কঠিন হবে’। তিনি আরও বলেন, ‘তবে তিনি নিজে এটি দীর্ঘদিন ধরে জানেন এবং আমি মনে করি লোকেরা এখন ভবিষ্যতের জন্য উইলিয়াম এবং কেটকে দেখতে শুরু করবে’।

রানি ক্যামিলা

১৯৪৮ সালের ১৪ নভেম্বর জন্ম হয় চার্লসের। তিন বছর তিন মাস বয়সে সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হন তিনি। ১৯৭০ এর দশকে তার প্রথম সরকারি কাজ শুরু হয় এবং উত্তরাধিকারী হিসাবে, তার ভূমিকা ছিল প্রাথমিকভাবে ‘জাতীয় গর্ব, ঐক্য এবং আনুগত্যের কেন্দ্রবিন্দু হিসাবে তার ভূমিকায়’ তার মাকে সমর্থন করা।

তিনি তার পক্ষ থেকে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের স্বাগত জানিয়েছেন, রাষ্ট্রীয় নৈশভোজে অংশ নিয়েছেন, ১০০ টিরও বেশি দেশে রানীর প্রতিনিধি হিসেবে ভ্রমণ করেছেন এবং তার নামে সম্মান প্রদান করেছেন।

১৯৮১ সালে লেডি ডায়ানা স্পেন্সারের সঙ্গে তার বিবাহের জন্যই নয় বরং ১৯৯০-এর দশকে তাদের বিবাহবিচ্ছেদের জন্যও বিশ্ব তাকে চেনে।

কিছু মানুষের মনে তাঁর বিরুদ্ধে জনমত তৈরি হলেও, ক্যামিলার সঙ্গে তাঁর বিয়ের পর থেকে অনেকাংশে সেই বিরুদ্ধ জনমত হ্রাস পেয়েছে।

সাস্টেনেবিলিটি, বিকল্প চিকিৎসা এবং বাগানের সমর্থক চার্লস একবার উদ্ভিদের সঙ্গে কথা বলার বিষয়টি স্বীকার করেন। ২০০৭ সাল থেকে চার্লস তার নিজস্ব কার্বন পদচিহ্ন প্রকাশ করেছেন।

তিনি প্রিন্স ট্রাস্ট সহ ৪২০ টিরও বেশি দাতব্য সংস্থার প্রধান অথবা তাদের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। ১৯৭৬ সালে তৈরি হওয়ার পর থেকে দশ লক্ষেরও বেশি তরুণকে সাহায্য করেছে।

কিন্তু সাম্প্রতিক মাসগুলিতে তার প্রাক্তন সিনিয়র সহকারীরা অনুদান নিয়ে কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়েছেন এবং পুলিস তদন্ত শুরু হয়েছে। চার্লসের দ্বিতীয় স্ত্রী, ক্যামিলা, ডাচেস অফ কর্নওয়ালকে কী উপাধি দেওয়া উচিত তা নিয়ে ২০২২ সালে রানী সব জল্পনার অবসান ঘটিয়েছিলেন। তাত্ত্বিকভাবে, তিনি সর্বদা রাজার সহধর্মিণী হয়ে উঠতেন।

কিন্তু ক্যামিলা, যিনি ২০০৫ সালে একটি অনুষ্ঠানে চার্লসকে বিয়ে করেছিলেন। ১৯৯৭ সালে মৃত্যু হওয়া ডায়ানার সঙ্গে সম্পর্ক থাকায় ওয়েলসের রাজকুমারী উপাধি গ্রহণ না করা সিদ্ধান্ত নেন।

পরিবর্তে, তিনি বলেছিলেন যে তিনি “রাজকুমারী স্ত্রী” হতে চেয়েছিলেন। এই ঘটনা ব্রিটিশ ইতিহাসে প্রথম। কিন্তু রানী সিংহাসনে তার ৭০ তম বছর উদযাপনের সময় একটি বার্তায় বলেছিলেন যে এটি তার ‘আন্তরিক ইচ্ছা’ ছিল যখন চার্লস রাজা হবেন তখন ক্যামিলাকে রাজার সহধর্মী হিসাবে পরিচিত হওয়া উচিত।

রাজা তৃতীয় চার্লস

ল্যাটিন ম্যাক্সিম “রেক্স নুনকুয়াম মরিতুর” এর সঙ্গে সঙ্গতি রেখে রাজপদে কোনও অন্তর্বর্তীকাল নেই এবং যোগদান অবিলম্বে হয়। এই ল্যাটিন কথার অর্থ রাজার কখনই মৃত্যু হয় না।

তিনি কোন নামটি বেছে নেবেন তা নিয়ে বছরের পর বছর ধরে অনেক জল্পনা-কল্পনা চলছে। চার্লস ফিলিপ আর্থার জর্জ এই চারটি থেকে বেছে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। যদিও এই কাজের জন্য তার কোন বাধ্যবাধকতা নেই, তবে তিনি সম্ভবত তৃতীয় চার্লস হিসেবেই পরিচিত হবেন।এর ফলে ১৬৮৫ সাল থেকে ব্রিটিশ সিংহাসনে বসা এই নামের প্রথম রাজা করবে।

রাজপরিবারের লেখক বব মরিস বলেন যে তিনি এখনও একটি বিস্ময় কাজ করতে পারেন তবে তার কোনও সম্ভাবনা নেই। তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করি যে তিনি সম্ভবত চার্লস নামের সঙ্গে থাকবেন এবং তিনি একটি দ্রুত এবং একটি ছোট রাজ্যাভিষেক পছন্দ করবেন’।

এই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে যখন অ্যাকসেসন কাউন্সিল, একটি আনুষ্ঠানিক সংস্থা যা একজন রাজার মৃত্যুতে মিলিত হয়, মধ্য লন্ডনের সেন্ট জেমস প্রাসাদে তাকে রাজা ঘোষণা করবে।

রাজ্যাভিষেক বহু শতাব্দীর ঐতিহ্যমণ্ডিত একটি অনন্য অনুষ্ঠান। রাণীর মৃত্যুর তাৎক্ষণিক ধাক্কা কেটে গেলে, আগামী সপ্তাহএর মধ্যে এই কাজ হওয়া উচিত। তার পিতা রাজা ষষ্ঠ জর্জের মৃত্যুতে তাকে রানী ঘোষণা করার প্রায় ১৬ মাস পর ১৯৫৩ সালের জুন মাসে রানী নিজে এই মুকুট পরেছিলেন। সেই সময় প্রায় ৮,২৫০ জন মানুষ তার রাজ্যাভিষেক দেখার জন্য ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে ভিড় করে এবং আরও লক্ষ লক্ষ মানুষ টেলিভিশনে সেই ঘটনা প্রত্যক্ষ করেন।

72 ভিউ

Posted ৪:৩১ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

coxbangla.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

Editor & Publisher

Chanchal Dash Gupta

Member : coxsbazar press club & coxsbazar journalist union (cbuj)
cell: 01558-310550 or 01736-202922
mail: chanchalcox@gmail.com
Office : coxsbazar press club building(1st floor),shaheed sharanee road,cox’sbazar municipalty
coxsbazar-4700
Bangladesh
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

ABOUT US :

coxbangla.com is a dedicated 24x7 news website which is published 2010 in coxbazar city. coxbangla is the news plus right and true information. Be informed be truthful are the only right way. Because you have the right. So coxbangla always offiers the latest news coxbazar, national and international news on current offers, politics, economic, entertainment, sports, health, science, defence & technology, space, history, lifestyle, tourism, food etc in Bengali.

design and development by : webnewsdesign.com