কক্সবাজারের সোনাদিয়া চরে ভেসে আসা জাহাজের লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার

jahaj-sndia.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক(১৩ জুন) :: কক্সবাজার উপকূলে সাগরে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার মধ্যে মহেশখালীর সোনাদিয়া দ্বীপের চরে আটকা পড়ে একটি বিশাল জাহাজ। ঝড়ের কবলে পড়ে দুর্ঘটনাজনিত কারণে জাহাজটি সাগরের সোনাদিয়া দ্বীপ সংলগ্ন ডুবোচরে এসে ভিড়ে।ক্রু এবং লোকজনহীন জাহাজে ছিল তেলভর্তি বেশ কিছু তেল ভর্তিড্রাম ও লাইফ জ্যাকেট সহ প্রচুর প্রয়োজনীয় মালামাল।

এটি তীরে ভেড়ার খবর পেয়ে সোমবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি সোনাদিয়া দ্বীপের দু’গ্রুপ জলদস্যু জাহাজটিতে উঠে লুটপাট চালায়। যে যার মতো তেলভর্তি ড্রাম, লাইফ জ্যাকেট ও অন্যান্য মালামাল লুট করে বাড়িতে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে মহেশখালী থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফররুখ আহমদ মিনহাজ ও এস আই রাজু আহমদ গাজী মঙ্গলবার ঘটনাস্থলে পৌঁছে বলেন,সোমবার সন্ধ্যায় জাহাজটি সোনাদিয়া চরে আটকে যাওয়ার খবর আসে। কিন্তু এক দিকে বিচ্ছিন্ন দ্বীপ অপরদিকে বৈরী আবহাওয়ার কারণে ঘটনাস্থলে যাওয়া সম্ভব হয়নি।পরদিন মঙ্গলবার সকাল থেকে চেষ্টার পর দুপুরে জাহাজ আটকা পড়া স্থানে পৌঁছে পুলিশ।

তারা আরও বলেন, জাহাজে উঠে দেখা যায়, এতে ক্রো বা অন্য কোনো লোকজন নেই। মনে হচ্ছে এটি বাণিজ্যিক পণ্যবাহী জাহাজ। জাহাজের গায়ে লেখা ও অন্যান্য সরঞ্জাম দেখে মনে হচ্ছে এটি কোরিয়ান কোনো জাহাজ।জাহাজটিতে কোন লোকজনকে দেখতে না পেয়ে সোনাদিয়া দ্বীপের পূর্ব পাড়া ও পশ্চিম পাড়ার লোকজন জাহাজে গিয়ে লুটপাট শুরু করে। এ সময় জাহাজের বেশ কিছু মূল্যবান জিনিসপত্র লুট হয়ে যায়।

এ রকম খবর পেয়েই মঙ্গলবার সোনাদিয়া দ্বীপে লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারে ওই এলাকায় বাড়ি বাড়ি অভিযান চালায় পুলিশ। লুট হওয়া বেশ কিছু তেল ও অন্যান্য পণ্য উদ্ধার করে স্থানীয় মেম্বারের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। তবে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। উদ্ধার করা মালামালের মধ্যে রয়েছে ২টি ফ্রিজ, ৫টি চেয়ার, ২০ টি লাইফ জ্যাকেট ও ৫ ড্রাম তেল।বর্তমানে কোস্টগার্ড জাহাজটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

সোনাদিয়া দ্বীপের স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, জাহাজ থেকে প্রচুর পরিমাণের মূল্যবান সামগ্রী লুট করেছে সোনাদিয়া দ্বীপের দু’গ্রুপ জলদস্যুর দল। লুণ্ঠিনকারীদের মধ্যে সন্ধ্যায় কয়েক দফা সংঘর্ষ এবং গোলাগুলির ঘটনাও ঘটে। কিন্তু পুলিশ যাবার আগেই দস্যুরা লুণ্ঠিত মালামাল সোনাদিয়া থেকে সরিয়ে নিয়েছে।ক্রু ও লোকজনহীন হওয়ায় জাহাজটি কোনো শিপ ব্রেকিং থেকে চলে এসেছে বলে প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri