সামরিক শক্তিতে চিনের থেকে কতটা শক্তিশালী ভারত ?

ind-china-power.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(১ জুলাই) :: এশিয়ার দুই পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্র এই মুহূর্তে সীমান্ত নিয়ে তীব্র বিতর্কে জড়িয়ে৷ ১৯৬২সালের যুদ্ধের সম্ভাবনাকে উসকে চিন ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে৷ পাল্টা ভারতের অবস্থান আরও কড়া৷ দুই যুযুধান দেশের সামরিক শক্তি নিয়ে চলছে তুল্যমূল্য আলোচনা৷ পরিসংখ্যান বলছে-

চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি এয়ারফোর্সের কাছে মোট ২,৯৫৫ এয়ারক্রাফট রয়েছে৷ এর মধ্যে ১,২৭১টি ফাইটার এয়ারক্রাফট, ১,৩৮৫টি অ্যাটেক এয়ারক্রাফট, ৭৮২টি ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফট, ৩৫২টি ট্রেনার এয়ারক্রাফট, ২০৬টি অ্যাটেক হেলিকপ্টারসহ মোট ৯১২টি হেলিকপ্টার রয়েছে৷

অন্যদিকে ভারতের কাছে রয়েছে ৬৭৬টি ফাইটার এয়ারক্রাফট, ৮০৯টি অ্যাটেক এয়ারক্রাফট, ৮৫৭টি ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফট, ৩২৩টি ট্রেনার এয়ারক্রাফট, ১৬টি অ্যাটেক হেলিকপ্টারসহ ৬৬৬টি হেলিকপ্টার রয়েছে৷ এর মধ্যে যদি ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফট বাদ দিয়ে দেওয়া হয়, তাহলে চিন ভারতের থেকে সব বিষয়েই এগিয়ে রয়েছে৷

চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি গ্রাউন্ড ফোর্সের কাছে রয়েছে ৬,৪৫৭টি যুদ্ধ ট্যাংক, ৪,৭৮৮টি সাঁজোয়াযুক্ত যুদ্ধ যান, ১,৭১০টি স্বয়ংক্রিয় বাহন, ১,৭৭০টি রকেট প্রোজেক্টর৷

অন্যদিকে ভারতের কাছে রয়েছে ৪,৪২৬টি যুদ্ধ ট্যাংক, ৬,৭০৪টি সাঁজোয়াযুক্ত যুদ্ধ যান, ২৯০টি স্বয়ংক্রিয় বাহন এবং ২৯২টি রকেট প্রোজেক্টর৷ এক্ষেত্রেও চিন ভারতের থেকে এগিয়ে৷

চিনের পিপলস্ লিবারেশন আর্মি নেভির (PLAN) কাছে একটি এয়ারক্রাফট কেরিয়ার, ৫১টি রণতরী, ১১টি ডেস্ট্রয়ার, ২৩টি যুদ্ধজাহাজ, ১৫ সাবমেরিন, ১৩৯টি পেট্রোল ক্রাফট এবং ৬টি মাইন ওয়ারফেয়ার শিপ৷

তবে এই এয়ারক্রাফটের বিষয়ে ভারত কিন্তু চিনের থেকে এগিয়ে রয়েছে৷

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri