izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

নীল আমস্ট্রংয়ের ‘মুন ব্যাগ’ ১৮ লক্ষ ডলারে বিক্রি

Apollo-11-astronaut-Buzz-Aldrin-standing-on-moon-with-astronaut-Neil-Armstrong.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২২ জুলাই) :: নীল আমস্ট্রংয়ের ‘মুন ব্যাগ’ বিক্রি হচ্ছে মাত্র ১.৮মিলিয়ন ডলারে৷ একসময় বাতিলের খাতায় নাম লিখিয়েছিল এই ব্যাগটি৷ সেই দুর্মূল্য ‘লুনার স্যাম্পল রিটার্ন’ লেখা ব্যাগটিরই নিলামে দাম উঠল ১৮লক্ষ ডলারে৷

সালটা ১৯৬৯৷ প্রথম চাঁদের মাটিতে পা রেখেছিলেন নীল আমস্ট্রং৷ তাঁর সঙ্গে ছিল এই ব্যাগটি৷ সেই ব্যগটি করেই চাঁদের মাটি থেকে নিয়ে এসেছিলেন একমুঠো মাটি আর কিছু পাথরের টুকরো৷ মূলত পরীক্ষা নিরীক্ষা করার জন্যই নিয়ে আসা হয়েছিল সেটি৷ আজ সেই অ্যাপোলো ১১-এ চেপে চাঁদে যাওয়ার ৪৮বছর পূরণ হল৷

আর সেই দিনটির স্মরণেই এই বিশেষ ব্যাগটি বিক্রি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ পাঁচ মিনিট ধরে চলে এই নিলাম৷ টেলিফোনে এক ব্যক্তি এই ব্যাগটি কিনেছেন৷ যদিও তাঁর নাম পরিচয় সবটাই গোপন রাখা হয়েছে৷

তবে, এর আগে এই ব্যাগটির মালিক ছিলেন একজন আইনজীবী৷ যিনি ২০১৫সালে ৯৯৫ডলারের বিনিময়ে এই বিশেষ ব্যাগটি কিনেছিলেন৷ অ্যাপোলো ১১ যখন চাঁদের মাটি থেকে পৃথিবীতে পা রাখে৷ সেই সময় এই মিশনের সমস্ত যন্ত্রপাতি রাখা হয় স্মিথসোনিয়ান যাদুঘরে৷ যেটি বিশ্বের সবথেকে বড় যাদুঘর৷ কিন্তু ভুলবশত এই বিশেষ ব্যাগটি জনসন স্পেস সেন্টারেই থেকে যায়৷ পরে এক স্পেসে কর্মরত এক কর্মীর বিষয়টি নজরে আসে৷ কিন্তু ভুলবশত এফবিআই সেটিকে বাজেয়াপ্ত করে৷

যদিও পরে ভুল বুঝতে পারে নাসা৷ ২০১৬সালে পরীক্ষা করে জানা যায়, যে এটি অ্যাপোলো ১১-এর মিশনের চাঁদেরই মাটি৷ নাসা ব্যাগটি পরে ফেরত পেতে চাইলে আদালত রায় দেয় যে, এই ব্যাগটির মালিক ওই আইনজীবীই৷ যদিও ব্যাগটি কেনার এক বছরের মাথাতেই ব্যাগটি বিক্রি করে দিলেন তিনি৷

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri