পেকুয়ায় মামলা তুলে নিতে বাদীকে প্রাণনাশের হুমকী

homki-dead.jpg

নাজিম উদ্দিন,পেকুয়া(২৭ জুলাই) :: কক্সবাজারের পেকুয়ায় মাদ্রসা ছাত্রী অপহরণ মামলা তুলে নিতে বাদীকে প্রাণ নাশের হুমকী অব্যাহত রেখেছে মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামীরা। এতে চরম নিরাপত্বা হীনতায় ভোগছে অপহহৃত ছাত্রীর পরিবার।

জানাযায়, বিগত দু’বছর পুর্বে ২৮মে ২০১৫ সালে মাগনামা শাহ্ রশিদিয়া মাদ্রাসায় পড়–য়া ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী নুরুন্নেছা(১৪) মাদ্রসা থেকে বাড়ি ফিরার পথে অপহরণ হয়। এখনো পর্যন্ত কোন খোঁজ মেলেনি অপহহৃত মাদ্রসার ছাত্রী নুরুন্নেছার।

অপহরণের বিষয়ে এলাকার কিছু চিহ্নিত চরিত্রহীন, নারীলোভী, ইভটিজার অপহরনের ঘটনায় জড়িত থাকায় ৩জনের নামোল্লেখ করে অপহৃত নুরুন্ন্ছোর মা লাইলা বেগম বাদী হয়ে জেলা জজ (কক্সবাজার) নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং সিপি ৯৬৬/১৬। মামলায় আসামীগনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরওয়ানা জারী করেন বিজ্ঞ আদালত।

এরপর থেকে আসামীগন দীর্ঘ দিন ধরে পলাতক থাকলেও বিগত কয়েক মাস পূর্ব থেকে এলাকায় বিচরণ করছে প্রকাশ্যে। পুলিশের চোখকে ফাঁকি দিয়ে এলাকায় ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীর প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা, এনিয়ে এলাকায় চলছে নানান গুঞ্জন।

এদিকে আসামী ওসমান গনি, বাচ্চু, কাইছার অপর একজন নুরুচ্ছফা সংগবদ্ধ হয়ে মামলা তুলে নিতে প্রতিনিয়ত হুমকী ধুমকী প্রদর্শন করিতেছে।

মামলার বাদী লায়লা বেগম জানান, গতকয়েক দিন পূর্বে রাতের অন্ধকারে বসত বাড়িতে আগ্নেঅস্ত্রের ভয় দেখিয়ে আমাকে, আমার ছেলে শফিউল আলম(২২) ও আমার পরিবারের সবাইকে প্রাণে হত্যা করবে বলে হুমকী দেয় আসামীরা।

বৃহষ্পতিবার সকালে আমার ছেলে শফিউল আলম(২২)কে গতিরোধ করে বেধড়ক মারধর করে। বর্তমানে আমরা চরম নিরাপত্বাহীনতায় দিন যাপন করছি। এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশুদৃষ্টি কামনা করছি।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri