কক্সবাজারে উদ্বোধন হল কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের শিশুদের ১০টি বিষয়ে ‘না’ বলা কর্মসূচী

21081748_938280912977077_622126788_o.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি(২৪ আগস্ট) :: কক্সবাজারে শিশু হত্যা শিশু নির্যাতন, পাঠ্যবই সহ সর্বস্তরে সাম্প্রদায়িকতা, নিপীড়নমূলক শিক্ষা, ছুটির দিনে লেখাপড়া, সহিংসতায় শিশুর ব্যবহার, খেলার মাঠ ও শহীদ মিনার বিহীন বিদ্যালয়, বাল্যবিবাহ, খাদ্যে ভেজাল, মাদক, মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাস বিকৃতকরণ এই ১০টি বিষয়ে শিশুদের না বলা কেন্দ্রীয় খেলাঘর ঘোষিত কর্মসূচী কক্সবাজার থেকে শুরু হয়েছে।

কর্মসূচী উদ্ভোধন করেন খেলাঘর চেয়ারপারসন সাবেক ডাকসু ভিপি অধ্যাপক মাহাফুজা খানম, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন খেলাঘর কেন্দ্রীয় সভাপতি মন্ডলীর সদস্য লায়লা হাসান, প্রফেসর রতিন সেন, জিয়াউদ্দিন আহামেদ, কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জহির, স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন জাহেদ সরওয়ার সোহেল।

শিশুদের ১০টি বিষয়ে না পাঠ করেন কক্সবাজারের জেলা ও জাতীয় পর্যায়ের নেতৃবিন্দ। শিশুদের না পাঠ করান জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জননেতা মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, মুক্তিযোদ্ধা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা কাউসার চৌধুরী, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের চৌধুরী, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর সমেস্বর চক্রবর্তী, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ খেলাঘর উপদেষ্টা আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, খেলাঘরের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য আশিষ ধর, খেলাঘর সম্পাদক মন্ডলির সদস্য তৌহিদ রিপন, সোমেন পোদ্দার, খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তারেক সোলায়মান, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি সত্যপ্রিয় চৌধুরী দোলন।

কক্সবাজার জেলা খেলাঘর আসরের সভাপতি আবুল কাশেম বাবুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক করিম উল্লাহ কলিম’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রেজাউল করিম, বাদল রায়, এস.এম জাহিদ, অধ্যাপক আবুল হাশেম, গোলাম আব্বাস, প্রদীপ বট্টাচার্য্য, মোস্তাক আহামদ ভুঁইয়া, এনামূল হক জিন্না, হাসানুজ্জামান, খন্দকার তাজুল ইসলাম, শাহিন আকতার, অরুপ শ্যাম বাপ্পী, মাহাবু রহমান বাবলু, রুজি সেন, প্রহল্লাদ বনিক কক্সবাজার থেকে নির্বাচিত জাতীয় পরিষদের সদস্য বিশ্বজিত পাল বিশু, মৃনাল বড়–য়া, এম জসিম উদ্দিন, ওয়াহিদ মুরাদ সুমন। উদ্যাপন কমিটির সদস্য সচিব শহিদুল্লাহ শহিদ।

সামগ্রিক অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে খেলাঘর স্বনির্ধারিত দায়িত্ব পালনে পূর্বের মতো আবারো মাঠে নেমেছে। শিশুদের রক্ষা করতে হবে, নিশ্চিত করতে হবে শিশুর শারীরিক ও মানসিক বিকাশকে, শিশু অধিকার সনদ বাস্তবায়ন করতে হবে। এটি মূলত বড়দের দায়িত্ব। খেলাঘর নিয়ে এসেছে “শিশুদের ‘না’ ” কর্মসূচি। শিশুদের সাথে বড়দেরও না বলতে হবে। শিশুদের ‘না’- কে বাস্তবায়নের দায়িত্ব আমাদের সকলের।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri