বিশ্বের বিলাসবহুল দামি ১০ বাড়ি

house.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৬ সেপ্টেস্বর) :: বাড়ি মানেই আশ্রয়; সারাদিনের কাজকর্ম সেরে নিরাপদে একটু বিশ্রাম। পৃথিবীর ৭শ কোটি মানুষের সবার বসবাসের প্রক্রিয়া একরকম না। কেউ কেউতো অর্থাভাবে মাথা গোঁজার ঠাঁইও পাননি। আবার কেউ কেউ যুদ্ধ-গৃহযুদ্ধে হারিয়েছেন নিজেদের থাকার জায়গা।

জাতিসংঘের ২০০৫ সালের পরিসংখ্যানেই সারাবিশ্বে ১৬ কোটি মানুষ গৃহহীন। আর ২০১৫ সালে ‘বিশ্ব আবাসন দিবস’ উপলক্ষে জাতিসংঘের প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বের ১৬০ কোটি মানুষের ‘যথেষ্ঠ আবাসন সুবিধা’ নেই।

তার উল্টো চিত্রও দেখা যায়। কেউ কেউ সখ পূরণে নির্মাণ করেন জৌলুসময় বিলাসবহুল বাড়ি। কোনো কোনো বাড়িতে জৌলুস এতটাই বেশি যে, সেগুলো তৈরি হয়ে যায় পর্যটন কেন্দ্রে। ‘ট্রেন্ডচেজার’ প্রকাশ করেছে ৪০টি দামি বাড়ির কথা, সেখান থেকে ১০টি বাড়ি সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

মোনাকো লাক্সারি লিভিং
মোনাকোর এ বাড়িটিই বিশ্বের সবচেয়ে দামি বাড়ি। বাড়িটির দাম হাঁকা হচ্ছে ৪০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ৫ তলা বিশিষ্ট এ বাড়ির ছাঁদে রয়েছে সুইমিংপুল। এছাড়া রয়েছে একটি থিম পার্ক।

মানালাপান মেগামেনশন
দ্য মানালাপান মেগামেনশন নামের বিলাশবহুল বাড়িটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা রাজ্যের সানি ল্যানটানায় অবস্থিত। ১৬ একর জায়গা জুড়ে নির্মিত এ বাড়িটির বর্তমান মুল্য চাওয়া হচ্ছে ১৯৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাড়িটিতে রয়েছে ৩৩টি বেডরুম ও ৭টি বাথরুম। বাড়ির সামনে রয়েছে সুবিশাল বাগান যাতে প্রায় ১৫০০ প্রজাতির গাছপালা রয়েছে। ১৯৪০ সালে নির্মিতি এ বাড়িটিকে বিংশ শতাব্দীর অন্যতম স্টাইল আইকন হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

প্লাজো ডি আমোর
প্লাজো ডি আমোর যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম দামি বাড়ি। বাড়িটির মুল্য রাখা হয়েছে ১৯৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ৩৫০০০ বর্গফুটের বাড়িটিতে রয়েছে ড্যান্স ফ্লোর, ডিস্কো স্টাইলের বলরুম, তুর্কি স্পা প্রভৃতি। অভিজাত এ বাড়িটি ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের বেভেরলি হিলসে অবস্থিত।

ফর্মার ড্যানি থমাস এস্টেট
এ বাড়িটির আগে মালিকানা ছিল মার্কিন কৌতুক শিল্পী ড্যানি থমাসের। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের বেভেরলি হিলসে অবস্থিত এ বাড়িটিরি আয়তন ১৮০০০ বর্গফুট। হাতে আঁকা সিলিং, দামি কার্পেটসহ প্রভৃতি কারণে বাড়িটির দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। বর্তমানে বাড়িটির দাম রাখা হয়েছে একদাম ১৩৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

রানচোস সান কার্লোস
এ বাড়িটি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের সান্তা বারবারাতে অবস্থিত। ২৩৭ একর জায়গার উপর নির্মিত এ বাড়ির দাম ১২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাড়িটিতে ১০টি কটেজ রয়েছে। এছাড়া রয়েছে ১২টি বেডরুম ও ২০ টি বাথরুম। অশ্বারোহীদের জন্য রয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা।

প্লাজেট
বারবাডোসের সেইন্ট পিটার্স দ্বীপে অবস্থিত এ বাড়িটিকে রিসোর্টও বলা যেতে পারে। বাড়িটিতে রয়েছে পাঁচটি বেডরুম ও ৬টি বাথরুম। রয়েছে স্পা করারও সুবিধা। বর্তমানে বাড়িটির দাম চাওয়া হচ্ছে ১২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

ফিফথ এভিনিউ ডুপ্লেক্স
নিউয়র্কে অবস্থিত এ বাড়িটি নিউয়র্ক শহরের সবচেয়ে দামি বাড়ি। বাড়িটির দাম রাখা হয়েছে ১২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। অসাধারণ অভ্যন্তরীণ সাজসজ্জার এ বাড়িটিতে পা রেখেছেন মিডিয়া মুঘল রুপার্ট মারডক ও বিজনেস আইকন এলিজাবেথ আর্ডেন। বাড়িটির দাম রাখা হয়েছে ১২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

লা প্লাইস রয়েল
যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার সৈকতে অবস্থিত এ বাড়িটির দাম ১০৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ১.৬ একর আয়তনের বাড়িতে রয়েছে সৈকত ঘেঁষে রাস্তা, স্কেটিং এর ব্যবস্থা, থিয়েটার ইত্যাদি।

থিওলেস সার মের
ফরাসি এ বাড়িটি কোট ডি আজর সৈকতের তীরে অবস্থিত। বাড়িটির বাজার দর ১০৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ১৯০০ সালে নির্মিত এ বাড়ির আয়তন ১৪০০ বর্গমিটার।

হোলোম্বি হিলস ভিলা
৩৩০০০ বর্গফুটেরিএ বাড়ি নির্মাণ করেছেন ফ্যাশন ডিজাইনার ম্যাক্স আজরিয়া। লস এঞ্জেলসের প্লাটিনাম ট্রায়াঙ্গলে অবস্থিত এ বাড়িটিতে রয়েছে ৬০০০ বর্গফুটের ব্যক্তিগত সিনেমা হল। গত মার্চেই বাড়িটির মুল্য ৮৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে ৮৮ মার্কিন ডলারে পৌছেছে। বাড়িটিতে বেডরুম রয়েছে ১৭টি আর বাথরুম রয়েছে ২২টি।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri