buy Instagram followers
kayseri escort samsun escort afyon escort manisa escort mersin escort denizli escort kibris escort

২০১৮ সালে বাংলাদেশে সুষ্ঠু জাতীয় নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

usa-bd-el.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৭ সেপ্টেম্বর) :: ২০১৮ সালে বাংলাদেশে একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দেখতে চায় বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বুধবার দেশটির পররাষ্ট্র দফতরের দক্ষিণ ও মধ্যএশিয়া ভিত্তিক ভারপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী অ্যালিস ওয়েলস কংগ্রেসনাল কমিটিকে এক লিখিত বক্তব্যে এমনটা জানান। অ্যালিস বলেন, ২০১৮ সালে বাংলাদেশের অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। এখানে যেন সবাই অংশগ্রহণ করতে পারে এবং গণতান্ত্রিক চর্চা থাকে।

বৃহস্পতিবার মেইন্টেইনিং ইউএস ইনফ্লুয়েন্স ইন সাউথ এশিয়া: দ্য এফওয়াই বাজেট ২০১৮ উপস্থাপন করার কথা অ্যালিসের। তার একদিন আগেই বাংলাদেশের পরিস্থিতি তুলে ধরেন কংগ্রেসে। তিনি বলেন, হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার পর বাংলাদেশের সঙ্গে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সম্পর্ক আরও জোরদার করছে যুক্তরাষ্ট্র।

অ্যালিস বলেন, বাংলাদেশ এমন ‍হুমকি মোকাবেলায় কাজ করে যাচ্ছে। আমরা সরকারি কর্মকর্তা ও নিরাপত্তা বাহিনীদের মানবাধিকার রক্ষা ও উগ্রবাদ দমনে কাজ করার আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, অনেক মার্কিন প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ এখন উপযুক্ত। এজন্য সন্ত্রাস মোকাবেলায় যৌথ উদ্যোগ সবেচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে, বাংলাদেশ অন্তত ৪০টি হামলার দায়ভার স্বীকার করেছে আইএসও আল-কায়েদা। অ্যালিস বলেন, ‘জুলাইয়ে হলি আর্টিজানে হামলার পর আইএসের উত্থানে আমরা মানি লন্ডারিংয়ের বিরুদ্ধে ও সন্ত্রাস মোকাবেলায় যৌথ অভিযান চালাবো।’

তিনি বলেন, বাংলাদেশের নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জ থাকা সত্ত্বেও বিশ্বে দ্বিতীয় বৃহত্তম তৈরি পোশাক রফতানিকারক দেশ বাংলাদেশ এবং যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক সহযোগী। বাংলাদেশে কর্মীদের অধিকার নিশ্চিত করতে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

বাংলাদেশ কারখানার ভবন ও আগুন নিরাপত্তা ব্যবস্থায় উন্নতি করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র আশা করে এই খাতে বাংলাদেশে তাদের উন্নতি বজায় রাখবে এবং শ্রমআইনকে আন্তর্জাতিক মানে নিয়ে যাবে।

অ্যালিস ওয়েলস বলেন, বিগত দুই দশকে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। রাজনৈতিক অস্থিরতা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ সত্ত্বেও বাংলাদেশ তাদের উন্নতি অব্যাহত রেখেছে। অনেক নারী এখন কর্মক্ষেত্রে যোগ দিচ্ছে। ফলে দেশের উন্নতি ত্বরান্বিত হচ্ছে।

দারিদ্র বিমোচনে ও অর্থনৈতিক ‍উন্নয়নে বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশকে রোল মডেল মনে করে বলেও জানান ওয়েলস। বিগত পাঁচ বছরে শিশুমৃত্যুর হারও অনেক কমে গেছে।

বিশ্বব্যাংকের তালিকা অনুযায়ী বাংলাদেশ এখন নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে। আর খুব শিগগিরই বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশ হয়ে যাবে বলে মনে করেন অ্যালিস।

তিনি বলেন, অনেক প্রতিবন্ধকতা থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশ খুবই ভালো করছে এবং এটা নিয়ে সরকার গর্ব করতেই পারে। এজন্য বাংলাদেশ শিক্ষা ক্ষেত্রে জোর দিচ্ছে যা মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে বাংলাদেশের লক্ষ্যকে পূরণ করবে।

সন্ত্রাস মোকাবেলায় বাংলাদেশ ১৩ কোটি ৮৫ লাখ ডলার বিদেশ সহায়তা চেয়েছে। এতে করে বাংলাদেশের নিরাপত্তা বাহিনী আরও শক্তিশালী হবে। এফওয়াই ২০১৮ তে এই অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসার পরিধি বাড়বে, সিভিল সোসাইটিতে সমর্থন জোরদার হবে, কৃষিকাজে আর্থিক সহায়তারতে পারবে যুক্তরাষ্ট্র। ওয়েলস বলেন, যুক্তরাষ্ট্র তরুণদের উন্নয়ন, খাদ্য নিরাপত্তা ও শিশু স্বাস্থ্যে তাদের সহায়তা জোরদার করবে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri