খুটাখালীতে শ্বাসরুদ্ধ করে যুবকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ

mostak-pic.jpg

সেলিম উদ্দিন,খুটাখালী(১৪ সেপ্টেম্বর) :: চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে শ্বাসরুদ্ধ করে যুবকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অন্ডকোষে উপর্যুপরি আঘাত করে ব্যাপক মারধর করায় বর্তমানে সে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গুরত্বর আহত যুবকের নাম মোস্তাক আহমদ (৩৫)। সে বর্ণিত ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড দক্ষিন মেধাকচ্ছপিয়া গ্রামের ছৈয়দ হোসনের পুত্র।

বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বসত ভিটার সীমানা ও টাকা লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে ঘটে এ ঘটনা। স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার আফম তারেকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগে জানা যায়, মোস্তাক পেশায় দিন মজুর। ঐদিন বিকেলে দিন মজুরের কাজ করে ঘরে ফিরলে তার সৎ ভাই আকতার হোসেনের স্ত্রী শবে মেরাজ সীমানা বিরোধের জের ধরে গালমন্দ করেন। এসময় মোস্তাক গালাগাল কেন করা হচ্ছে জানতে চাইলে তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে স্বামী-পুত্রসহ প্রায় ৪/৫ জন লোক দা-লাটি সোটা নিয়ে তাকে ব্যাপক মারধর করেন।

একপর্যায়ে মোস্তাক তাদের বাধা দিলে আকতার হোসেনের স্ত্রী শবে মেরাজ তার অন্ডকোষ চেপে ধরেন। এসময় আকতার হোসেন তার পুত্র জমির হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, জয়নাল আবেদিন ও তৌহিদসহ ৪/৫ জনে মিলে দা লাটিসোটা দিয়ে তাকে মারধর করে গুরত্বর আহত করেন।

স্থানীয়রা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে প্রথমে খুটাখালীর একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে বৃহষ্পতিবার সকালে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

আহত মোস্তাকের স্ত্রী শামিমা জানায়, পরিকল্পিতভাবে তার স্বামীকে হত্যার জন্য অন্ডকোষ চেপে ধরেন শবে মেরাজ।

বর্তমানে তার প্রশ্বাব বন্ধ ও শরীর ফুলে উঠেছে। এখনো পর্যন্ত কথা বলতে পারছেন না। উন্নত চিকিৎসার জন্য ডা: পরামর্শ দিয়েছেন।

ঘটনাটি স্থানীয় চেয়ারম্যান-মেম্বারদের অবহিত করা হয়েছে। চিকিৎসার শেষে আইনের আশ্রয় নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri