কুতুবদিয়ায় মামলা করে নিরাপত্তাহীনতায় অসহায় বিধবা

wmn-jail.jpg

এম.নজরুল ইসলাম,কুতুবদিয়া(৫ অক্টোবর) :: উপজেলার আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের কাজির পাড়া এলাকায় এক অসহায় বিধাব মহিলাকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য আসামীরা প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে মামলার বাদীসহ অসহায় পরিবারের সদস্যরা।

জানাযায়, বিগত কিছুদিন পূর্বে বিধবার পুত্রবধু রেনুজা বেগমকে মারধর করে নির্যাতন করার ঘটনায় একই ইউনিয়নের কিরণ পাড়া গ্রামের মৃত আবুল হাশেমের পুত্র আবদু জব্বার,আবদু জব্বারের চার পুত্র আবদুল মোনাফ,আবদুল আলম ও আবদু ছামাদকে আসামী করে কুতুবদিয়া আদালতে একটি সিআর-৩৮৮/১৭নং মামলা দায়ের করেন রেনুজা বেগম।

তার শাশুড়ি জাহেদা বেগম বলেন, আমার পুত্র বধু রেনুজা বগেমকে মারধর করে সন্ত্রাসীরা। ফলে কুতুবদিয়া আদালতে একটি সিআর মামলা দায়ের করে আমার পুত্রবধু। মামালাটি বিচারধীন থাকাবস্থায় বিবাদীগণ বহিরাগত সন্ত্রাসী ভাড়া করে আসামীরা প্রতিনিয়ত মামলার বাদী রেনুজা বেগমসহ পরিবারের সদসদ্যের প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে।

কোন ধরনের সালিশ-বিচার ছাড়া মামলা প্রত্যাহার করে না নিলে বসতঘর আগুণ দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়ে পরিবারের সকলকে এলাকা ছাড়া করবে বলে প্রকাশ্যে হাঁকাবকা করতে থাকে।

তাতে রাজি না হওয়ায় আসমীরা পরিকল্পিতভাবে গত ৩০ সেপ্টেম্বর বিধবার পরিবারের উপরর হামলা করে ঘরের ঘেরা,বেড়া ভাংচুর করে। এসময় রেনুজা বেগম পাশের লোকজনকে ডাকার জন্য ঘরের বাহিরে আসলে আসামীরা তাকে ধরে উপর্যপরি মারধর করে। এতে ভিকটিমের ২ মাসের গর্ভ নষ্ট হয়।

উক্ত বিষয়ের প্রতিকার চেয়ে গত ৩ অক্টোবর জাহেদা বেগম ১০ জনকে আসামী করে সিআর স্মারক -৪২/১৭ দায়ের করলে আসামীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছে। ফলে যে কোন মুহূর্তে প্রাণ নাশের আশংকায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন অসহায় ও বিধবা জাহেদা বেগমের পরিবার।

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri