পেকুয়ায় হামলায় মহিলাসহ আহত-৫

20171013_120416-1.jpg

নাজিম উদ্দিন,পেকুয়া(১৩ অক্টোবর) :: পেকুয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলাসহ অন্তত ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ’্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

১৩ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভোলাইয়াঘোনা চরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন ওই এলাকার আবুল কাসেমের স্ত্রী সালামা খাতুন(৪০), তার স্বামী আবুল কাসেম(৫০), ছেলে নজরুল, আজমগীর ও শওকত ইসলাম। এদের মধ্যে আবুল কাসেম ও শওকত ইসলামকে রেফার করা হয়েছে। তাদের হাত, বুক ও হাটুতে কিরিচের আঘাত আছে। পেকুয়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনার জের ধরে চরপাড়া এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পুকুরে মাছ ধরা নিয়ে আবুল কাসেম ও পার্শ্ববর্তী নওশা মিয়ার ছেলে রাসেল প্রকাশ টুনিক্কা গংদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এ সময় টুনিক্কা তার ভাই খোরশেদ, ওয়াজেদ, কাসিম আলীর ছেলে হায়দার আলী, তালেব আলী, আনসার মিয়ার ছেলে জাহানসহ দুবৃর্ত্তরা ধারালো কিরিচ, দা, লোহার রড নিয়ে আবুল কাসেমের বাড়িতে হানা দেয়। এ সময় তারা একই পরিবারের ৫ জনকে কুপিয়ে ও হামলা চালিয়ে আহত করে। স্থানীয়রা জানায়, পুলিশ ও ব্যবসায়ীসহ প্রত্যক্ষদর্শীরা এদেরকে উদ্ধার করতে যায়।

এ সময় হামলাকারীরা অধিক ক্ষিপ্ত হন। তারা প্রত্যক্ষদর্শীদের উপর চড়াও হন। এমনকি ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিনের সাথেও তারা দুর্ব্যবহার ও মারমুখী আচরন করেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা নিশ্চিত করেছেন।

পেকুয়া থানার এস,আই বিপুল জানায়, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভিকটিমদের আইনী সহায়তা দেওয়া হবে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri