Home কক্সবাজার কক্সবাজারের ঈদগাঁওতে ফ্লাশ লাইটে গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট উদ্বোধন

কক্সবাজারের ঈদগাঁওতে ফ্লাশ লাইটে গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট উদ্বোধন

102
SHARE

মো. রেজাউল করিম, ঈদগাঁও(১৪ নভেম্বর) :: কক্সবাজারের ঈদগাঁওর ইতিহাসে এই প্রথম ফ্লাশ লাইটে মিনিবার গোল্ডাকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট উদ্বোধন হয়েছে।

১৪ নভেম্বর রাত ৯টায় জালালাবাদের বাহারছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইমরুল হাসান রাশেদ।

সেভেন স্টার ইউনাইটেড বৃহত্তর ঈদগাঁও আয়োজিত উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন সহ-সভাপতি ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান আনচারী।

বিশেষ অতিথিদের মধ্যে ছিলেন জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন সহ-সম্পাদক মোহাম্মদ হানিফ, জালালাবাদ ৬নং ওয়ার্ড এমইউপি মোফাচ্ছেল মুফি, ৫নং ওয়ার্ড এমইউপি নুরুল আলম, বাহারছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম, ঈদগাঁও নিউজ চেয়ারম্যান ও ঈদগাঁও প্রেসক্লাব সভাপতি মো. রেজাউল করিম, স্থানীয় বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ রাশেদুল হক, বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ সাহাব উদ্দীন প্রমুখ।

উপস্থিত ছিলেন জালালাবাদ ১নং ওয়ার্ড এমইউপি মোক্তার আহমদ, সদর যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির উদ্দীন জয়, সমাজ সেবক ওজির আলী। উদ্বোধন পর্বে সভাপতিত্ব করেন সেভেন স্টার ইউনাইটেড বৃহত্তর ঈদগাঁও এর সভাপতি হুমায়ুন কবির।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশিষ্ট ধারাভাষ্যকার সাকলাইন মোস্তাক। ধারাভাষ্যে ছিল সুজন। খেলা পরিচালনা করেন মিজানুর রহমান। উদ্বোধনী খেলায় চৌফলদন্ডী বৃহত্তর নতুন মহাল স্টার ক্লাব কক্স ইউনাইটেড ফুটবল একাডেমীর সাথে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিল। নতুন মহালের অধিনায়ক ছিল জাহেদ আর কক্স ইউনাইটেডের অধিনায়ক ছিল রুবেল।

উল্লেখ্য, ৪ গ্রুপে এ খেলায় ১৬টি ক্লাব দল অংশ নিচ্ছে। অন্য দলগুলো হচ্ছে বাঁশকাটা ক্রীড়া সংস্থা, চট্টগ্রাম সোবহানিয়া ক্লাব, ঈদগাহ সিটি, থ্রি স্টার ফুটবল একাডেমী, বাঁশখালী, কৈলাশেরঘোনা ফুটবল একাদশ, বাহারছড়া ফুটবল একাদশ, জালালাবাদ অল স্টার এফসি, খুটাখালী ২নং ওয়ার্ড ফুটবল একাদশ, নিউ খেলাঘর, ঈদগাহ, ভোমরিয়াঘোনা ফুটবল একাদশ, শিল্পনগরী ইসলামপুর, অল দ্যা বেস্ট, মাছুয়াখালী, কাকলী ক্রীড়া সংস্থা, নতুন পাড়া, খুটাখালী ও বাহারছড়া জুনিয়র ফুটবল একাদশ।

উদ্বোধক তার বক্তব্যে বলেন, খেলাধুলা ও ক্রীড়া চর্চা শরীর সুস্থ রাখার পাশাপাশি যুব সমাজকে সামাজিক অবক্ষয় থেকে বিরত রাখে। যারা নিয়মিত খেলাধুলার সাথে জড়িত তারা সন্ত্রাস, রাহাজানী, মাদক ও অন্যান্য সামাজিক অপরাধ থেকে মুক্ত থাকে। এটা চিত্ত বিনোদনের অন্যতম হাতিয়ার। তিনি ফ্লাশ লাইটে এ আয়োজনের মাধ্যমে অত্র বিদ্যালয়ের স্টেডিয়ামটি ইতিহাসে স্বীকৃতি পাবে বলে মন্তব্য করেন।

প্রধান ও অন্য অতিথিরা তাঁদের বক্তব্যে বলেন, ঈদগাঁওতে প্রচুর ফুটবল প্রতিভা থাকলেও তা বিকাশের কোন ক্ষেত্র নেই। সরকারী সহযোগিতার অভাবে ফুটবলের মান ও জনপ্রিয়তা তলানিতে। ফুটবলের এ অনুর্ভর ভূমিকে পরিচর্যার মাধ্যমে উর্বর করতে হলে দক্ষ ফুটবলার ও সংগঠক প্রয়োজন। প্রতিভাকে কখনো আটকানো যায় না। এর ঝিলিক একদিন না একদিন জ¦লে উঠবেই। ফুটবলারদের মাঠে দক্ষতা, বিচক্ষণতা ও প্রতিভা প্রমাণ করতে হবে।

নতুন প্রজন্মকে ফুটবলে আগ্রহী করে তুলতে হবে। জনগণকে ফুটবলমুখী করতে হলে খেলায় আধুনিক কলা-কৌশলের প্রয়োগ ঘটাতে হবে। অভাবের তাড়না ও সমন্বয়ের অভাবে জাতীয় পর্যায়ের ফুটবলার তৈরি করা যাচ্ছে না। ঝিমিয়ে পড়া ক্রীড়াঙ্গনকে জাগিয়ে তুলতে হলে ফুটবলারদের পারষ্পরিক সম্প্রীতি সৃষ্টি ও মান অভিমান ত্যাগ করতে হবে।

কঠোর সাধনার মাধ্যমে প্রতিভার যথাযথ বিকাশ ঘটাতে হবে। স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও বন্টন নিশ্চিত করতে হবে। দেশে ফুটবলের এ ক্রান্তিলগ্নে জমজমাট মিনিবার গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট এলাকায় প্রতিশ্রুতিশীল প্রতিভা সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

SHARE