কক্সবাজার শহরের সার্কিট হাউস এলাকায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে পর্যটক নিহত

abu-taher-sagor-dead.jpg

কক্সবাংলা রিপোর্ট(১৫ ডিসেম্বর) :: কক্সবাজার শহরের ভিআইপি সড়ক নামে পরিচিত সার্কিট হাউস সংগ্লগ্ন জইল্লার দোকান এলাকা ছিনতাইকারীদের অভয়াারণ্যে পরিণত হয়েছে।প্রতিনিয়ত এই পয়েন্টে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে চলেছে। সার্কিট হাউস সংগ্লগ্ন জইল্লার দোকান থেকে লাবণী মোড় পর্যন্ত প্রায়ই ছিনতাই হয়ে থাকে।

আর এই পয়েন্টেই ২০১৫ সালের ২৩ জুলাই পর্যটককে বাঁচাতে গিয়ে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে এক ট্যূরিস্ট পুলিশের মৃত্যূ হয়েছিল।কিন্তু আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিয়মিত নজরদারী না থাকায় বারবার এই পয়েন্টটিতে প্রায় চুরি, ছিনতাই ও খুনের ঘটনা ঘটেই চলেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে শহরের সার্কিট হাউস সংগ্লগ্ন জইল্লার দোকান এলাকায় ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে আবু তাহের সাগর (১৮) নামে এক পর্যটক নিহত হয়েছেন। নিহত আবু তাহের সাগর একজন মোটর ইলেট্রিশিয়ান এবং ফেনী জেলার সোনাগাজীর উপজেলার মঙ্গলনান্দি এলাকার শফিউল্লাহর ছেলে।

নিহতের চাচাতো ভাই সজীব জানান, বৃহস্পতিবার তারা তিনজন কক্সবাজারে ফেনী থেকে কক্সবাজারে নেমে কাউন্টার সংলগ্ন ঝাউবিথি নামে একটি আবাসিক হোটেলে ওঠেন। শুক্রবার সকালে সমুদ্র সৈকতে ঘোরাঘুরির পর রুমে যাওয়ার সময় সিএনজি নিয়ে একদল ছিনতাইকারী তাদের গতিরোধ করে।

ছিনতাইকারীরা এসময় তাদের জেরা করে এবং আবু তাহের সাগরকে বুকে ও পেটে ছুরিকাঘাত করে তার ৩টি দামি মোবাইল সেট সহ মানিব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যায়।এসময় তার সাথে থাকা বন্ধু নুরুল আমিনও সামান্য আহত হন।পরে আহত আবু তাহেরকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসক জানান অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণে পর্যটকের মৃত্যূ হয়।

কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রণজিত বড়ুয়া জানান, শহরের সার্কিট হাউস সংগ্লগ্ন জইল্লার দোকান এলাকায় একদল ছিনতাইকারী এ ঘটনা ঘটিয়েছে।তাদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহত পর্যটকের মৃতদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri