কক্সবাজারে IFRC আন্তর্জাতিক পার্টনারশিপ মিটিংয়ে ৮০০ মিলিয়ন ডলার অনুদান দেয়ার অনুরোধ

IMG_20180215_125403.jpg

কক্সবাংলা রিপোর্ট(১৫ ফেব্রুয়ারি) :: কক্সবাজারে ১৩ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ রেড ক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (আইএফআরসি) আয়োজিত তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পার্টনারশিপ মিটিং বৃহস্পতিবার সম্পন্ন হয়েছে।

কক্সবাজারের ইনানী সৈকতের বিলাসবহুল হোটেল সি-পার্ল রয়েল টিউলিপের এই মিটিংয়ে ২২টি দেশের জাতীয় রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, আন্তর্জাতিক রেডক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট প্রতিনিধি এবং সরকারের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি ও কক্সবাজারে কর্মরত আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিসহ স্থানীয় প্রশাসনের ২০০ জন প্রতিনিধি পার্টনারশিপ মিটিংয়ে অংশ নেয়।

আন্তর্জাতিক পার্টনারশিপ মিটিং-এ বক্তারা বলেন, নতুন করে গড়ে উঠা রোহিঙ্গা শিবিরগুলো অত্যন্ত ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। আসন্ন বর্ষা মৌসুমে রোহিঙ্গা শিবিরে মারাত্মক দুর্যোগের আশংকা করা হচ্ছে। রোহিঙ্গা শিবিরে দুর্যোগ মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সম্ভাব্য প্রস্তুতি হিসেবে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের জীবনমানের উন্নয়নে কি ধরনের সহায়তা দেয়া যায় এ বিষয়েও জরুরি ভিত্তিতে পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং বাস্তবায়নের উপর গুরুত্বারোপ করে মিটিং-এ কক্সবাজার ঘোষণা করা হয়।

পরে প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শেষ না হওয়া পর্যন্ত অর্থাৎ আগামী দুই বছর আন্তর্জাতিক রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট কমিটি রোহিঙ্গা শিবিরে তাদের মানবিক কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এসব কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে, রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা ও ত্রাণ সহায়তা এবং দুর্যোগ মোকাবেলায় সম্ভাব্য প্রস্তুতি। এজন্য তারা আন্তর্জাতিক রেডক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট প্রতিনিধিদের কাছ থেকে আরও ৮০০ মিলিয়ন ডলার অনুদান দেয়ার অনুরোধ জানান।

প্রেস ব্রিফিং এ উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রেসিডেন্ট হাফিজ আহমদ মজুমদার, ভাইচ প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত, মহাসচিব ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন, ট্রেজারার অ্যাডভোকেট তৌহিদুর রহমান।

এর আগে অনুষ্ঠানে যোগদানকারীরা কয়েক দলে ভাগ হয়ে সকাল থেকে দিনব্যাপী উখিয়া ও টেকনাফের রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেছেন। প্রতিনিধি দলের সদস্যরা রোহিঙ্গা শিবিরের ফিল্ড হাসপাতাল ও ত্রাণ বিতরণ কেন্দ্র সমূহ ঘুরে দেখেন। তারা রোহিঙ্গাদের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে কথাও বলেন।

Share this post

PinIt
scroll to top
error: কপি করা নিষেধ !!
bahis siteleri