কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে তিনদিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা শুরু

dc1-2.jpg

কক্সবাংলা রিপোর্ট(২৫ ফেব্রুয়ারী) :: প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের সহযোগীতায় এবং কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে রবিবার থেকে শুরু হয়েছে তিনদিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা।

২৫ ফেব্রুয়ারী রবিবার সকালে পাবলিক লাইব্রেরীর শহীদ দৌলত ময়দানে মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো: আলী হোসেন। পরে একই স্থানে উদ্বোধনী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল।

জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ একে এম ফজলুল করিম চৌধুরী,পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী প্রদীপ্ত খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: গোলাম রুহুল কুদ্দুসসহ সংশ্লিষ্টরা বক্তব্য রাখেন। সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছাতে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপগুলো তুলে ধরতে এ মেলার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন।

মেলার সার্বিক তত্ত্বাবধান করছে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এটুআই (অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন)প্রজেক্ট। তিনি আরও বলেন, ‘শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি ও অবকাঠামোগতসহ সব ক্ষেত্রে ডিজিটালাইজড করা হয়েছে। দেশের মানুষ দোরগোড়ায় ডিজিটাল সেবা পাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( শিক্ষা ও আইসিটি ) মুহম্মদ আশরাফ হোসেন।

এ ছাড়া অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট জিন্নাত শহীদ পিংকী এবং নাসরীন বেগম সেতু এবং মেলার সুষ্ঠ আয়োজনের সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট সাইফুল ইসলাম জয়, তানভীর আহমেদ,জয়নাল আবেদীন,সাইয়েমা হাসান এবং ফারজানা রহমান। 

এ সময় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও স্ব-স্ব দায়িত্ব পালনে ব্যস্ত ছিলেন।

এসময় জেলার সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তর, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান,সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। এরপরে মেলার ষ্টল পরিদর্শন করেন অতিথিরা।

মেলায় রয়েছে তরুণদের জন্য রয়েছে আইসিটি কুইজ প্রতিযোগিতা, প্রজেক্ট জমা দেওয়ার জন্য ইনোভেথন, সিভি-ক্লিনিক, ড্রোন প্রদর্শনী, আমার চোখে ডিজিটাল বাংলাদেশ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও সেলফি কনটেস্ট।

এছাড়া সরকারি দপ্তর, অধিদপ্তর, পরিদপ্তর, বিভাগ, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান, মোবাইল ব্যাংকিং ও বেসরকারি তথ্যপ্রযুক্তি সেবার প্রতিষ্ঠানসহ সরকারী -বেসরকারী বিভিন্ন দপ্তরের অনলাইনে সেবা মূলক ৮০টি স্টল স্থান পায়।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে প্রতিদিন।

Share this post

PinIt
scroll to top
alsancak escort bornova escort gaziemir escort izmir escort buca escort karsiyaka escort cesme escort ucyol escort gaziemir escort mavisehir escort buca escort izmir escort alsancak escort manisa escort buca escort buca escort bornova escort gaziemir escort alsancak escort karsiyaka escort bornova escort gaziemir escort buca escort porno