সলমন খানের জন্য শোয়েবের চোখে জল

salman3.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(৬ এপ্রিল) :: কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় দোষী সাবস্ত হয়ে বন্ধু সলমন খান এখন জেলে৷ সেই খবর সম্প্রচার হতেই চোখে জল প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার শোয়েব আখতারের৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় টুইট করে সলমনের এই অবস্থায় তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস৷

টুইটে শোয়েব লিখেছেন, ‘বন্ধু সলমনকের পাঁচ বছরের জেলের সংবাদ পেয়ে হতাশ৷ তবে ওঁর দেশের আইনব্যবস্থাকে শ্রদ্ধা করি, আদালতের রায় প্রত্যেকেই মানতে বাধ্য৷ তবে মন সত্যিই মানতে চায় না, সলমনকে পাঁচ বছর জেলে কাটাতে হতে পারে৷ আশা করি দ্রুত সব সমস্যা থেকে বেড়িয়ে আসতে পারবেন সলমন৷’

বৃহস্পতিবার ২০ বছর পুরনো কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় রায় ঘোষণা করে যোধপুর আলাদত৷ সেই মামলাতেই দোষী সাব্যস্ত হন সলমন খান। একই মামলায় অবশ্য প্রমাণের অভাবে বেকসুর খালাস হয়েছেন সেফ আলি খান, তব্বু, নীলম ও সোনালি বেন্দ্রে।

Really Sad to see my friend Salman khan sentenced for 5 year But the Law must take its course & we got to respect the decision of honourable court of India but i still think punishment is to harsh but my heart goes to his family & fans ..
Am sure he will out soon ..

— Shoaib Akhtar (@shoaib100mph) April 5, 2018

১৯৯৮ সালে সলমন, সেফ, তব্বু, নীলম ও সোনালি হাম সাথ সাথ হ্যায় ছবির শ্যুটিংয়ে যোধপুর গিয়েছিলেন। অভিযোগ, শ্যুটিং চলাকালীন ১ ও ২ অক্টোবরের রাতে আলাদা আলাদা দুটি জায়গায় সলমন কৃষ্ণসার শিকার করেন। কাঙ্কাণি গ্রামে তাঁর বিরুদ্ধে যে দুটি কৃষ্ণসার শিকারের অভিযোগ রয়েছে, সেই মামলাতেই সলমনের পাঁচ বছরের সাজা ঘোষণা করেছে আলাদত।

প্রাথমিক ভাবে ভাইজান ভক্তরা অনুমান করেছিলেন, একরাত জেলে কাটানোর পরই সলমন জামিন পাবেন৷ সেটা অবশ্য এখনই হচ্ছে না৷ বৃহস্পতিবারের পর শুক্রবারও ফের জেলেই কাটাতে হবে সলমন খানকে৷ যোধপুর সেশন কোর্ট জামিনের আবেদন করার দিন পিছিয়ে দিয়েছেন৷ সেজন্যই আরও একরাত জেলে কাটাতে হবে টাইগার জিন্দা হ্যায়’র নায়ককে৷

Share this post

PinIt
scroll to top
bahis siteleri