izmir escort telefonlari
porno izle sex hikaye
çorum sürücü kursu malatya reklam

রাত জাগার অভ্যাস বাড়ে অকাল মৃত্যু

mn-wake-up.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(১৭ এপ্রিল) :: অকালমৃত্যুর কারণ হতে পারে নিশাচর জীবনযাপন বা রাত জাগার অভ্যাস।

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব ব্যক্তির নিশাচর জীবনযাপনের অভ্যাস রয়েছে, তাদের মধ্যে তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়াদের তুলনায় তাড়াতাড়ি প্রাণ হারানোর আশঙ্কা অনেক বেশি।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক নর্থওয়েস্টার্ন মেডিসিন এবং ইউনিভার্সিটি অব সারের এক যৌথ গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর সায়েন্স ডেইলি।

যুক্তরাজ্যে বায়োব্যাংক সমীক্ষার আওতাধীন প্রায় পাঁচ লাখ মানুষের ওপর গবেষণা চালিয়ে এ তথ্য পাওয়া গেছে। এতে উঠে আসে, যারা রাতে দ্রুত ঘুমিয়ে পড়েন ও ভোরবেলায় ওঠেন; তাদের তুলনায় নিশাচর ব্যক্তিদের অকালমৃত্যুর ঝুঁকি ১০ শতাংশ বেশি।

রাত জাগার কুফল নিয়ে আগেও বেশকিছু গবেষণা প্রকাশ হয়েছে। তবে সেগুলোর লক্ষ্য ছিল মূলত হজমশক্তির গোলমাল ও হূদরোগের সঙ্গে রাত জাগার অভ্যাসের সংযোগ স্থাপন। কিন্তু রাত জাগার সঙ্গে মৃত্যুঝুঁকির সম্পর্ক নিয়ে এটিই প্রথম গবেষণা। এতে উঠে আসা ফল গত সপ্তাহেই নিবন্ধ আকারে ক্রোনোবায়োলজি ইন্টারন্যাশনাল জার্নালে প্রকাশ হয়েছে।

এ বিষয়ে ইউনিভার্সিটি অব সারের ক্রোনোবায়োলজির অধ্যাপক ম্যালকম ফন শ্যান্টজ বলেন, ‘জনস্বাস্থ্যের জন্য এটি এমনই এক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যা আর দীর্ঘকাল উপেক্ষার কোনো সুযোগ নেই। আমাদের এখন রাত জাগা ব্যক্তিদের দেহঘড়িকে সূর্যোদয়ের সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার বিষয়ে কীভাবে সহায়তা করা যায়, সে বিষয়ে গবেষণা চালানো উচিত।’

গবেষণায় আরো দেখা যায়, যারা রাতে দীর্ঘ সময় ধরে জেগে থাকেন; তাদের মধ্যে ডায়াবেটিস এবং মানসিক ও স্নায়বিক বৈকল্যে আক্রান্ত হওয়ার হারও অনেক বেশি।

Share this post

PinIt
scroll to top
bedava bahis bahis siteleri
bahis siteleri