চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রোমাকে ৫-২ গোলে বিধ্বস্ত করে ফাইনালের পথে লিভারপুল

salah.jpg

কক্সবাংলা ডটকম(২৫ এপ্রিল) :: চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগের লড়াইয়ে ইতালিয়ান জায়ান্ট রোমাকে ৫-২ গোলে হারিয়ে ফাইনালের দিকে একধাপ এগিয়ে গেল ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল৷

দলের তারকা ফুটবলার মহম্মদ সালাহ এবং রবের্তো ফিরমিনো জোড়া গোলে এগিয়ে যায় ‘দ্য রেড’৷ এই দুই তারকা ফুটবলার ছাড়াও সাদিও মানে একটি গোল করেন৷ রোমার হয়ে দুটি গোল করেন জেকো এবং দিয়েগো পেরোত্তি৷

পরপর কয়েকটি সুযোগ নষ্ট করার পর লিভারপুলকে কাঙ্খিত গোল এনে দেন মহম্মদ সালাহ৷ ম্যাচের ৩৫ মিনিটে ফিরমিনোর বাড়ানো বল বাঁ-পায়ের কোনাকুনি শটে বিপক্ষের জালে জড়িয়ে দেন সালাহ৷ ১০ মিনিট পর ফিরমিনোর বাড়ানো বল ডি-বক্সের বাইরে ধরে নিচু শটে দলের ব্যবধান বাড়ান লিভারপুলের মিশরীয় ফরোয়ার্ড৷

২-০ এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করার পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই লিভারপুলের গোলসংখ্যা তিনে নিয়ে যান সাদিও মানে৷ সালাহর পাশ থেকে গোল করেন সেনেগাল ফরোয়ার্ড৷ ম্যাচের প্রথমার্ধটা যদি সালাহার হয় তাহলে দ্বিতীয়ার্ধটা ছিল ফিরমিনোর৷ ৬১ ও ৬৮ মিনিটে জোড়া গোল করে লিভারপুলের ব্যবধান ৫-০ করেন ‘দ্য রেড’-র ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার৷

ম্যাচের শেষ কয়েক মিনিটে জোরালো আক্রমণে পরপর দু’টি গোল করেন রোমার ফুটবলাররা৷ ৮১ মিনিটে ডি-বক্স থেকে নেওয়া জেকোর বার ঘেঁসা শট রোমাকে প্রথম গোল এনে দেয়৷ চার মিনিট পর আরও একটি গোল করে ব্যবধান কমান দিয়েগো পেরোত্তি৷ পেনাল্টি থেকে বল লিভারপুলের জালে জড়িয়ে দেন রোমার আর্জেন্তাইন উইংগার পেরোত্তি৷

তবে শেষ পর্যন্ত ৫-২ ব্যবধানে ম্যাচ পকেটে পুরে ফাইনালে পথে এক ধাপ এগিয়েে গেল লিভারপুল৷

সালাহকে বাধ্য হয়ে বিক্রি করেছিল রোমা!

মোহাম্মদ সালাহ মঙ্গলবার রাতে নিজের সাবেক ক্লাব রোমাকে হারিয়েছে। সাবেক ক্লাবের জালে গোল দিয়েছেন দুটি। এছাড়া দুটি গোলে রেখেছেন দারুণ অবদান। সালাহ গোল দুটি করে উদ্‌যাপন করেননি। বরং সাবেক ক্লাবের ভক্তদের কাছ থেকে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন। তবুও কি আর রোমার আক্ষেপ যায়! রোমা সমর্থকদের তাই আকুতি কেন বেচলেন সালাহকে!

তবে রোমার ক্রীড়া পরিচালক মতে, তারা সালাহকে বিক্রি করতে চাননি। আসলে রোমার কিছু করার ছিল না। তাদের হাত বাঁধা ছিল। মিসরের এই তারকা খেলোয়াড়কে কোন দল বিক্রি করতে চাইবে না। কিন্তু সবসময় সবকিছু হাতে থাকে না।

রোমার ক্রীড়া পরিচালক বলেন, ‘আমাদের ২০১৭ সালের ৩০ জুনের মধ্যে সালাহকে বিক্রি করতে হতো। উয়েফার অর্থনৈতিক স্বচ্ছতার নিয়ম পূরণ করতে হতো আমাদের। তাই তাকে আমাদের ছেড়ে দিতে হতো।’

এছাড়া ক্লাবের হাতে অন্য কোন উপায় না থাকা এবং সালাহের সম্মতিতে দুইয়ে দুইয়ে চার হয়েছে। রোমার এই পরিচালক বলেন, ‘আমাদের হাতে সমাধানের অন্যকোন পথ ছিল না। সে ক্লাব ছাড়তে আগ্রহ প্রকাশ করেছিল এবং আমারাও তাকে ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলাম।’

গত মৌসুমে রোমা সালাহকে লিভারপুলের কাছে ৪২ মিলিয়ন ইউরোর কিছু বেশি দামে বিক্রি করেছিল। তবে সালাহকে মৌসুম শেষে লিভারপুল ধরে রাখতে পারবে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন আছে। মিসরের এই তারকা স্টাইকারের দিকে চোখ রাখছে লা লিগার দুই জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা। মিসরকে বিশ্বকাপে নিয়ে যাওয়া এই তারকা মৌসুম শেষে দল বদলাবে কিনা তা অবশ্য সময়ই বলে দেবে।

Share this post

PinIt
scroll to top